home / চুলের যত্ন নিয়ে নানা টিপস
হেয়ার ফলের সমস্যা দূর করতে নিয়মিত করুন এই আসন দুটি

হেয়ার ফলের সমস্যা দূর করতে নিয়মিত করুন এই আসন দুটি

জেনেটিক কারণে তো বটেই; অনেক সময় ঠিক মতো খাবার না খেলে, বেশি মাত্রায় প্রসাধনী ব্যবহার করলে এবং খুশকির কারণেও চুল পড়ার হার বেড়ে যেতে পারে। তবে কারণ যাই হোক না কেন, সময় মতো যদি ব্যবস্থা নেওয়া না যায়, তা হলেই বিপদ! কারণ সেক্ষেত্রে অসময়ে ময়দান খালি হয়ে যাওয়ার ভয় থাকে।

এবার প্রশ্ন হল, হেয়ার ফল কমানো যায় কীভাবে? এক্ষেত্রে অ্যান্টি হেয়ার ফল শ্যাম্পু ব্যবহার করলে উপকার পাওয়া যায় ঠিকই! কিন্তু যোগ গুরুদের মতে, নিয়মিত যদি বিশেষ কিছু আসন (best yogasanas for hair growth) করা যায়, তা হলে নাকি হেয়ার ফল কমতে একেবারেই সময় লাগে না!

হেয়ার ফলের কারণেই চুল একেবারে পাতলা হয়ে যায়

কিন্তু আসনের সঙ্গে হেয়ার ফলের সম্পর্কটা ঠিক কোথায়? এই যোগাসনগুলি করার সময় চুলের গোড়ায় অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্তের প্রবাহ বেড়ে যায়, যে কারণে চুলের গোড়া এতটাই শক্তপোক্ত হয়ে হয়ে ওঠে যে হেয়ার ফলের মতো সমস্যা দূরে পালাতে সময়ই লাগে না। সঙ্গে চুলের জেল্লাও বাড়ে চোখে পড়ার মতো। ভাবছেন, কী-কী আসন করলে এমন উপকার মিলবে? জেনে নিন আমাদের কাছ থেকে।

সর্বাঙ্গাসন

মাত্রাতিরিক্ত হেয়ার ফল কমাতে (best yogasanas for hair growth) এই আসনটির জুড়ি মেলা ভার। তবে নিয়মিত সর্বাঙ্গাসন করলে আরও একাধিক উপকার মেলে। যেমন ধরুন সর্দিকাশি, ব্রঙ্কাইটিস, হাঁপানি এবং টনসিলের পকোপ কমতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে লো ব্লাড প্রেসার, মৃগি রোগ এবং কানে কম শোনার মতো সমস্যা দূর করতেও এই আসনটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। গলার স্বর বসে যাওয়া, গলা ব্যথা এবং ফেরিঞ্জাইটিস রোগের চিকিৎসাতেও এই আসনটি নানা ভাবে কাজে এসে থাকে।

আসনটি করার পদ্ধতি

কাঁধের উপর ভর দিয়ে দু’পা সোজা করে উপরে তুলুন। এই সময় দু’হাতের চেটো দিয়ে পিঠকে এমন ভাবে ঠেলে ধরতে হবে যাতে ঘাড় থেকে পা পর্যন্ত সরল রেখায় থাকে। আর চিবুক থাকবে বুকের সঙ্গে লেগে। দৃষ্টি থাকবে পায়ের আঙুলের দিকে। স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে নিতে তিরিশ সেকেন্ড এইভাবে থেকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে হবে। এইভাবে নিয়মিত বার তিনেক আসনটি করলেই ফল মিলতে সময় লাগবে না।

অধোমুখশবাসন

এই আসনটি নিয়মিত করলে চুলের গোড়ায় রক্তের প্রবাহ বেড়ে যাওয়ার কারণে হেয়ার ফলের (best yogasanas for hair growth) মাত্রা তো কমবেই। সঙ্গে সইনাসের সমস্যা যেমন দূরে পালাবে, তেমনি স্ট্রেস-অ্যাংজাইটির প্রকোপ কমতেও সময় লাগবে না। দূর হবে শারীরিক ক্লান্তিও।

আসনটি করার পদ্ধতি

হাত ও পায়ের উপর ভর দিতে এমনভাবে দাঁড়ান যাতে টেবিলের মতো দেখতে লাগে। এবার হাত-পা সোজা রেখে কোমরটা একটু ওঠান। এই সময় আপনার শরীরের ভঙ্গি অনেকটা ইংরেজির উল্টো ভি-এর মতো হবে। গলাটা এবার প্রসারিত করার চেষ্টা করুন, সঙ্গে হাত দিয়ে মাটিকে ঠেলুন। এই সময় এমন জায়গায় আপনার হাত দুটি থাকবে যাতে তা কানকে ছোঁয়। এইভাবে কয়েক সেকেন্ড থেকে পুনরায় স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসুন। প্রতিদিন বার তিনেক এই আসনটি করলে ফল মিলবে হাতে-নাতে!

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

02 Aug 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text