home / ওয়েলনেস
স্ট্রেস কমাতে স্নানের জলে মেশান এই ক’টি উপকরণ

স্ট্রেস কমাতে স্নানের জলে মেশান এই ক’টি উপকরণ

গরমকালে চাপ-ধকল দূর করতে সবচেয়ে কাজে আসে ঠান্ডা জলে স্নান। সকালে ঘুম থেকে উঠে সারাদিনের মুখোমুখি হতে বা সারাদিন কাজের পর বাড়ি ফিরে এসে সতেজ হতে স্নানের কোনও বিকল্প নেই (add these herbs in bathing)। কিন্তু জানেন কি, আপনার হাতের কাছেই আছে এমন কিছু আয়ুর্বেদিক উপাদান, যা স্নানের জলে মিশিয়ে নিয়ে স্নান করলেই স্ট্রেস কমবে নিমেষে। সঙ্গে ক্লান্তি তো দূর হবেই, ঘামের গন্ধও দূরে পালবে। এত সব উপকার একসঙ্গে পাবেন কীভাবে, তাই ভাবছেন? সবই জানতে পারবেন এই প্রতিবেদনে।

গোলাপ

এক বালতি স্নানের জলে দু’-তিনটে গোলাপ ফুলের পাপড়ি ফেলে মিনিটদুয়েক অপেক্ষা করুন। তারপর সেরে ফেলুন স্নান। প্রতিদিন অফিস থেকে ফিরে এমন গোলাপ জলে স্নান করলে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকবে, বাড়বে সৌন্দর্যও। গোলাপ জল শরীর ঠান্ডা করে। তাই স্নানের পরে শারীরিক এবং মানসিক, দু’ ধরনের স্ট্রেস কমতেই সময় লাগে না। দূর হয় ঘামের গন্ধও।

স্নানের জলে শুধু গোলাপের পাপড়ি মিশিয়ে যেমন গা ধুতে পারেন (add these herbs in bathing), তেমনই তৈরি করে নিতে পারেন একটি রোজ ডিপও। গোটাতিনেক গোলাপ ফুলের পাপড়ি শুকিয়ে নিয়ে নিন। এবার সেই শুকনো পাপড়ি, তিন-চারটে ক্যামোমিল ফুলের পাপড়ি, ২ চামচ গ্রিন টি-র পাতা এবং দু-তিন ফোঁটা যে-কোনও এসেনশিয়াল অয়েল নিয়ে এক টুকরো মলমল কাপড়ে গিঁট বেঁধে পুঁটলি বানিয়ে নিন। এবার সেই পুটলিটা স্নানের জলে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। তারপর এই আয়ুর্বেদিক জলে স্নান করে সতেজ হয়ে যান!

তুলসি

এক বালতি জলে পাঁচ-সাতটা তুলসি পাতা ফেলে মিনিটপনেরো অপেক্ষা করুন। তাতে তুলসি পাতার ভিতরে থাকা নানা উপকারী উপাদানগুলি জলে ভাল করে মিশে যাওয়ার সুযোগ পাবে। তাতে উপকার পাবেন বেশি। নিয়মিত তুলসি পাতা ভেজানো জলে স্নান করলে ত্বকের ভিতরে প্রদাহের মাত্রা কমে, সেই সঙ্গে ত্বকের জেল্লাও বাড়ে।

ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল

স্ট্রেস কমানোর পাশাপাশি ত্বকে নানা সংক্রমণের প্রকোপ কমাতে এবং ত্বকের যত্নে এই তেল বিশেষ ভূমিকা পালন করে। আর যদি ল্যাভেন্ডার তেলের সঙ্গে গোলাপ ফুলের পাপড়ি আর ওটসের গুঁড়ো মেশানো যায়, তা হলে তো কথাই নেই! এক্ষেত্রে এক কাপ ওটস নিয়ে মিহি করে গুঁড়ো করে নিন। তারপর তাতে এক চামচ এপসম নুন, এক মুঠো শুকনো গোলাপ ফুলের পাপড়ি আর কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্ডার তেল মিশিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার সেই মিশ্রণ, স্নানের জলে মিশিয়ে (add these herbs in bathing) প্রায় সঙ্গে-সঙ্গেই স্নান সেরে ফেলুন। আরেক ভাবেও এই মিশ্রণটিকে কাজে লাগানো সম্ভব। সবক’টি উপাদান একটা সুতির কাপড়ে নিয়ে পুঁটলি বানিয়ে তা মিনিটতিনেক এক বালতি জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে। তারপর স্নানের পালা।

মিক্সড এসেনশিয়াল অয়েল

একটা বাটিতে চার ফোঁটা ইউক্যালিপটাস, টি ট্রি এবং লেমন এসেনশিয়াল তেল নিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার মিশ্রণটি থেকে দু চামচ নিয়ে এক বালতি স্নানের জলে মেশান। মিনিটদুয়েক পরে স্নান করুন। নিয়মিত নানা এসেনশিয়াল তেলের এই মিশ্রণটিকে কাজে লাগালে ধকল তো কমবেই, সেই সঙ্গে ত্বকের জেল্লাও বাড়বে। আর এসেনশিয়াল তেলের গন্ধে দেখবেন নিমেষে মন চাঙ্গা হয়ে উঠবে!

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

23 May 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text