বিনোদন

নিশ্চিন্দিপুরের অপু আবার ফিরছে সিনেমার পর্দায়, তবে সৌমিত্র নন, অপু হচ্ছেন অর্জুন চক্রবর্তী

Swaralipi BhattacharyyaSwaralipi Bhattacharyya  |  Aug 5, 2019
নিশ্চিন্দিপুরের অপু আবার ফিরছে সিনেমার পর্দায়, তবে সৌমিত্র নন, অপু হচ্ছেন অর্জুন চক্রবর্তী

অপুকে (Apu) তো নিশ্চয়ই মনে আছে আপনার। হ্যাঁ, অপূর্ব রায়। কানেক্ট করতে পারছেন? সেই বিভূতিভূষণের উপন্যাসের অপু? কথাই বলা হচ্ছে। অর্থাৎ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের (Soumitra Chatterjee) হাত ধরে যাঁর সঙ্গে দর্শকের পরিচয় করিয়েছিলেন স্বয়ং সত্যজিৎ রায়। সেই অপুই যদি আবার ফিরে আসে ছেলের হাত ধরে? কেমন হবে বলুন তো? ঠিক এই ভাবনা থেকেই টলিউডে (Tollywood) ছবি তৈরি করছেন পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্র, ছবির নাম ‘অভিযাত্রিক’। ১৯৫৯ সালে মুক্তি পেয়েছিল সত্যজিৎ রায়ের অপুর সংসার। তার ঠিক ৬০ বছর পর আবার পর্দায় ফিরছে অপু।

বড় পর্দার অপু কে হবেন, প্রথমে তা নিয়ে সাসপেন্স তৈরি করেছিলেন পরিচালক। বেশ কিছুদিন পরে অপু হিসেবে বাংলাদেশের অভিনেতা আরিফিন শুভর নাম ঘোষণা করেন তিনি। কিন্তু বিভিন্ন কারণে প্রথমে রাজি হলেও পরে আরিফিনের পক্ষে ছবিটি করা সম্ভব হয়নি। ফের শুরু হয় অপু খোঁজার পালা। অবশেষে মিলেছে নতুন অপু। আর তিনি হলে অর্জুন চক্রবর্তী (Arjun Chakrabarty)। টেলিভিশন ধারাবাহিক দিয়ে কেরিয়ার শুরু করেন অর্জুন। পরে শুরু করে সিনে পর্দার জার্নি। কিন্তু ‘অভিযাত্রিক’-এর মতো পিরিয়ড ফিল্ম (Film), তাঁর কেরিয়ারে প্রথম। কী ভাবে সুযোগ এল? অর্জুন বললেন, “আমার নামটা প্রথম বিক্রমদা (ঘোষ) সাজেস্ট করেছিলেন। ওঁর মনে হয়েছিল আমার নামটা সাজেস্ট করা যায়। আই অ্যাম থ্যাঙ্ক ফুল টু হিম। সেসময় অরিন্দমদার (শীল) সঙ্গে একটা শুট করছিলাম। তার পর আমার নম্বরটা পাস করা হয়েছিল। ডিরেক্টর ফোন করেছিলেন। স্ক্রিপ্ট শুনেছি, আমার ভাল লেগেছে।” 

অপুর সঙ্গে ছেলে কাজলের জার্নি নিয়ে গল্প বেঁধেছেন শুভ্রজিৎ। পুরনো স্বাদ বজায় রাখতে নাকি সাদা-কালো ফরম্যাটেই গোটা ছবির শুটিং হবে। কিন্তু বাঙালি দর্শক পর্দার অপু হিসেবে সৌমিত্র চট্টোপাধ্য়ায়কেই দেখতে অভ্যস্ত। সেক্ষেত্রে অর্জুনের কাজটা একটু বেশিই চ্যালেঞ্জিং হয়ে যাবে না? হেসে বললেন, “আমি আমার মতো করে করার চেষ্টা করব। অপুর সঙ্গে সত্যজিৎ রায়, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, শর্মিলা ঠাকুরের মতো অনেকেরই নাম জড়িয়ে রয়েছে! যদিও নাম করতে গেলে শেষ হবে না। তবে প্রথমে ওঁদের নামই মনে পড়ে। হয়তো তুলনা একটা হবেই। অর্জুন ঠিক সৌমিত্রর মতো পারল না, বলবেন হয়তো কেউ। কিন্তু আমি বরাবরই যেটা বলেছি, সব ছবির ক্ষেত্রেই ডিরেক্টরকে ফলো করি। তিনি কী চাইছেন, সেটা আমার কাছে খুব ইমপর্ট্যান্ট। এই কাজটাও সেভাবেই করব।”

অপু ট্রিলজির শেষ ছবি অপুর সংসার-এ ছেলে কাজলকে কাঁধে তুলে বেরিয়ে গিয়েছিল সে। ফিরছে সেই অপু। ২০১৯-এর দর্শক এই ছবি দেখবেন বটে, তবে অপুর বয়স কিন্তু বাড়েনি! অপুকে বর্তমান যুগের মতো নয়, সেই অতীতের রঙেই দেখাবেন পরিচালক। গরম, বর্ষা, শরৎ- এই তিন ঋতুকে ছবিতে রাখতে চান পরিচালক। সেই মতো হবে শুটিং। অর্জুন জানালেন, কলকাতাতেই অনেকটা অংশের শুটিং হবে। তার পর বোলপুর, টাকি, বারাণসীতেও যাবে টিম। মহালয়ার পর থেকেই শুটিং ফ্লোরে যাবে সিনে পর্দার নতুন অপু। POPxo Bangla-র তরফ থেকে শুভেচ্ছা গোটা ইউনিটকে। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!