home / ওয়েলনেস
সুস্থ থাকতে সারা দিনে পনের মিনিট চুপ থাকুন

সুস্থ থাকতে সারা দিনে পনের মিনিট চুপ থাকুন

খেয়াল করে দেখলে বুঝবেন সকালে ঘুম ভাঙার পর থেকে রাত্রে ঘুমতে যাওয়ার আগে পর্যন্ত আমাদের ঘিরে রাখে নানান শব্দ। কখনও টিভির আওয়াজ, তো কখনও মোবাইলের নোটিফিকেশন। সেই সঙ্গে গাড়ির আওয়াজ এবং লোকজনের চিৎকার চেঁচামেচি তো রয়েছেই। তাই এমন পরিস্থিতিতে শরীরকে সুস্থ রাখতে (be in silence for 15 minutes everyday) নিয়মিত ১০-১৫ মিনিট চুপ থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা। কারণ বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে শব্দ দানবের হাত থেকে শরীরকে বাঁচাতে নীরবতার কোনও বিকল্প নেই বললেই চলে।

আসলে নিয়মিত কিছু সময় চুপ থাকলে এবং শব্দহীন পরিবেশে সময় কাটালে আমাদের শরীর এবং মস্তিষ্কের ভিতরে বেশ কিছু ইতিবাচক পরিবর্তন হতে শুরু করে, যার প্রভাবে একাধিক শারীরিক উপকার পাওয়া যায়

ব্রেন সেলের গ্রোথ রেট বাড়ে

চুপ করে কয়েক মিনিট বসে থাকলে যে শুধু স্মৃতিশক্তির উন্নতি ঘটে, এমন নয়, সেই সঙ্গে আরও বেশ কিছু উপকার পাওয়া যায়। ২০১৩ সালে ব্রেন স্ট্রাকচার অ্যান্ড ফাংশন পত্রিকায় প্রকাশিত এক রিপোর্ট অনুসারে নিয়মিত কিছু সময় শব্দ দূষণ থেকে নিজেকে সরিয়ে রাখলে ব্রেন সেলের গ্রোথ রেট বাড়তে শুরু করে। যার ফলে ব্রেন পাওয়ার এতটাই বেড়ে যায় যে লার্নিং এবিলিটির যেমন উন্নতি ঘটে, তেমনি বুদ্ধির ধারও বাড়ে।

ইনসমনিয়া থেকে মুক্তি

একেবারে ঠিক শুনেছেন। বাস্তবিকই কিছু সময় শান্ত পরিবেশে কাটালে অনিদ্রার সমস্যা দূর হতে সময় লাগে না। ২০১৫ সালে হওয়া এক গবেষণায় দেখা গেছে প্রতিদিন কয়েক মিনিট শান্ত পরিবেশে এক মনে মেডিটেশন করলে আমাদের শরীর এবং মস্তিষ্কের ভিতরে এমন কিছু পরিবর্তন হতে শুরু করে, যার প্রভাবে ইনসমনিয়ার মতো রোগের প্রকোপ কমতে সময় লাগে না।

সেই সঙ্গে মন স্থির হয়। ফলে খারাপ চিন্তা ধারে কাছেও ঘেঁষতে পারে না। আর এমনটা যখন হয়, তখন জীবনের প্রতিটা মুহূর্ত আনন্দে ভরে উঠতে সময় লাগে না। তাই এবার বুঝেছেন তো চুপ থাকলে কত উপকার পাওয়া যায়!

মস্তিষ্ক উন্নত হয়

২০১১ সালে ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সে প্রকাশিক একটি গবেষণাপত্র অনুসারে নিয়মিত ১৫-২০ মিনিট চুপ থাকলে এবং শান্ত পরিবেশে সময় কাটালে ব্রেনের হিপোক্যাম্পাস নামক অংশটির ক্ষমতা বৃদ্ধি পেতে শুরু করে, যে কারণে স্মৃতিশক্তির উন্নতি ঘটতে সময় লাগে না।

একই গবেষণায় এমনটাও দাবি করা হয়েছে যে প্রতিদিন একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ যদি শান্ত পরিবেশ উপভোগ করতে করতে ৪০ মিনিট একটু হাঁটাহাটি করে, তাহলেও নাকি সমান উপকার পাওয়া যায়। তাই তো বলি, শব্দ যেখানে প্রতিদিন আমাদের একটু একটু করে মেরে ফেলছে, সেখানে মস্তিষ্ককে সুস্থ রাখতে (be in silence for 15 minutes everyday) নীরবতা পালনের প্রয়োজন যে বেড়েছে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

স্ট্রেসমুক্তি ঘটে

নিয়মিত ১০-১৫ মিনিট চুপ থাকলে এবং শব্দহীন পরিবেশে সময় কাটাতে শুরু করলে স্ট্রেস হরমোনের প্রভাব কমতে শুরু করে। সেই সঙ্গে রক্তচাপও স্বাভাবিক মাত্রায় চলে আসে। ফলে শরীরের কোনও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা আর থাকে না। তাই এবার থেকে যখনই কোনও কারণে দুশ্চিন্তা হবে, তখনই শান্ত পরিবেশে কিছুটা সময় কাটানোর চেষ্টা করবেন। দেখবেন, উপকার মিলবে একেবারে হাতে-নাতে!

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

18 Apr 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text