Advertisement

বলিউড ও বিনোদন

কেউ নাকি সমকামীর চরিত্র করতে রাজি হচ্ছেন না! বিশ বাঁও জলে করণ জোহরের দোস্তানা ২

Parama SenParama Sen  |  Aug 22, 2019
কেউ নাকি সমকামীর চরিত্র করতে রাজি হচ্ছেন না! বিশ বাঁও জলে করণ জোহরের দোস্তানা ২

Advertisement

করণ জোহরের দিনকাল একদমই ভাল যাচ্ছে না! কোথায় তাঁর বাড়ির সামনে এককালে বলিউডের এক থেকে দশ নম্বর পর্যন্ত তারকারা লাইন দিতেন, তাঁর ছবিতে বিনে পয়সায় নেচেকুঁদে তাঁর মন জয় করার চেষ্টা করতেন কাজল থেকে রানি, সকলে আর এখন তিনি যেচে-যেচে সকলকে ফোন ঘুরিয়ে তাঁর ছবিতে চরিত্র অফার করছেন আর সেই স্টাররাই কিনা পরিষ্কার না বলে দিচ্ছেন!

আসলে সব দোষ ওই পোড়ামুখো ‘কলঙ্ক’-র! সেই যে কলঙ্ক লেগেছে তাঁর কেরিয়ারে, শত ধোওয়ার চেষ্টা করলেও আর কিছুতেই সেই কলঙ্ককালিমা যাচ্ছে না! তারপর আবার ‘স্টুডেন্টস অফ দ্য ইয়ার ২’-ও করলেন, মাঝখানে ‘ধড়ক’…এত কারও সহ্য হয়! আসলে করণ (Karan Johar) বোধ হয় পথ হারাইয়াছেন! তিনি বুঝিয়া উঠিতে পারিতেছেন না যে ধম্মে থাকবেন, নাকি জিরাফটাই ভাল! বেশ টুকটুক করে ফিল গুড মুভি বানাচ্ছিলেন, লোকে যখন ধরেই নিয়েছিল যে, কী করে বাজারে ফালতু চা-ও দামি দার্জিলিং বলে বেচতে হয়, এমনটা করণ সবচেয়ে ভাল জানেন, তখনই করণ ভাবলেন আমিও একটা কেউকেটা বটেক! তিনি ফ্যাশন ডিজাইনার হয়ে গেলেন, টক শো-এ গুচ্ছের নিজের লোককে দিয়ে পুরনো কথা বলালেন আর সক্কলে বুঝতে পারল যে ওসব স্ক্রিপ্টেড, হলিউডি ডিজাইনার প্রবাল গুরুংয়ের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন গোছের একটা খবর ভাসালেন হাওয়ায়, যেটা আবার প্রবাল নিজেই ঘটা করে অস্বীকার করলেন…সব মিলিয়ে বেশ একটা যা-তা ব্যাপার আর কী!

আর তাঁর এসব ভুলভাল কাজ দেখে এবং ধ্যাড়ধ্যাড়ে বক্স অফিসের হালত দেখেই বোধ হয় করণের প্রিয় বলিউডি (Bollywood) এ লিস্টাররাও তাঁর কাছ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন! নইলে তাঁর সাধের দোস্তানা ২-এ (Dostana 2) কাজ করতে কেউ রাজি হচ্ছে না, এমনটাও হতে পারে! দোস্তানা ২-এ লিড রোলে আছেন কার্তিক ও জাহ্নবী। প্রথমে ভাবা হয়েছিল যে, এঁরা বোধ হয় পেয়ার, পরে দেখা গিয়েছে, না, এঁরা আসলে অন স্ক্রিন ভাই-বোন! দু’জনে তৃতীয় একজনের প্রেমে পড়বেন এবং সেটা নিয়ে গল্প। এই তৃতীয় ব্যক্তিটি প্রথমে নতুন কেউ হবেন বলে বেশ ঢাকঢোল পিটিয়ে বলেছিলেন করণ! তাঁর নেপোটিজম-জনিত বদনাম তিনি ঘুচিয়ে দেবেন এই বার…কিন্তু ওই যে, বলেন তো অনেককিছুই, কাজে কবে করে দেখিয়েছেন শুনি? তাই শেষমেশ চুপি-চুপি পরিচিত লোকদের ফোন করতে শুরু করেছিলেন তিনি। কিন্তু কেউই আর হ্যাঁ-টা বলছেন না!

শাহিদ কপূর বলেছেন, সোলো লিড ছাড়া তিনি এখন কিচ্ছুটি করবেন না! তা ‘কবীর সিং’ বক্স অফিসে ভাল ব্যবসা করার পর থেকে তিনি তা বলতেই পারেন!

সিদ্ধার্থ মলহোত্র, করণের এককালের ব্লু আইড বয় বলেছেন, বাঃ, বেশ তো, ভাল চরিত্র করার সময় তো আমাকে ডাকে না, এখন কেউ করতে রাজি হচ্ছে না যেই…

রাজকুমার রাও, যিনি চ্যালেঞ্জিং রোল ছাড়া আবার করেনই না, তিনি অবশ্য এই চ্যালেঞ্জ নিতে রাজি হয়েছিলেন, কিন্তু মাত্তর ১৩ কোটি টাকা চেয়েছেন! তাঁকে করণই নাকি না করে দিয়েছেন!

দিলজিৎ দোসাঞ্জ, যিনি পুঁচকে রোলে অভিনয় করেন এবং মাঝে-সাঝে গান-টান গান, তিনিও বলেছেন, না বাপু, আমাকে ছাড়ান দিন। সমকামী চরিত্রে অভিনয়ের মতো বুকের পাটা এখনও আমার নেই!

সিদ্ধান্ত চতুর্বেদী, যিনি রণবীর সিংহের সঙ্গে গল্লি বয়-তে দেখা দিয়েছিলেন, তাঁকেও নাকি অনুরোধ করেছিলেন করণ! তিনিও বলে দিয়েছেন যে, নাঃ, দুই হিরোওয়ালা ছবিতে আমি করব না। 

(‘কপূর অ্যান্ড সন্স’-এ সমকামীর চরিত্রে অভিনয় করা ফাওয়াদ খানকে নাকি করণের ভীষণ নেওয়ার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু তিনি তো আবার প্রতিবেশী দেশটির বাসিন্দা, তাই…)

ইনস্টাগ্রাম

আসলে করণের কলঙ্ককালিমা যেমন দায়ী সকলের এই না বলে দেওয়ার জন্য, ঠিক তেমনই দায়ী চরিত্রটির সমকামী (gay) হওয়া! নিন্দুকে অবশ্য বলছে, জাহ্নবী কপূরের সঙ্গে স্ক্রিন স্পেস শেয়ার করতেও নাকি অনেকে রাজি হচ্ছেন না, তবে সেকথায় পাত্তা না দিলেও চলে। আসলে বলিউড কিংবা বলিউডি স্টারেরা মুখেই বলেন যে, তাঁরা নাকি ভারী আধুনিক! কিন্তু মূল ধারার নায়কেরা জরা হটকে ছবি করতে একেবারেই রাজি নন! এই ঘটনায় একথা আরও একবার প্রমাণিত হয়ে গেল।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!