Advertisement

Care

চুল পড়া বন্ধ থেকে মাথায় রক্তসঞ্চালন ঠিক করা – ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েলের উপকারিতা অনেক

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Sep 8, 2020
চুল পড়া বন্ধ থেকে মাথায় রক্তসঞ্চালন ঠিক করা – ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েলের উপকারিতা অনেক

Advertisement

আমরা অনেকেই ঘর-বাড়ি সুগন্ধময় করে তোলার জন্য অয়েল ডিফিউজার ব্যবহার করি আর বেশিরভাগ সময়েই তাতে এসেনশিয়াল অয়েল হিসেবে ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করি।  অনেকেই মেডিটেশনের সময়েও ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েলের কয়েক ফোঁটা হাতে মেখে তার পরে মেডিটেশনে বসেন। তবে শুধু স্ট্রেস কমাতে বা সুগন্ধি হিসেবেই না, ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল চুলের যত্নেও (beauty-benefits-of-lavender-essential-oil-for-hair) ব্যবহার করা হয়। চলুন দেখে নেওয়া যাক চুলের যত্নে ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েলের ভুমিকা কী।

চুলের যত্নে ল্যাভেন্ডার অয়েলের উপকারিতা

১। ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল চুল ঘন ও মজবুত করে তোলে। যাঁদের অতিরিক্ত চুল ঝরছে, তাঁরা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল দিয়ে মাথায় মাসাজ করে দেখতে পারেন, চুল ঝরা কমবে।

২। অনেকেই চুলে নানারকম স্টাইলিং টুল ও রাসায়নিক ব্যবহার করেন। কখনও স্ট্রেটনিং, কখনও কার্ল আবার কখনও বা নানা রঙে চুল রাঙানো। কিন্তু এতে চুল ভিতর থেকে দুর্বল হয়ে পড়ে এবং চুলের নানা সমস্যা দেখা দেয়। ড্যামেজ চুল মেরামত করতে ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল (beauty-benefits-of-lavender-essential-oil-for-hair) ব্যবহার করতে পারেন।

কীভাবে চুলের যত্নে ল্যাভেন্ডার অয়েল ব্যবহার করবেন

১। আপনি নিশ্চয়ই চুলে তেল মালিশ করেন? নারকেল তেল বা অন্য যে তেলই মালিশ করুন না কেন, তার সঙ্গে কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে মালিশ করুন। এতে মাথায় রক্তসঞ্চালন ভাল হয় এবং অনিদ্রারোগ থাকলে তা দূর হয়। স্ট্রেস দূর হলে এবং রক্তসঞ্চালন সঠিকভাবে হলে চুলও মুজবুত হয় ও কম ভাঙে।

২। শ্যাম্পুর পর হেয়ার সিরাম হিসেবে চুলে ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল (beauty-benefits-of-lavender-essential-oil-for-hair) লাগাতে পারেন। প্রয়োজনে বাড়িতেই ডি আই ওয়াই হেয়ার সিরাম তৈরি করে নিন। একটি ছোট স্প্রে বোতলে জোজোবা অয়েল, গ্রেপসিড অয়েল, ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল, ক্যস্টর অয়েল, রোজমেরি অয়েল ও থাইম অয়েল নিয়ে মিশিয়ে নিন। শ্যাম্পু করার পর বোতলটি ভাল করে ঝাঁকিয়ে চুলে আপনার চুলে স্প্রে করে নিন। একটু দূর থেকে করবেন আর চুলের গোড়ায় বা মাথার তালুতে স্প্রে করবেন না। এরপর চুল আঁচড়ে নিন! হেয়ার সিরামটি এমন কোথাও রাখুন যেখানে সরাসরি সূর্যের আলো লাগে না।

মনে রাখুন কিছু কথা

১। সরাসরি কখনও ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল চুলে লাগাবেন না। শুধু ল্যাভেন্ডারই নয়, কোনও এসেনশিয়াল অয়েলই সরাসরি  চুলে লাগানো উচিত নয়। জোজোবা অয়েল বা অলিভ অয়েল বা নারকেল তেলের সঙ্গে মিশিয়ে তারপরেই ব্যবহার করুন। তা না হলে মাথার তালুতে এবং চুলের গোড়ায় জ্বালা করতে পারে।

২। যদি ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল লাগানোর পর চুলকানি বা র‍্যাশ অথবা জ্বালা করে, তাহলে বুঝতে হবে ল্যাভেন্ডারে আপনার অ্যালার্জি রয়েছে। এমন পরিস্থিতি হলে দ্বিতীয়বার আর এটি ব্যবহার না করাই ভাল।

৩। অনেকেই বডি মাসাজ করেন ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েলের সাহায্যে। ল্যাভেন্ডারে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা মন শান্ত করতে সাহায্য করে। অতিরিক্ত ল্যাভেন্ডার অয়েল ব্যবহার করলে ঝিমুনির মত সমস্যা দেখা দিতে পারে।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!