home / রূপচর্চা ও বিউটি টিপস
কলা খাওয়ার পর খোসা ফেলে দেন ? এবার থেকে ফেলে না দিয়ে রূপচর্চায় কাজে লাগান

কলা খাওয়ার পর খোসা ফেলে দেন ? এবার থেকে ফেলে না দিয়ে রূপচর্চায় কাজে লাগান

নিয়মিত খানদুয়েক কলা খেলে পেট পরিষ্কার থাকে, হার্টের ক্ষমতা বাড়ে, এমনকী, ব্লাড প্রেশারও বেঁধে রাখা যায়। তাছাড়াও শরীরের দেখভালে এই ফলটি যে আরও নানা ভাবে কাজে আসে, সে বিষয়ে তো অনেকেই খোঁজ খবর রাখেন। কিন্তু একথা জানেন কি, কলার খোসারও নানা গুণ রয়েছে? বলেন কি, কলার খোসাও শরীরের জন্য উপকারী? আলবাত! তবে শরীরের থেকেও ত্বকের যত্নে যদি কলার খোসাকে কাজে লাগানো যায়, তা হলে আরও বেশি উপকার পাওয়া যায়!

১. দাঁতের যত্নে কাজে আসে

দাঁতে কি হলদে ছোপ পড়েছে? একটা কলার খোসা নিয়ে, তার ভিতরের সাদা অংশটা মিনিটদুয়েক দাঁতে ঘষে নিন। টানা এক সপ্তাহে এইভাবে দাঁতের যত্ন নিলে দেখবেন হলদে ভাব কেটে গেছে। সঙ্গে দাঁতের কোনও ধরনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও দূরে পালাবে। এবার থেকে দুধ সাদা দাঁত পেতে স্কেলিংয়ের পিছনে গুচ্ছের টাকা খরচ না করে বরং কলার খোসা কাজে লাগান। 

২. আঁচিল দূর হবে

কলার খোসা কাজে লাগিয়ে সত্যিই আঁচিল দূর করা যায়? আচ্ছা, বলতে পারেন কীভাবে খোসাটা কাজে লাগাতে হবে? এক্ষেত্রে একটা কলার খোসা নিয়ে তার ভিতরের সাদা অংশটা আঁচিলের উপর মিনিটপাঁচেক ঘষে নিয়ে একটা ব্যান্ডেজের সাহায্যে এক টুকরো খোসা আঁচিলের উপর লাগিয়ে ফেলুন। সারা রাত এই ভাবে রেখে দিয়ে পরের দিন সকালে ব্যান্ডেজটা খুলে ফেলুন। টানা কয়েক মাস এই ভাবে কলার খোসাকে কাজে লাগালে ফল মিলবেই মিলবে।

৩. ব্রণ মিলিয়ে যাবে

মুখের যেখানে যেখানে ব্রণ হয়েছে, সেখানে সেখানে নিয়মিত কলার খোসার সাদা অংশ মিনিটপাঁচেক ঘষতে হবে। টানা এক সপ্তাহ এই ভাবে ত্বকের যত্ন নিলেই ফল মিলবে। সঙ্গে ত্বকের সৌন্দর্যও বাড়বে। কমবে দাগ-ছোপ।

৪. বলিরেখা উধাও হয়ে যাবে

ত্বকের বয়স ধরে রাখতে চান? তা হলে একটা কাজ করুন। কী কাজ? একটা কলার খোসা (Banana Peels) মিক্সিতে ফেলে পেস্ট তৈরি করে নিয়ে তার সঙ্গে একটা ডিমের কুসুম যোগ করে সেই মিশ্রণটি সারা মুখে লাগিয়ে কম করে মিনিটপাঁচেক অপেক্ষা করেন। সময় হলেই মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে বারতিনেক এই ফেসপ্যাকটি মুখে লাগালে বলিরেখা তো কমবেই, সঙ্গে ইলাস্টিসিটি বাড়ার কারণে ত্বকের বয়স কমতে শুরু করবে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই ফেসপ্যাকটি লাগানোর পাশাপাশি যদি নিয়ম করে খানদুয়েক কলা (Banana) খেতে পারেন, তা হলে তো কথাই নেই! 

৫. চুলকানি কমায়

শরীরের কোনও জায়গা চুলকাতে-চুলকাতে কি লাল হয়ে গেছে? তা হলে সেখানে মিনিটপঁচেক কলার খোসার সাদা অংশটা ঘষে নিন। দেখবেন, চুলকানি কমে যাতে সময় লাগবে না। মশার কামড়ের চুলকানি কমাতেও কলার খোসার কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে।

মাথায় রাখুন এই টিপসগুলি

ত্বকের যত্নে কলার খোসা কাজে লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকলে কতগুলি বিষয় মাথায় রাখতে হবে। যেমন ধরুন, কলার খোসা দু’-তিন দিন ফেলে রেখে ব্যবহার করবেন না। বরং কলা ছাড়িয়ে সঙ্গে সঙ্গে খোসাটা যদি ব্যবহার করুন, তাতে বেশি উপকার মিলবে। এক্ষেত্রে আর একটি বিষয় জেনে রাখা জরুরি। তা হল, কলার খোসা ভুলেও ফ্রিজে রাখা উচিত নয়। তাতে খোসার গুণাগুণ নষ্ট হয়ে যায়।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!

23 Aug 2019
good points

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text