Advertisement

Perfumes

সারাদিন সুগন্ধে মেতে থাকতে রইল বাছাই করা ১৫টি ডিওডোরেন্টের হদিশ (Best Deodorant For Women)

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Jan 9, 2020
সারাদিন সুগন্ধে মেতে থাকতে রইল বাছাই করা ১৫টি ডিওডোরেন্টের হদিশ (Best Deodorant For Women)

সময়টা শীতকাল হোক বা গ্রীষ্ম অথবা বর্ষা – সারাদিন সৌরভে মেতে থাকতে আমাদের সবারই ভাল লাগে। বাড়ি থেকে বেরনোর আগে, স্নানের পরে, এমনকি রাতে শুতে যাওয়ার আগেও অনেকেই পারফিউম বা ডিওডোরেন্ট মাখেন। তবে পারফিউম আর ডিওডোরেন্টের মধ্যে কিন্তু বিস্তর ফারাক! আসল ফারাকটা হল পারফিউম পোশাকের উপরে অথবা শরীরের পালস পয়েন্টগুলোতে লাগানো হয় আর ডিওডোরেন্ট শরীরেই লাগাতে হয়, তবে যেখানে বেশি ঘাম হয় সেখানে।

বাজারে নানা রকমের নানা দামের নানা সুগন্ধের ডিওডোরেন্ট পাওয়া যায় (Best Deodorants For Women In India), তবে কোন ডিওডোরেন্টটা আপনার জন্য সঠিক, সে বিষয়ে ভালভাবে জেনে তবেই কিন্তু এই সুগন্ধি কেনাটা ভাল। কোনও ডিওডোরেন্ট শুধুই সুগন্ধের জন্য ব্যবহার করা হয়, আবার কোনোটিতে রয়েছে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল প্রপারটিস তো কোনওটি ত্বকের কোনও ক্ষতি না করেই সারাদিন সৌরভে মাতিয়ে রাখে। আমরা আজ মহিলাদের জন্য বাছাই করা ১৫টি ডিওডোরেন্টের ব্যাপারে আলোচনা করব (Best Deodorant For Women) যাতে পরে ডিওডোরেন্ট কেনার আগে আপনার সুবিধে হয়।

মহিলাদের জন্য সেরা ১৫টি ডিওডোরেন্টের হদিশ (15 Best Deodorant for Women)

বাজারে তো নানা দামের এবং নানা ব্র্যান্ডের ডিওডোরেন্ট পাওয়া যায়, আবার একই ব্র্যান্ডের ডিওডোরেন্ট বিভিন্ন সুগন্ধেও পাওয়া যায় (Best Deodorants For Women In India)। পারফিউমের মতো ডিওডোরেন্টেরও কিন্তু নানা নোট থাকে; অর্থাৎ ডিওডোরেন্টটি লাগানোর সময়ে কেমন গন্ধ হবে, কিছুক্ষন পরে গন্ধ বদলে যাবে কেমন হবে। এখানে ১৫টি বাছাই করা ডিওডোরেন্টের সম্পর্কে আলোচনা করা হল যা প্রতিটি মহিলার সংগ্রহে রাখা উচিত।

১। লেয়ার ওয়াট্টাগার্ল সিক্রেট ক্রাশ বডি স্প্রে

লেয়ার ওয়াট্টাগার্ল-এর এই ডিওডোরেন্টটি (Natural Deodorant For Women) সারাদিন আপনাকে তরতাজা রাখার জন্য খুবই ভাল। ফুলের সুগন্ধের সঙ্গেই একটা অদ্ভুত আনারস ও সাইট্রাসের গন্ধের এক মেলবন্ধন করা হয়েছে এই ডিওডোরেন্টে।

সুবিধে (Advantages)

  • পারফিউমের উপাদান রয়েছে
  • পকেটসই
  • অনেকদিন ব্যবহার করা যায়
  • খুব সামান্য পরিমাণে দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ

অসুবিধে (Disadvantages)

  • খুবই মিষ্টি গন্ধ যা অনেকেই পছন্দ নাও করতে পারেন

২। প্লেবয় ওমেন ডিও – প্লে ইট সেক্সি

এক স্বর্গীয় অনুভুতির জন্য প্লেবয় ওমেন ডিও – প্লে ইট সেক্সি ডিওডোরেন্টটি একদম পারফেক্ট। ভ্যানিলা, পচৌলি এবং চন্দনের সুগন্ধের এক অদ্ভুত মেলবন্ধন (Best Smelling Deodorant For Women) রয়েছে এই ডিওডোরেন্টটিতে। আপনি চাইলে সকালেও এই সুগন্ধ মাখতে পারেন আবার চাইলে রাতেও মাখতে পারেন।

সুবিধে (Advantages)

  • পকেটসই
  • দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ (দীর্ঘস্থায়ী পারফিউম)
  • অনেকদিন চলে
  • অপূর্ব সুগন্ধ

অসুবিধে (Disadvantages)

  • তেমন কিছুই নেই

৩। স্পিঞ্জ ডিও – এনচ্যান্ট

বহুদিন ধরেই সুগন্ধির জগতে স্পিঞ্জ একটি সুপরিচিত নাম। স্পিঞ্জের এনচ্যান্ট ডিওডোরেন্টটি আপনাকে সারাদিন একটা ফ্রেশ ফিল দেয়। আপনি অফিসেই যান অথবা ডিনার ডেটে কিংবা জিমে – এই ডিওডোরেন্টটি কিন্তু সব জায়গাতেই আপনি মাখতে পারেন।

সুবিধে (Advantages)

  • অ্যালকোহল নেই
  • সারাদিন তরতাজা রাখতে সাহায্য করে
  • ত্বকের কোনও ক্ষতি করে না
  • সংবেদনশীল ত্বকেও ব্যবহার করা যায়
  • পকেটসই

অসুবিধে (Disadvantages)

  • খুব বেশিক্ষণ সুগন্ধ থাকে না

৪। অ্যাডিডাস পিওর লাইটনেস পারফিউমড ডিওডোরেন্ট ফর ওমেন

আপনার যদি কোনও স্পোরটি সুগন্ধ পছন্দ হয় তাহলে অ্যাডিডাসের পিওর লাইটনেস পারফিউমড ডিওডোরেন্টটি আপনার পছন্দ হবেই। ফ্লোরাল এবং ফ্রুটি সুগন্ধে পাওয়া যায় (Best Smelling Deodorant For Women) এই প্রোডাক্টটি যা আপনাকে সারাদিনের জন্য ফেশ রাখতে সাহায্য করে।

সুবিধে (Advantages)

  • রোজকার ব্যবহারের জন্য খুবই ভাল
  • সারাদিন তরতাজা রাখতে সাহায্য করে
  • ব্যাগে ক্যারি করা সহজ
  • পকেটসই
  • সব জায়গায় এই সুগন্ধি মাখার জন্য উপযুক্ত

অসুবিধে (Disadvantages)

  • খুব তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যায়

৫। সিন্থল ওমেন’স ডিও স্টিক

অনেকেই ডিওডোরেন্টের ক্ষেত্রে স্প্রে বোতল পছন্দ করেন না কারণ সেগুলো তুলনামূলকভাবে কম দিন চলে। এমনিতেই বহুদিন ধরে সিন্থল স্নান সংক্রান্ত প্রোডাক্ট-এর জগতে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে, আর এখন ডিওডোরেন্টের জগতেও বেশ পছন্দসই হয়ে উঠেছে। মহিলাদের ডিওডোরেন্টের রেঞ্জে এই ডিওস্টিকটি অনেকেই বেশ পছন্দ করছেন।

সুবিধে (Advantages)

  • ক্রিমি ফর্মুলা ফলে ত্বকের জন্য একেবারেই ক্ষতিকর নয়
  • বেশ অনেকদিন চলে
  • ঘাম ও জীবাণুর আক্রমণ অনেকটা কমায়
  • পকেটসই

অসুবিধে (Disadvantages)

  • তেমন কোনও অসুবিধে নেই

৬। লাস্ট বাই সানি লিওনি ডিওডোরেন্ট ফর ওমেন

আপনি যদি কোনও ক্লাসি সুগন্ধে মাততে চান তাহলে এই ডিওডোরেন্টটি আপনার জন্য বেস্ট (Natural Deodorant For Women)। যেকোনোও সময়ে তো আপনি এই সুগন্ধি ব্যবহার করতেই পারেন তবে বিশেষ দিনগুলোতেও যেমন যদি প্রেমিকের সঙ্গে ডেটে যান অথবা কোনও জরুরি মিটিং-এ যান, তখনও এই সুগন্ধি ব্যবহার করতে পারেন। সামনের মানুষটির মনে আপনার প্রতি প্রথম ইমপ্রেশন ভালই পড়বে।

সুবিধে (Advantages)

  • দিনে বা রাতে দু’সময়েই ব্যবহার করা যায়
  • দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ
  • সুন্দর ফ্রেশ গন্ধ
  • পকেটসই

অসুবিধে (Disadvantages)

  • খুব বেশি চলে না
  • অ্যালকোহল ফ্রি নয়

৭। এনগেজ পারফিউম স্প্রে ফর ওমেন – ব্লাশ

এনগেজের পারফিউম রেঞ্জে নানা সুগন্ধের ডিওডোরেন্ট রয়েছে, তবে আপনি যদি একটু ফুলের বা ফ্রুটি সুবাস পছন্দ করেন তাহলে সেক্ষেত্রে আপনি অনায়াসে এনগেজের ব্লাশ ডিওডোরেন্টটি ব্যবহার করতে পারেন।

সুবিধে (Advantages)

  • মিষ্টি অথচ ফ্রেশ সুগন্ধ
  • দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ
  • কোনওরকম অ্যালার্জি হয় না
  • ত্বকের কোনও ক্ষতি করে না
  • পকেটসই

অসুবিধে (Disadvantages)

  • তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যায়
  • অ্যালকোহল ফ্রি নয়

৮। অরিফ্লেম সিল্ক বিউটি হোয়াইট গ্লো রোল অন

যদি আপনি ডিওডোরেন্ট স্প্রে-র বদলে রোল অন ব্যবহার করতে বেশি স্বচ্ছন্দ হন, সেক্ষেত্রে কিন্তু অরিফ্লেমের সিল্ক বিউটি হোয়াইট গ্লো রোল অন বেছে নিতে পারেন। স্নানের পর শরীরের যেখানে বেশি ঘাম হয় সেখানে একবার বুলিয়ে নিলেই সারাদিন তরতাজা থাকবেন।

সুবিধে (Advantages)

  • ঘাম শুষে নেয়
  • অ্যালার্জি হয় না
  • দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ
  • ত্বকের কোনও ক্ষতি করে না
  • চটচোটে নয়
  • অনেকদিন চলে

অসুবিধে (Disadvantages)

  • দামটা একটু বেশি
  • সব সময়ে সব জায়গায় পাওয়া যায় না

৯। নাইকি ফিজ-অন ডিওডোরেন্ট স্প্রে

জিম যাওয়ার আগে একবার এই পারফিউম লাগান (Best Smelling Deodorant For Women) আর তারপর দেখুন এর জাদু! ফুলের সুগন্ধের সঙ্গে রয়েছে শশার শীতল স্পর্শ যা আপনাকে সুরভিতও করবে এবং একইসঙ্গে তরতাজাও রাখবে।

সুবিধে (Advantages)

  • দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ
  • পকেটসই
  • ভাল ব্র্যান্ড
  • মিষ্টি অথচ তাজা সুগন্ধ
  • অনেকদিন চলে

অসুবিধে (Disadvantages)

  • যাদের ত্বক খুব বেশি সংবেদনশীল তাদের হয়ত একটু জ্বালা করতে পারে

১০। নাইকি অ্যাজোরে ওমেন ডিওডোরেন্ট স্প্রে

না খুব বেশি হালকা, না খুব বেশি উগ্র – মাঝামাঝি সুগন্ধ যদি আপনি পছন্দ করেন তাহলে নাইকি-র অ্যাজোরে ওমেন ডিওডোরেন্ট স্প্রে ব্যবহার করে দেখতে পারেন। প্রতিদিন ব্যবহার করার জন্য এই ডিওডোরেন্ট স্প্রেটি উপযুক্ত।

সুবিধে (Advantages)

  • পকেটসই
  • তরতাজা অনুভব করায়
  • গায়ের দুর্গন্ধ দূর করতে সাহায্য করে

অসুবিধে (Disadvantages)

  • টেস্টার পাওয়া যায় না
  • খুব বেশি চলে না
  • সুগন্ধ দীর্ঘস্থায়ী নয়

১১। ফগ ব্ল্যাক রিভিল ফ্রেগ্রেন্স বডি স্প্রে ফর ওমেন

ভ্যানিলা, পাচৌলি এবং টোঙ্কার এক পারফেক্ট ব্লেন্ড এই ডিওডোরেন্টে পাবেন। যাঁদের বেশিরভাগ সময়টাই বাড়ির বাইরে কাটাতে হয় সেই মহিলাদের জন্য এই সুগন্ধ উপযুক্ত। সকালে একবার লাগিয়ে নিন, সারা দিন এর সুগন্ধ আপনাকে তরতাজা রাখবে।

সুবিধে (Advantages)

  • অনেকদিন চলে
  • দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ
  • সারাদিন তরতাজা রাখতে সাহায্য করে
  • পকেটসই
  • ৮০০ স্প্রে করা যায়

অসুবিধে (Disadvantages)

  • তেমন কিছুই নেই

১২। আর্চি’জ শি ইজ ক্লাবার ডিওডোরেন্ট

বন্ধুদের সঙ্গে লাঞ্চে যাবেন বা টুকটাক কিছু কেনাকাটা করতে যাবেন? বেরনোর আগে একবার এই ডিওডোরেন্টটি স্প্রে (Natural Deodorant For Women) করে নিন। একটা স্পোরটি সুগন্ধ আপনাকে ছাড়বেই না।

সুবিধে (Advantages)

  • গায়ের দুর্গন্ধ দূর করতে সাহায্য করে
  • দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ
  • অনেকদিন চলে
  • সারাদিন তরতাজা অনুভব
  • ফ্রেঞ্ সুগন্ধ
  • পকেটসই

অসুবিধে (Disadvantages)

  • তেমন কিছু না

১৩। ইয়ারডলে ইংলিশ ল্যাভেন্ডার ডিওডোরেন্ট স্প্রে

ইয়ার্ডলে লন্ডন একটি স্বনামধন্য ব্র্যান্ড। এই ব্রান্ডের ডিওডোরেন্ট যদি আপনার বাজেটের মধ্যে পেয়ে যান, তা হলে তো কথাই নেই, তাই না? ল্যাভেন্ডারের সুগন্ধযুক্ত এই ডিওডোরেন্টের একটা আলাদাই আবেদন আছে। ল্যাভেন্ডারের হালকা গন্ধ আপনার মনে সারা দিন একটা প্রশান্তির অনুভূতি জাগিয়ে তুলবে।

সুবিধে (Advantages)

  • পারফিউমের উপাদান রয়েছে
  • পকেটসই
  • অনেকদিন ব্যবহার করা যায়
  • খুব সামান্য পরিমাণে দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ

অসুবিধে (Disadvantages)

  • খুবই মিষ্টি গন্ধ যা অনেকেই পছন্দ নাও করতে পারেন

১৪। সিক্রেট টেম্পটেশন রোম্যান্স ডিওডোরেন্ট স্প্রে

কস্তূরী আর ভ্যানিলার গন্ধে ভরপুর এই ডিওডোরেন্ট আপনাকে সারাদিন তরতাজা রাখবে। সকালে বাড়ি থেকে বেরোনোর আগে সিক্রেট টেম্পটেশন রোম্যান্স ডিওডোরেন্ট স্প্রে করুন আর সারাদিন এক মনমাতানো ফ্রেশনেস অনুভব করুন।

সুবিধে (Advantages)

  • দিনে বা রাতে দু’সময়েই ব্যবহার করা যায়
  • দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধ (দীর্ঘস্থায়ী পারফিউম)
  • সুন্দর ফ্রেশ গন্ধ
  • পকেটসই

অসুবিধে (Disadvantages)

  • খুব বেশি চলে না
  • অ্যালকোহল ফ্রি নয়

১৫। এনগেজ ওমেন ডিও স্প্রে – অ্যাবান্ডন

সাইট্রাস, অরেঞ্জ ব্লসম, জুঁই এবং গোলাপের এক অপূর্ব মেলবন্ধন রয়েছে এনগেজের এই ডিওডোরেন্টটিতে। একইসঙ্গে এটি রোম্যান্টিক এবং সেন্সুয়াল। দিনের অন্যান্য সময়ে তো এই ডিওডোরেন্টটি মাখতেই পারেন, তবে যদি কোনও বিশেষ উপলক্ষ্য থাকে তাহলে এই ডিওডোরেন্টটি কিন্তু মাস্ট হ্যাভ!

সুবিধে (Advantages)

  • রোজকার ব্যবহারের জন্য খুবই ভাল
  • সারাদিন তরতাজা রাখতে সাহায্য করে
  • ব্যাগে ক্যারি করা সহজ
  • পকেটসই
  • সব জায়গায় এই সুগন্ধি মাখার জন্য উপযুক্ত

অসুবিধে (Disadvantages)

  • তেমন কিছুই নেই

কীভাবে বুঝবেন কোন ডিওডোরেন্টটি আপনার জন্য সবচেয়ে ভাল (How To Choose Best Deodorant)

ডিওডোরেন্ট চেনার উপায়

বাজারে নানা ব্র্যান্ডের নানা সুগন্ধের এবং নানা দামের ডিওডোরেন্ট পাওয়া যায়। কোন ডিওডোরেন্টটি আপনি কিনবেন তা ভেবে অনেকসময়েই নানা কনফিউশনও তৈরি হয়। কোনও একটা ডিওডোরেন্টের গন্ধ হয়ত খুব সুন্দর, কিন্তু তা আপনার ত্বকের জন্য ঠিক না; আবার কোনও ডিওডোরেন্ট হয়ত ঘাম কম হতে সাহায্য করে কিন্তু গন্ধটা ঠিক আপনার ভাল লাগলো না। ডিওডোরেন্ট কেনার আগে (Best Deodorant For Women) বেশ কয়েকটি বিষয় মাথায় রেখে যদি কেনেন, তাহলে আপনারই সুবিধে –

  • মেয়েদের জন্য পারফিউম বা ডিওডোরেন্ট কেনার সময়ে মোটামুটি সবাই যে বিষয়টি প্রথমেই দেখে তা হল সুগন্ধ। কেউ খুব মিষ্টি গন্ধ পছন্দ করেন আবার কেউ পছন্দ করেন উগ্র গন্ধ। আপনি যে-রকম সুগন্ধ পছন্দ করেন সেরকম ডিওডোরেন্ট কিনুন।
  • তবে সবসময়ে যে নিজের পছন্দমতো সুগন্ধের ডিওডোরেন্ট আপনি ব্যবহার করতে পারবেন তা তো নাও হতে পারে। যদি আপনি এমন কোথাও কাজ করেন যেখানে অতিরিক্ত উগ্র সুগন্ধি মেখে আপনি অফিস যেতে পারবেন না, তাহলে তো উগ্র গন্ধের ডিওডোরেন্ট কেনার কোনও মানেই হয় না। আমাদের মতে সব সময়ে এমন সুগন্ধ বাছা উচিত যা আপনি সকালে বা বিকেলে অথবা মোটামুটি সব জায়গাতেই লাগিয়ে যেতে পারেন।
  • ডিওডোরেন্ট ব্যবহার করার মূল উদ্দেশ্যটি কী সে বিশয়টি মাথায় রেখেও কিন্তু প্রোডাক্ট বাছা উচিত। যদি আপনার খুব বেশি ঘাম হয় তাহলে অ্যান্টিপার্সপের‍্যান্ট ডিওডোরেন্ট বাছুন। এতে অ্যালুমিনিয়াম সল্ট থাকে যা শরীরের থেকে ঘাম শুষে নেয়। আবার যদি আপনার ত্বক খুব বেশি সংবেদনশীল হয় সেক্ষেত্রে বেশি কেমিক্যালযুক্ত ডিওডোরেন্ট না বেছে প্রাকৃতিক উপাদানে সমৃদ্ধ ডিওডোরেন্ট রোল-অন ব্যবহার করতে পারেন।
  • ডিওডোরেন্ট কেনার আগে সব সময়ে দেখে নেবেন যে কী কী উপকরণ দিয়ে প্রোডাক্টটি তৈরি করা হয়েছে। যদি কোনও একটি উপকরণেও আপনার অ্যালার্জি থাকে, তাহলে সেই ডিওডোরেন্টটি না কেনাই ভাল।

ডিওডোরেন্ট সংক্রান্ত কিছু জরুরি প্রশ্নোত্তর (FAQs)

১। স্নানের পরে কি ডিওডোরেন্ট লাগানো যায়?

উত্তর – ডিওডোরেন্টের মূল কাজ হলো আপনার শরীরের থেকে ঘামের দুর্গন্ধ দূর করা এবং সারাদিন আপনাকে তরতাজা রাখা। তাই স্নান করার ঠিক পরেই ডিও লাগান। কখন ঘাম হবে, কখন তার থেকে দুর্গন্ধ বেরোবে, তার পর আপনি ডিওডোরেন্ট লাগাবেন – না প্লিস তার জন্য অপেক্ষা করবেন না।

২। ত্বকে সরাসরি ডিওডোরেন্ট লাগানো কি ক্ষতিকর হতে পারে?

উত্তর – ডিওডোরেন্ট অর্থাৎ এমন একটি উপদান যা কোনও ওডর বা খারাপ গন্ধ দূর করতে পারে। আমাদের অনেকেরই শরীরে বাজে গন্ধ হয়, বেশিরভাগ সময়েই তা হয় জীবাণুর থেকে। বিশেষ করে বগলের নীচে, স্তনের নীচে বা শরীরের সেইসব অংশে যেখানে বেশি ঘাম হয়। কাজেই সরাসরি যদি আপনি ত্বকে ডিওডোরেন্ট স্প্রে করেন অথবা রোল করেন তাহলে ঘামের সঙ্গে দুর্গন্ধও দূর হবে।

৩। ডিওডোরেন্ট কি পালস পয়েন্টে লাগাতে হয়?

উত্তর – কব্জি কিংবা কানের লতিতে পারফিউম লাগাই আমরা, কারণ ওগুলো হলো পালস পয়েন্ট। ওই জায়গা গুলোতে পারফিউম লাগালে অনেক্ষন সুগন্ধ থাকে। কিন্তু ডিওডোরেন্টের ক্ষেত্রে এই নিয়ম খাটে না।  ডিওডোরেন্ট সেখানেই লাগান যেখানে ঘাম হয়; যেমন বগলের নীচে, কনুইয়ের ভেতর দিকে, হাঁটুর পেছনে আর পায়ের আঙুলের তলায়।

৪। সত্যিই কি বাজারে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল ডিওডোরেন্ট পাওয়া যায়?

উত্তর – অনেক ব্র্যান্ড রয়েছে যারা দাবী করেন যে তাঁরা বাজারে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল ডিওডোরেন্ট নিয়ে এসেছেন, কিন্তু তা কতখানি কার্যকরী সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও পরিক্ষামূলক প্রমাণ নেই। অনেকেই আবার অ্যান্টিপার্সপের‍্যান্ট (যে ডিওডোরেন্ট ঘাম হতে দেয় না) –কেই অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল ডিওডোরেন্ট বলে গুলিয়ে ফেলেন। যদি সত্যিই এমন কোনও সুগন্ধি চান যা আপনাকে সারাদি সুরভিতও করবে এবং ত্বকের জীবাণুও দূর করবে তাহলে বাড়িতে কিছু প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি করতে পারেন আপনার নিজস্ব অ্যান্টিব্যাক্তেরিয়াল ডিওডোরেন্ট।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম…আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!

Image Source: Shutterstock