Advertisement

রূপচর্চা ও বিউটি টিপস

ফেসিয়াল হেয়ার দূর করতে শেভ করবেন? নাকি করবেন না!

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Sep 15, 2021
ফেসিয়াল হেয়ার দূর করতে শেভ করবেন? নাকি করবেন না!

অবাঞ্ছিত লোমের সমস্যা আমাদের প্রতিটি মহিলার জীবনেই একটা বড় কষ্টের জায়গা। পার্লারে যাও, ব্যথা সহ্য করে ওয়াক্সিং করাও, আবার কিছুদিনের মধ্যেই একই প্রসেস রিপিট করো – মানে, বিষয়টা হল, চিরস্থায়ী কোনও বন্দোবস্ত করা সম্ভব হয়ে ওঠে না। হাতে বা পায়ে যদিও বা ওয়াক্সিং করানো যায়, কিন্তু অনেকেরই মুখেও অবাঞ্ছিত লোমের সমস্যা থাকে এবং অনেক সময়েই তাঁদেরও ফেসিয়াল ওয়াক্সিং-এর যন্ত্রণা ভোগ করতে হয়। (all you need to know about face shaving)

মুখে লোমের সমস্যা কিন্তু নানা কারণে হতে পারে। চিকিৎসা পরিভাষায় একে হিরসুটিজম বলা হয়। এছাড়া আজকাল আমাদের জীবনযাত্রা এমন যে পি সি ও ডি এবং পি সি ও এস-এর মত সমস্যাও বহু মহিলার মধ্যে দেখা যায়। এই সমস্যার কারণেও মুখে হঠাৎ করেই লোম গজাতে শুরু করে। মহিলাদের শরীরে যখন ফিমেল হরমোন কমে গিয়ে মেল হরমোন বেড়ে যেতে থাকে তখন মুখে অবাঞ্ছিত লোমের প্রকোপ বাড়ে।

অনেকেই ওয়াক্সিং করান, আবার কেউ কেউ থ্রেডিং করান এ’সময়ে। কিন্তু এই দুটো পদ্ধতিই খুব যন্ত্রণাদায়ক। তাছাড়া নিজে নিজে এই কাজটা করাও যায় না। সেক্ষেত্রে অনেক মহিলাই মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করতে শেভিং-এর পদ্ধতিটি আপন করে নেন। (all you need to know about face shaving)

via GIPHY

কেন করবেন ফেসিয়াল শেভ

ফেসিয়াল শেভিং শুধুমাত্র মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করে না, এটি এক্সফোলিয়েটরের কাজও করে। মুখের উপরে জমে থাকা মরাকোষ অনায়াসে সরিয়ে দেয়, ফলে আপনার ত্বক বেশ পরিষ্কার ও মসৃণ দেখায়।

মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করার ক্ষেত্রে শেভিং সবচেয়ে ভাল উপায়, কারণ এতে যন্ত্রণা হয় না।

আপনি যখন খুশি, যেখানে খুশি ফেসিয়াল শেভিং করতে পারেন। অন্য কারও সাহায্যেরও প্রয়োজন নেই।

অনেক সময়েই মুখে খুব ছোট ছোট লোম থাকে যা ওয়াক্সিং বা থ্রেডিং-এর সময়ে থেকেই যায়। তবে রেজার দিয়ে শেভ করার সময়ে কিন্ত এগুলোও দূর হয়। (all you need to know about face shaving)

কীভাবে করবেন ফেসিয়াল শেভ

আপনি যদি ভাবেন যে মহিলাদের মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করার জন্য শেভিং করতে বলছি, তার মানে পুরুষরা যেমন প্রতিদিন দাড়ি কাটেন, সেভাবে মহিলাদেরও মুখে শেভ করতে হবে – ব্যপারটা কিন্তু একেবারেই তেমন নয়।

প্রথমে খুব ভাল করে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

এরপর একটা ভেজা তোয়ালে মুখের উপর কিছুক্ষণ রাখুন। এতে লোমের গোড়া নরম হবে।

এবারে অ্যালোভেরা জেল লাগান। যদি অ্যালোভেরা জেলে আপনার অ্যালার্জি থাকে সেক্ষেত্রে ফেস ওয়াশ বা কোনও ময়শ্চারাইজারও লাগাতে পারেন।

এবারে মহিলাদের জন্য যে রেজার পাওয়া যায়, তা দিয়ে শেভ করুন। (all you need to know about face shaving)

শেভ করার পর আরও একবার ভাল করে মুখ ধুয়ে ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন, যে ময়শ্চারাইজারটি লাগাচ্ছেন তাতে যেন লেবুর নির্যাস না থাকে। তাহলে কিন্তু মুখে জ্বালা করতে পারে এবং র‍্যাশ বেরতে পারে।

ফেসিয়াল শেভিং রেজারের রকমফের

আপনি যদি শরীরের অবাঞ্ছিত লোম দূর করার জন্যও শেভ করেন, সেক্ষেত্রে যেমন রেজার ব্যবহার করেন, মুখের ক্ষেত্রে কিন্তু সেই রেজার ব্যবহার করলে হবে না। যেহেতু মুখের ত্বক অনেক বেশি পাতলা হয়, কাজেই কোনও ট্রিমার বা পাতলা ব্লেডের রেজার ব্যবহার করুন। আমরা আমাদের পছন্দের কয়েকটি প্রোডাক্টের উল্লেখ করছি এখানে –

ব্যাটারিচালিত ফেস শেভিং ট্রিমার
ম্যানুয়াল রি-ইউজেবল ফেস শেভিং রেজার

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!