রূপচর্চা ও বিউটি টিপস

প্রতিদিন টোনার ব্যবহার করলে ঠিক কী কী হতে পারে, জেনে নিন

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Jul 23, 2020
প্রতিদিন টোনার ব্যবহার করলে ঠিক কী কী হতে পারে, জেনে নিন

নানাভাবে রূপচর্চা করার পরও অনেক সময় দেখা যায় ত্বকে সেই জেল্লাটা কিছুতেই আসে না। তার একমাত্র কারণ হল আপনার ত্বক গভীর থেকে পরিষ্কার হচ্ছে না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আমরা বিউটি রুটিন মেনে চলার সময়ে একটা প্রোডাক্ট এড়িয়ে যাই বা লাগাতে ভুলে যাই – টোনার! টোনার অনেকেই হয়ত ব্যবহার (benefits of using toner) করেন, তবে নিয়মিত ব্যবহার করেন না বা নিয়ম মেনে ব্যবহার করেন না। আর ঠিক সে’কারণেই আজকের এই প্রতিবেদন।

টোনার ব্যবহার করবেন কেন

শোনা যায় প্রাচীন মিশর সুন্দরী ক্লিওপেট্রার কোমল ত্বকের রহস্য নাকি ছিল টোনার! আসলে যারা খুব বেশি মেকআপ করেন অথবা নানা ধরণের কসমেটিক ব্যবহার করেন, তাঁদের কিন্তু প্রতিদিন টোনার ব্যবহার করা উচিত। যতই আপনি মেকআপ রিমুভার, ক্লেনজিং মিল্ক বা ফেস ওয়াশ দিয়ে মুখ পরিস্কার করুন না কেন, ত্বকের একদম গভীরে গিয়ে এর কোনওটাই পরিষ্কার করে না , যা টোনার করতে পারে।  এছাড়াও টোনার ব্যবহারের বেশ আরও অনেক উপকারিতা (benefits of using toner) রয়েছে –

১। টোনার ত্বক ফ্রেশ রাখে

যাদের ত্বক খুব বেশি তৈলাক্ত, তাঁদের মুখে ময়লা জমার আশঙ্কা তত বেশি। এক্ষেত্রে টোনার কিন্তু দারুন কাজ দেয়। ত্বক পরিস্কার করে শ্বাস নিতে সাহায্য করে এই প্রোডাক্টটি।

২। ত্বকের পি এইচ ব্যালান্স সঠিক রাখে

আমাদের ত্বক এমনিতে অ্যাসিডিক। ০ থেকে ১৪র স্কেলে মাপলে আমাদের ত্বকে পিএইচ মাত্রা হওয়া উচিত ৫ থেকে ৬ এর মধ্যে। নানা কারণে বিশেষ করে অ্যালকালাইন কোনও প্রোডাক্ট ব্যবহার করলে সেই মাত্রা বেড়ে বা কমে যেতে পারে। টোনার সেই মাত্রা আবার সঠিক স্থানে ফিরিয়ে নিয়ে আসে।

৩। ইনগ্রোন হেয়ার হতে দেয় না

মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করতেও সাহায্য করে টোনার

মোটামুটি সবারই ফেসিয়াল হেয়ার রয়েছে। তবে কারও কারও গ্রোথ বেশ বেশি এবং লোমকূপের ভিতরেও অবাঞ্ছিত ফেসিয়াল হেয়ার তৈরি হয়ে যায় যা কিছুতেই দূর হয় না। তবে নিয়মিত টোনার ব্যবহার করলে কিন্তু এই সমস্যা দূর হয়। কারন, টোনারে থাকে গ্লাইক্লোলিক অ্যাসিড ও অন্যান্য আলফা হাইড্রক্সি অ্যাসিড। এই অ্যাসিড ইনগ্রোন চুলের বৃদ্ধি বন্ধ করে দেয়।

৪। লোমকূপ সঙ্কুচিত করে

সামান্য টোনার তুলোয় লাগিয়ে মুখ পরিষ্কার করলে যে তা শুধু ত্বকের গভীর থেকে ময়লা টেনে বার করে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়াতে সাহায্য করে তা নয়, লোমকূপ সঙ্কুচিত করতেও সাহায্য করে। লোমকূপ বড় থাকলে তাতে ধুলো-ময়লা ও নানা প্রসাধনী আটকে গিয়ে ত্বকের নানা সমস্যা যেমন ব্রণ, অ্যাকনে, র‍্যাশ ইত্যাদি হতে পারে। কিন্তু নিয়মিত টোনার ব্যবহারে যেহেতু লোমকূপ সঙ্কুচিত হয়ে যায়, কাজেই এই ধরনের কোনও সমস্যা দেখা দেয় না।

৫। ত্বকের আর্দ্রতা বাড়ায়

টোনার কিন্তু ত্বকে ময়শ্চারাইজার হিসেবেও দারুন কাজে দেয়। কিছু-কিছু টোনার কাজ করে হিউমিকট্যান্ট হিসেবে। ফলে এই জাতীয় টোনার অন্যান্য কাজের সঙ্গে সঙ্গে ত্বকে আর্দ্রতা বাড়ায়।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!