home / রূপচর্চা ও বিউটি টিপস
ত্বকের যত্নে ঠিক কতটা উপকারী অ্যাভোকাডো অয়েল in bengali

ত্বকের যত্নে ঠিক কতটা উপকারী অ্যাভোকাডো অয়েল

শরীর সুস্থ রাখতেই হোক বা ত্বকের যত্নে, প্রাকৃতিক উপায় অবলম্বন করি আমরা অনেকেই। অনেকেই যেমন অরগানিক প্রোডাক্টের উপরে ভরসা করেন, তেমনই অনেকেই আছেন যারা এখনও পর্যন্ত ঠাকুমা-দিদিমার বলে যাওয়া ঘরোয়া উপায়ের (beauty benefits of avocado oil) উপরে চোখ বন্ধ করে ভরসা করেন, ত্বকের যত্ন নেওয়ার জন্য। আসলে প্রকৃতির থেকে বড় সমাধান বোধয় আর কারও কাছেই নেই। প্রকৃতিরই এক অমুল্য সম্পদ, অ্যাভোকাডো অয়েল সম্পর্কে আজ আমরা আলোচনা করব। ঠিক কী কী কারণে অ্যাভোকাডো অয়েল আপনি লাগাতে পারেন, ত্বকের যত্নে এই তেলটি কিভাবে ব্যবহার করবেন – মোটামুটি সব তথ্যই দেওয়ার চেষ্টা করব এই প্রতিবেদনে।

ত্বকের যত্নে অ্যাভোকাডো অয়েলের উপকারিতা

অনেকেই অ্যাভোকাডো অয়েলের বিষয়ে নানা ধারণা পোষণ করেন। কেউ বলেন এটি এসেনশিয়াল অয়েল আবার কেউ বলেন এটি খাবার তেল। কিন্তু এর কোনওটিই পুরোপুরি সত্য নয়। অ্যাভোকাডো (beauty benefits of avocado oil) ফলটি আপনি খেতেই পারেন, তাতে আপনার স্বাস্থ্যের উন্নতিই হবে; তা বলে অ্যাভোকাডো অয়েল ভুল করেও খেয়ে ফেলবেন না বা রান্নায় দেবেন না। এটি একটি ক্যারিয়ার অয়েল, যা অন্য তেলের সঙ্গে মিশিয়ে ব্যবহার করতে হয়। ত্বকের যত্নে ঠিক কী কী ভাবে এই তেল সাহায্য করে, চলুন জেনে নেওয়া যাক –

১। যাঁদের ত্বক খুব সংবেদনশীল এবং একটুতেই অ্যালার্জি বা চুলকানির মত সমস্যা হয়, তাঁদের জন্য এই তেলটি দারুণ উপকারী। যেহেতু এতে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল উপাদান রয়েছে, কাজেই ত্বকের যে-কোনও রকম র‍্যাশ বা চুলকানি দূর করতে অ্যাভোকাডো অয়েল বিশেষ উপকারী।

২। সূর্যের আলট্রাভায়োলেট রশ্মি আমাদের ত্বক ও চুলের জন্য কতটা ক্ষতিকর তা তো আমরা সবাই জানি। তবে ভাল বিষয় হল, অ্যাভোকাডো অয়েলে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা এই এই রশ্মি দ্বারা হওয়া ক্ষতি থেকে ত্বক রক্ষা করতে পারে। বাইরে বেরনোর আগে কয়েক ফোঁটা অ্যাভোকাডো অয়েল  (beauty benefits of avocado oil) মুখে ও শরীরের অন্যান্য খোলা অংশে লাগিয়ে নিন। এতে একটা হাল্কা স্তর তৈরি হবে এবং সূর্যের ক্ষতিকর আলট্রাভায়োলেট রশ্মি থেকে আমাদের ত্বক রক্ষা পাবে।

৩। শীতকালে এমনিতেই ত্বক বড্ড রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যায়। নানা রকম ময়শ্চারাইজার বা ক্রিম লাগিয়েও অনেক সময়েই ত্বকের এই শুষ্কভাব কিছুতেই যায় না। আর যদি আপনার ত্বক শুষ্ক হয়, সেক্ষেত্রে তো সমস্যা আরও অনেক বেশি। এই সমস্যার সমাধানে কিন্তু অ্যাভোকাডো অয়েলের ভুমিকা অনেক। যেহেতু এই তেলটি বেশ ঘন, কাজেই ত্বকের গভীরে গিয়ে তা আর্দ্র রাখে এবং বার বার ময়শ্চারাইজার লাগানোর দরকার পড়ে না।

ত্বকের যত্নে কিভাবে ব্যবহার করবেন অ্যাভোকাডো অয়েল

ছবি – পেক্সেলস ডট কম

একটি পাকা অ্যাভোকাডো নিয়ে ছোট ছোট টুকরো করে নিন এবং আভোকাডো অয়েলের (beauty benefits of avocado oil) মধ্যে কিছুক্ষণ ডুবিয়ে রেখে দিন। এবারে একটি চামচ বা স্প্যাচুলার সাহায্যে টুকরো করে রাখা অ্যাভোকাডো চটকে নিন। ভাল করে মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করে ফেলুন এবং মুখে, গলায় ও ঘাড়ে লাগিয়ে নিন। মিনিট কুড়ি পর উষ্ণ জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে তিনবার এই প্যাকটি লাগিয়ে দেখুন, কিছুদিনের মধ্যেই ত্বক হয়ে উঠবে আর্দ্র ও কোমল।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

27 Nov 2020

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text