Advertisement

Diet

সাত্ত্বিক আহার, জেনে নিন এই নতুন ধরনের ডায়েট প্ল্যানের গুণাগুণ

Parama SenParama Sen  |  Oct 9, 2019
সাত্ত্বিক আহার, জেনে নিন এই নতুন ধরনের ডায়েট প্ল্যানের গুণাগুণ

বিশ্বাস করুন, এই সাত্ত্বিকের সঙ্গে পুজোআচ্চা, ধূপধুনোর গন্ধর কোনও যোগাযোগ নেই! এই ডায়েট আজকাল খুবই জনপ্রিয় হয়েছে। ভেজেটেরিয়ান এবং ভেগানের মাঝামাঝি ডায়েট হল এই সাত্ত্বিক ডায়েট বা যোগা ডায়েট (Yoga Diet)। এতে খানিকটা জৈনগন্ধী ব্যাপারস্যাপারও আছে। মানে, এই ধরনের ডায়েটে পেঁয়াজ-রসুন চলে না! এই সাত্ত্বিক (Sattvic) ডায়েটের গুণাগুণ দেখে অবাক হয়ে গিয়েই বিশেষজ্ঞরা আজকাল শরীর-মনের ডিটক্সিফিকেশনের জন্য এই ডায়েট মেনে চলতে পরামর্শ দিচ্ছেন। চলুন, আজ এই সাত্ত্বিক ডায়েট সম্বন্ধে কিছু জেনে নেওয়া যাক…

১. সাত্ত্বিক ডায়েট কাকে বলে?

এই ধরনের ডায়েট প্ল্যান ল্যাক্টো-ভেজেটেরিয়ান নিয়ম মেনে চলে। মানে, এতে সবজির সঙ্গে দুগ্ধজাতীয় খাবারের সঠিক মিশ্রণও থাকে। তবে পেঁয়াজ-রসুন, মানে, যে সবজিগুলি খেলে শরীর গরম হওয়ার আশঙ্কা থাকে, সেগুলি এই ডায়েটের বাইরেই রাখা হয়। সত্ত্ব গুণ আছে, এমন সবজি এবং দুধজাতীয় খাবারই থাকতে পারে এই প্ল্যানে। এই ধরনের ডায়েটে সীমিত আহারের পরামর্শ দেওয়া হয়, প্রাকৃতিক উপায়ে ফলানো সবজি খেতে বলা হয়, যাতে শরীর ও মন দুই-ই সুস্থ থাকে।

২. সাত্ত্বিক ডায়েটের গুণাগুণ

Pixabay

১. সাত্ত্বিক ডায়েট মেনে চলতে চাইলে আপনাকে দিনের শুরুটা গরম জলে লেবু আর মধু দিয়েই করতে হবে। কারণ, এই পানীয়টি শরীরের সঙ্গে-সঙ্গে মনকেও ডিটক্সিফাই করতে সাহায্য করে।

২. এই ডায়েটে সীমিত আহারের পরামর্শ দেওয়া হয়। তাই যাঁরা ওজন কম করতে চাইছেন, তাঁরা এই ধরনের ডায়েট মেনে চললে সুফল পাবেন। আর যেহেতু এই ডায়েটে সব ন্যাচারাল খাবারদাবার রাখা হয়, তাই ওজন কমার সঙ্গে-সঙ্গে এই ধরনের ডায়েট আপনাকে ভিতর থেকে সুস্থ ও সজীবও করে তুলবে।

৩. এই ডায়েটে থাকে সবুজ শাকপাতা, নানা ধরনের ফল, অঙ্কুরিত ছোলা-মুগ-মটর ইত্যাদি। মাছ, মাংস, ডিম, পেঁয়াজ, রসুন ইত্যাদি একেবারেই থাকে না। ফলে এই ডায়েট আমাদের পাচনতন্ত্রের উপরও অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করে না। ফলে শরীর সুস্থ থাকে।

৪. ঘি এবং নারকেল তেল, এই দু’টি উপাদান সাত্ত্বিক আহারের অন্যতম প্রধান স্তম্ভ। এই দুটি খাবারকে সুস্বাদু করে, তাই নয়, মস্তিষ্কের ক্ষমতাও বাড়িয়ে দিতে সাহায্য করে।

 

৩. সাত্ত্বিক ডায়েটের নিয়মাবলী

Pixabay

১. খাবার তৈরি করে রাখা যাবে না। খাওয়ার আগে বানিয়ে, তখনই খেয়ে শেষ করে ফেলতে হবে! বাড়তি খাবার ফ্রিজেও রাখা যাবে না। সুতরাং, পরিমাণ মেপে খাবার না বানালে অপচয়ই হবে।

২. প্রতিদিন একই সময়ে খেতে হবে। যদি মনে করেন, সকাল ন’টায় ব্রেকফাস্ট, একটায় লাঞ্চ. চারটের সময় স্ন্য়াক্স এবং আটটায় ডিনার করবেন, তা হলে প্রতিদিন কাঁটায়-কাঁটায় সেই সময় ধরেই খেতে হবে!

৩. খাবারের সব উপাদান অরগ্যানিক হওয়া চাই। আর্টিফিশিয়াল প্রিজারভেটিভ দেওয়া কোনও উপাদান ব্যবহার করা যাবে না।

৪. যোগাসন, ধ্যান এবং এক্সারসাইজ করার অন্তত ঘণ্টাদুয়েক আগে খাবার খেয়ে ফেলতে হবে।

৫. সপ্তাহে অন্তত একদিন উপোস করা চাই। তবে একেবারে নিরম্বু উপবাস নয়। শুধু ফলের রস খেতে পারেন কিংবা শুধু জল খেয়েই কাটিয়ে দিতে পারেন একটা দিন।

৬. চা, কফি, অ্যালকোহল, পান, সুপুরি, কোনও রকমের মুখশুদ্ধি খাওয়া একেবারেই চলবে না। 

৪. সাত্ত্বিক ডায়েট মেনে চলতে চাইলে যে খাবারগুলি খেতে পারেন…

Pixabay

নীচে দেওয়া খাবারগুলি সাত্ত্বিক ডায়েটের অঙ্গ হয়তে পারে…

  • স্বাভাবিকভাবে পাকানো যে-কোনও ফল।
  • পেঁয়াজ-রসুন ছাড়া যে-কোনও শাকপাতা।
  • ভাত, ওটস, গম।
  • দুধ, ঘি, দই, ছানা, পনির, ক্রিম।
  • তিল তেল, নারকেল তেল, অলিভ অয়েল, সানফ্লাওয়ার অয়েল।
  • নুন ছাড়া বাদাম এবং তিল-তিসির বীজ।
  • নানা ফ্লেভারের হার্বাল টি, মধু-লেবুর জল, বিট নুন।
  • দারচিনি, এলাচ, পুদিনা, তুলসি, মৌরি, হলুদ, আদা, জিরে।
  • কল বের করা ছোলা, মুগ, মটর।
  • খাবার যতটা সম্ভব কম তেলে রান্না করতে হবে। সেদ্ধ খেতে পারলে আরও ভাল হয়। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty – POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়…