চুলের যত্ন নিয়ে নানা টিপস

বৃষ্টির জল থেকে চুল বাঁচাতে সহজ এই পাঁচটি পদ্ধতি ট্রাই করতে পারেন

Swaralipi BhattacharyyaSwaralipi Bhattacharyya  |  Jul 15, 2020
বৃষ্টির জল থেকে চুল বাঁচাতে সহজ এই পাঁচটি পদ্ধতি ট্রাই করতে পারেন

ক্যালেন্ডার বলছে বর্ষাকাল। প্রকৃতিরও একই সুর। অর্থাৎ বর্ষা (monsoon) এসে গিয়েছে। কারও হয়তো পছন্দের ঋতু। বছরের এই সময়টা মন ভাল থাকে তাঁদের। বাড়র জানলায় বসে বৃষ্টি দেখতে দেখতে খিচুড়ি খাওয়াই হোক বা ছাদে গিয়ে বৃষ্টিতে ভেজা। সবটাই পছন্দের। কারও বা বর্ষাকাল একেবারেই পছন্দ নয়। জল, কাদা পেরিয়ে রাস্তায় বেরতে হবে ভাবলেই মেজাজ বিগড়ে যায়।

আপনি যে দলেই পড়ুন না কেন, একটা জিনিস কিন্তু সকলের জন্যই একই রকম। যদি বৃষ্টিতে ভিজতে হয়, তাহলে চুলের (hair) আলাদা যত্ন নেওয়া জরুরি। এই সময় আবহাওয়া আর্দ্র থাকায় চুলের ক্ষতি হয়। গুমোট থাকায় ঘাম জমে স্ক্যাল্পে ব্যাকটেরিয়া তৈরি হয়। তা থেকে ইনফেকশন হতে পারে। খুশকির সমস্যায় বর্ষাকালে চুল ওঠে খুব। এই সব থেকে দূরে থাকতে অবশ্যই সাধারণ কিছু যত্নের প্রয়োজন। 

 

চুল বেঁধে রাখুন হালকা করে। ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

১) যদি একান্তই বৃষ্টিতে ভিজে যান, তাহলে বাড়ি ফিরে অবশ্যই চুল ভাল করে ধুয়ে নিন। বৃষ্টির জল মাথায় জমে থাকলে ঠাণ্ডা লাগার সমস্যা হতে পারে। আবার চুলে জটও ধরে যায়।

২) সম্ভব হলে সপ্তাহে তিন থেকে চারদিন চুলে পরিমাণ মতো তেল মাসাজ করুন। এতে ডিপ কন্ডিশনিংয়ের কাজ হবে। যে কোনও রকম ব্যাকটেরিয়ার হাত থেকে বাঁচবে আপনার চুল। তবে যতটা প্রয়োজন, ঠিক ততটাই ব্যবহার করুন। মাসাজ করে আধঘণ্টা রেখে সাধারণ জলে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। চুলে তেল জমে থাকলে তা থেকেও কিন্তু ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধতে পারে। ফলে ভাল করে শ্যাম্পু করে নিতে হবে।

৩) খুব টেনে শক্ত করে চুল বেঁধে রাখবেন না। একটানা অনেকক্ষণ চুল বাঁধা থাকলে ঘাম জমে ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে পারে। চুলেরও হাওয়ার প্রয়োজন, সেটা মনে রাখবেন। বড় চুল সামলাতে না পারলে আলগা বিনুনি করে রাখতে পারেন।

৪) চুলের যত্নের অন্যতম হাতিয়ার চিরুণি। এই বিষয়টা আমাদের অনেকেরই চোখ এড়িয়ে যায়। আপনার চুলে উপযুক্ত চিরুণি ব্যবহার করুন। এতে চুল আঁচড়াবার সময় চুল ছিঁড়ে যাওয়ার সম্ভবনা কম। আর নিয়মিত চিরুণি পরিষ্কার করাও জরুরি। স্নান করার পরই চুল আঁচড়াবেন না। এতেও চুল ছিঁড়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে।

৫) বিশেষজ্ঞরা বলেন, শুধুমাত্র তেল, শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনারের সাহায্যেই চুল ভাল রাখা সম্ভব। কিন্তু স্টাইলিংয়ের কারণে আরও বিভিন্ন রকম হেয়ার প্রোডাক্ট আমরা ব্যবহার করি। অন্তত বর্ষাকালে সে সব থেকে যত দূরে থাকা যায়, ততই ভাল। চুলে রং করানো বা স্ট্রেট অথবা কার্লি করার প্ল্যান যদি থাকে, আপাতত কিছুদিনের জন্য তা বাতিল করুন। বর্ষার পরে সে সব ট্রাই করাই ভাল। প্রয়োজন হলে এই সময় হেয়ার স্পা করিয়ে নিতে পারেন। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!