Advertisement

রিলেশনশিপ

তুমুল ঝগড়ার পর তাঁর অভিমানের বরফ গলান এই টিপসগুলি মেনে!

popadminpopadmin  |  Jun 6, 2019
তুমুল ঝগড়ার পর তাঁর অভিমানের বরফ গলান এই টিপসগুলি মেনে!

Advertisement

ঝগড়া হয়েছে? তা মাঝে-মাঝে অমন একটু হওয়া উচিত। তবেই না সম্পর্ক জমে উঠবে। না হলে তো সেই থোড় বড়ি খাড়া আর খাড়া বড়ি থোড়! শুনলে অবাক হবেন, অনেকেই বলেন ঝগড়ার (fight) পরে নাকি প্রেম আরও বাড়ে! তাই চুটিয়ে ঝগড়া করুন। ক্ষতি নেই! কিন্তু কথা কাটাকাটির পরে বেশিক্ষণ মুখ ফুলিয়ে থাকলে কিন্তু চলবে না। তাতে পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যেতে পারে। বাড়তে পারে দূরত্বও। কিন্তু বরফ গলাবেন কীভাবে তাই ভাবছেন? জেনে নিন আমাদের কাছ থেকে।

১. জয় মা বলে একটা রোম্যান্টিক মেসেজ পাঠিয়েই দিন

love-1 final

এখন তো টেকনোলজির কল্যাণে মনের কথা সহজেই পৌঁছে যেতে পারে হাজার কিমি দূরে! তা হলে আপনিই বা অপেক্ষা করছেন কেন? ঝটপট একটা হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ করে ফেলুন। তাতে ওই লাভ সাইন মার্কা ইমোজিগুলি চিপকাতে ভুলবেন না যেন! খেয়াল রাখবেন, মেসেজটা যত রোম্যান্টিক হবে, ততই কিন্তু আপনার মনের মানুষে (partner) মন ভিজবে। আর যদি একটু ক্রিয়েটিভিটি ফলাতে পারেন, তা হলে তো কথাই নেই! দু-চার লাইন কবিতা লিখে পাঠালে খেলা একেবারে জমে উঠবে। তাতে বরফ গলবে দ্রুত। তবে শুনুন, মিটমাট হয়ে যাওয়ার পরে আবার ঝগড়ার কারণ খুঁজতে বসবেন না যেন। তাতে কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে দেওয়ার মতো কাজ হয়ে যাবে।

২. ইচ্ছে হলে ফোনও করতে পারেন

বয়ফ্রেন্ড কি দু’দিন কথা বলছেন না? একটা কাজ করুন, ফ্রি থাকবেন যখন, তখন আপনিই একটা কল করে ফেলুন। আর সে ফোন রিসিভ করলে আগে সরি দিয়ে শুরু করুন। দেখবেন, বরফ গলে জল হতে সময় লাগবে না। এবার মনের কথা খুলে বলুন। সম্ভব হলে চুটিয়ে কিছুক্ষণ আড্ডা মারুন। বয়ফ্রেন্ডের মনের কথাও মন দিয়ে শুনুন। দেখবেন, মনের কালো মেঘ কেটে যেতে সময় লাগবে না।

আরও পড়ুন: সম্পর্কের জটিলতা থেকে প্রেমে ব্যর্থতা, সম্পর্ক নিয়ে নানা প্রশ্ন ও তার উত্তর

৩. আগ বাড়িয়ে সরি বলুন

ভাবছেন, আপনি কেন সরি বলবেন? আচ্ছা, ভালবাসতে পারেন, একসঙ্গে জীবন কাটানোর স্বপ্ন দেখতে পারেন, কিন্তু সরি বলার সময় যত ইগো! এটা তো ঠিক কথা নয়। তাই সব কিছু ভুলে সরি বলে ফেলুন। সম্ভব হলে এক বাক্স চকোলেট দিয়ে সরি বলুন, তাতে সম্পর্কের মিষ্টতা বাড়বে বই কী! আর ঝগড়ার পরে হঠাৎ করে এমন সারপ্রাইজ পেলে আপনার ভালবাসার মানুষটিরও যে মন্দ লাগবে না, তা হলফ করে বলতে পারি।

৪. ডিনার ডেটে বেরিয়ে পরুন

love-2
ঝগড়ার কারণে দু’জনেরই মন খারাপ? একটা কাজ করুন। ঝটপট পছন্দের কোনও রেস্তরাঁয় একটা টেবিল বুক করে ফেলুন। সম্ভব হলে ক্যান্ডল লাইট ডিনারের ব্যবস্থা করবেন। মোমবাতির হলকা আলোয় জমে উঠবে রোম্যান্স। আর এমন রোম্যান্টিক ছোঁওয়াতেই তো দুখি মন চাঙ্গা হয়ে উঠবে। তা ছাড়া একসঙ্গে কিছুক্ষণ সময় কাটালে ভুল বোঝাবুঝি মিটে যেতেও দেখবেন সময় লাগবে না।

আরও পড়ুন: টলমল সম্পর্ক জোড়া লাগানোর টিপস! ভাঙতে তো সকলেই পারে, বরং জুড়ে দেখান!

৫. রাত গয়ি, বাত গয়ি

ঝগড়া হয়েছে বলে যে সারা জীবন কথা বলবেন না, এমন তো নয়! তা হলে পুরনো কাসুন্দি ঘেঁটে লাভ কী! বরং সব কিছু ভুলে মন খুলে কথা বলুন। নতুন ভাবে শুরু করুন সম্পর্কটা। কোথায় ভুল হয়েছে সেটা বোঝার চেষ্টা করুন। তাতে আগামী দিনে একই ভুল আর হবে না। আর সবশেষে একে-অপরকে কাছে টেনে নিয়ে চুটিয়ে ভালবাসুন। দেখবেন, বরফ তো গলবেই, ভালবাসাও বাড়বে ষোলো আনা।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!