home / রূপচর্চা ও বিউটি টিপস
আপনি যে প্রসাধনীটি ব্যবহার করছেন, তা আসল তো?

আপনি যে প্রসাধনীটি ব্যবহার করছেন, তা আসল তো?

আপনি যদি কখনও স্ট্রিট শপিং করেন, তাহলে নিশ্চয়ই কখনও না কখনও গড়িয়াহাট বা হাতিবাগান অথবা নিউ মার্কেটে ২০০ টাকায় হুডা বিউটির লিপস্টিক অথবা ১১০ টাকায় ম্যাক-এর কমপ্যাক্ট পাওয়া যায় (5 pro tips to differentiate between branded and fake cosmetics), দেখেছেন! আবার অনেক সময়েই সোশ্যাল মিডিয়ার নানা গ্রুপেও অনেক বিক্রেতার কাছে শুনেছেন নামী ও দামী ব্র্যান্ডের মেকআপ বা প্রসাধনী খুব কম দামে তিনি বিক্রি করছেন। অনেকেই অত্যন্ত উৎসাহ নিয়ে সেই প্রোডাক্ট কিনেওছেন। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই বুঝতে পেরেছেন যে তাঁর কেনা ‘ব্র্যান্ডেড’ মেকআপ বা অন্যান্য প্রসাধনী নকল! কিন্তু তখন আর কিছু করার থাকে না। আমরা প্রায় প্রত্যেকেই কখনও না কখনও এভাবে ঠকেছি। তবে, কয়েকটি ছোট্ট ছোট্ট বিষয় যদি আমরা মাথায় রাখি, তাহলে কিন্তু আর এই ভুল কোনওদিনই হবে না।

আপনার কেনা প্রোডাক্টটি আসল নাকি নকল – বুঝবেন কীভাবে

সাধ করে অনেকেই মেকআপ কেনেন, কিন্তু সেটি আসল তো?

১। প্রতিটি ব্র্যান্ডেরই একটি বিশেষ ফন্ট এবং লোগো থাকে যা দিয়ে তা চেনা যায়। আসল ব্র্যান্ডেড মেকআপ বা প্রসাধনীর সেই বিশেষ ফন্ট বা লোগো, নকল কোম্পানিগুলি কখনওই এক রকমভাবে কপি করতে পারে না। মাপে বা লেখার স্টাইলে অথবা বানানে কোথাও না কোথাও অমিল থাকবেই (5 pro tips to differentiate between branded and fake cosmetics)। কাজেই যখন পয়সা খরচ করে কিনছেন, খুব ভাল করে খুঁটিয়ে দেখে তবেই কিনুন।

২। ব্র্যান্ডেড প্রোডাক্ট আসল নাকি নকল তা যাচাই করার জন্য প্রোডাক্টি হাতে নিয়ে দেখুন। আসল মেকআপের টেক্সচার একদম অন্যরকম, মসৃণ হয়। আবার নেলপলিশের ক্ষেত্রে বা আই লাইনারের ক্ষেত্রে দেখবেন আসল প্রোডাক্টের ব্রাশ খুবই মসৃণ হয়। যদি দেখেন এগুলো কিছুই নেই, সেক্ষেত্রে বুঝতেই পারছেন মেকআপটি আসল নয়!  

৩। অনেক সময় এমন পরিস্থিতি হয়, আমাদের পরিচিত কেউ হয়ত মেকআপ বা অন্য কোনও প্রসাধনী বিক্রি করছেন এবং তিনি বেশ জোর করেই আমাদের তাঁর থেকে কেনাকাটা করতে বাধ্য করেন। আপনি হয়তো ভদ্রতা বজায় রাখতে তাঁকে না বলতে পারলেন না, কিন্তু প্রোডাক্টটি কেনার আগে প্যাকেজিং দেখে নিন। আসল ব্র্যান্ডেড প্রোডাক্টের প্যাকেজিং খুব সুন্দর হয়। নিট অ্যান্ড ক্লিন। কিন্তু নকল প্রোডাক্টগুলি হয় কোনওমতে প্যাক করা থাকে অথবা অনেক সময়ই প্যাকেট বা বক্স থাকেই না। যদি দ্বিতীয়টি হয়, সেক্ষেত্রে নকল হওয়ার আশঙ্কাই বেশি।

৪। আসল ব্র্যান্ডেড মেকআপ বা প্রসাধনীর দাম সম্পর্কে নিশ্চয়ই আপনার আইডিয়া থাকবে। আপনি নিজেই ভেবে বলুন তো, এত কম দামে কি কখনও আপনি আসল প্রোডাক্ট পাবেন (5 pro tips to differentiate between branded and fake cosmetics)?

৫। অনেকেই আছেন যারা সাজতে খুব ভালবাসেন। আর নানা জায়গা থেকে নানা ব্র্যান্ডের মেকআপ বা অন্য কোনও প্রসাধনী কেনেন। তবে অনেক সময়েই কেনার পর বুঝতে পারেন যে তাঁকে বেশ সুন্দর করে বোকা বানিয়ে বাজে কোয়ালিটির প্রোডাক্ট গছিয়ে দেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে বলে রাখি, যখনই আপনি কোনও ব্র্যান্ডেড মেকআপ বা যে-কোনও জিনিসই কিনবেন, সব সময়ে চেষ্টা করুন নির্ভরযোগ্য রিটেলারের থেকে কেনার। যদি আপনি অনলাইনে মেকআপ বা অন্য কোনও প্রসাধনী কেনেন, সেক্ষেত্রে নির্ভরযোগ্য অনলাইন শপিং সাইট থেকেই কিনুন।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

29 Jul 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text