Advertisement

বিনোদন

উইকএন্ডে দেখতে পারেন বাংলা কমেডি সিনেমাগুলো

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Aug 18, 2021
উইকএন্ডে দেখতে পারেন বাংলা কমেডি সিনেমাগুলো

সিনেমা (cinema) দেখতে ভালবাসেন না এমন মানুষ দিনের বেলা টর্চ নিয়ে খুঁজলেও একটিও পাবেন না। সত্যি কথা বলতে কী, এই ব্যস্ত জীবনে সামান্য বিনোদন যদি না থাকে, সেক্ষেত্রে সত্যিই বড় কষ্ট হয়। বেশিরভাগ মানুষের কাছেই সিনেমা দেখাটা বিনোদনের একটা বড় অংশ।

একটা সময় ছিল যখন সিঙ্গল স্ক্রিন ছিল এবং ম্যাটিনি শো-তে বেশ ভিড় হত। তারপরে এল মাল্টিপ্লেক্সের যুগ। আর এখন OTT প্ল্যাটফর্মের জুগে ওয়েব সিরিজ ও সিনেমার সংখ্যা যেমন বেড়েছে, তেমন যখন তখন সিনেমা দেখার একটা হিড়িকও পড়ে গিয়েছে।

বসন্ত বিলাপ ছবির একটি দৃশ্যে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, অনুপ কুমার, চিন্ময় চট্টোপাধ্যায় এবং রবি ঘোষ

সিনেমার নানা  বিভাগের মধ্যে হাসির সিনেমা (comedy) কিন্তু একটু বেশিই জনপ্রিয়, আর তা যদি হয় বাংলা হাসির সিনেমা, তাহলে তো আর কথাই নেই! সর্বকালের সেরার সেরা বাংলা কমেডি সিনেমার কয়েকটি এখানে তুলে ধরা হল। এই মুহূর্তে একটু হাসতে পারাটাই অনেক। উইকএন্ডে সময় করে না হয় এই কমেডি সিনেমাগুলো দেখে প্রাণ খুলে হাসলেন!

সাড়ে চুয়াত্তর

কাহিনী – কলকাতার ‘অন্নপূর্ণা বোর্ডিং হাউজ’-এ বেশ দিন কাটান এখানকার অধিবাসীরা। সুখে-দুঃখে, হাসি-মজায় দিন কাটে তাদের। কিন্তু একদিন সেখানে থাকতে আসে রমলার পরিবার এবং শুরু হয় নানা মজার ঘটনা। এরই মধ্যে এই মেসের এক অধিবাসী রামপদর সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয় রমলার। কিন্তু মেসের ম্যানেজারের স্ত্রীয়ের কাছে অন্যরকম খবর পৌঁছায় এবং তিনি ছানাপোনা নিয়ে হানা দেন সেখানে। এরপর কী কী ঘটে তা দেখলে হাসতে হাসতে পেতে খিল ধরবেই! 

নায়ক-নায়িকা ও পরিচালক – উত্তম কুমার, সুচিত্রা সেন, তুলসি চক্রবর্তী, ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়, মলিনা দেবী। ছবিটি পরিচালনা করেছেন নিরমল দে।

রিলিজ হয়েছে – ১৯৫৩ সাল

মৌচাক

কাহিনী – নিতিশ তার স্ত্রী ও ভাইয়ের সঙ্গে সুখে সংসার করে। ইতিমধ্যে ভাই চাকরি পেল পাটকলে এবং বাড়ি থেকে তাকে দূরে থাকতে হবে (Bangla Comedy Cinema)। এরপরে শুরু হল ‘এলিজিবল ব্যাচেলর’ শিতেশের উপরে ‘কন্যাদায়গ্রস্থ’ পিতাদের ভালবাসার অত্যাচার (বাংলা হাসির মুভি)। এরপরে কীভাবে নিতিশ তাঁর ভাইকে বাঁচায় আরও কী কী মজার ঘটনা ঘটে তা জানতে হলে দেখে ফেলুন এই বাংলা হাসির সিনেমাটি।

নায়ক-নায়িকা ও পরিচালক – উত্তম কুমার, সাবিত্রি চট্টোপাধ্যায়, মিঠু মুখোপাধ্যায়, রঞ্জিত মল্লিক, রবি ঘোষ, রত্না ঘোষাল, গীতা দে, সুলতা চৌধুরী। এই কমেডি মুভিটি পরিচালনা করেছেন অরবিন্দ মুখোপাধ্যায়।

রিলিজ হয়েছে – ১৯৭৪ সাল

বাঞ্ছারামের বাগান

কাহিনী –বাংলা চলচিত্রের ইতিহাসে অন্যতম সেরা কমেডি মুভি বলা যেতে পারে ‘বাঞ্ছারামের বাগান’কে। সিনেমাটির মূল চরিত্র বাঞ্ছারাম একজন বুড়ো মানুষ যে একটি পরিত্যক্ত জমিকে নিজের ভালবাসায় লালন করে সুন্দর এক বাগানে পরিবর্তিত করে, কিন্তু লোভী জমিদারের নজর পড়ে ওই বাগানে। এরপর জমিদার কীভাবে বারবার বাঞ্ছারামকে মেরে ফেলার ফন্দি আঁটে এবং শেষ পর্যন্ত নিজেই মারা যায় তা নিয়েই এই ছবির গল্প।

নায়ক-নায়িকা ও পরিচালক – মনোজ মিত্র, দিপঙ্কর দে, বিপ্লব চট্টোপাধ্যায়, রবি ঘোষ। পরিচালক হলেন তপন সিনহা

রিলিজ হয়েছে – ১৯৮০ সাল

ওগো বধু সুন্দরী

কাহিনী – চিত্রা একজন আধুনিকা এবং সোস্যালাইজ করতে পছন্দ করে। কিন্তু তার স্বামী গগন অধ্যাপনা করেন এবং তিনি বাংলা ভাষায় পারদর্শী ও এই ব্যাপারে তিনি বড্ড স্পর্শকাতর। চিত্রা চায় পশ্চিমি সভ্যতায় ভাসতে। এই নিয়েই দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর পরে তাদের জীবনে আসে দ্বিতীয় এক নারী। এর পরে ঘটতে থাকে মজার মজার সব ঘটনা এবং পরে চিত্রা তার ভুল বুঝতে পারে।

প্রসঙ্গত, এই হাসির সিনেমাটিই মহানায়ক উত্তম কুমার অভিনীত শেষ ছবি।

নায়ক-নায়িকা ও পরিচালক – উত্তম কুমার, সুমিত্রা মুখোপাধ্যায়, রঞ্জিত মল্লিক, মৌসুমি চট্টোপাধ্যায়, সন্তোষ দত্ত, বিকাশ রায়। ছবিটি পরিচালনা করেছেন সলিল দত্ত।

রিলিজ হয়েছে – ১৯৮১ সাল

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!