home / রূপচর্চা ও বিউটি টিপস
স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট কেনার আগে প্যাচ টেস্ট তো করেন, কিন্তু পদ্ধতিটি সঠিক তো?

স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট কেনার আগে প্যাচ টেস্ট তো করেন, কিন্তু পদ্ধতিটি সঠিক তো?

আচ্ছা, আপনাদের ফোনে নিশ্চয়ই কোনও না কোনও বিউটি অ্যাপ রয়েছে যেখান থেকে আপনারা নানারকম মেকআপ বা স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট কেনেন! ঘন্টার পর ঘন্টা বিউটি আর্টিকেল পড়েন অথবা একটা স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট কেনার আগে দশ জনকে সোশ্যাল মিডিয়ায় জিজ্ঞেস করেন যে প্রোডাক্টটি কেমন হবে। মোট কথা, স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট কেনার আগে বেশ ভাল মত রিসার্চ চালিয়ে তারপরেই প্রোডাক্টটি (skin care product) কেনেন। কিন্তু অনেক সময়েই দেখা যায় যে প্রোডাক্টটি কেনার পর তা ত্বকের জন্য ঠিক উপযুক্ত হয় না এবং চুলকানি অথবা জ্বালা কিংবা র‍্যাশ বেরিয়ে যায়। তাহলে উপায়? প্যাচ টেস্ট করে তারপর কোনও প্রোডাক্ট (skin care product) কিনুন। হ্যাঁ, অনেকেই বলবেন যে সেটাই করা হয় কোনও স্কিন কেয়ার বা বিউটি প্রোডাক্ট কেনার আগে, কিন্তু তার পরেও র‍্যাশ বেরয় বা জ্বালা করে ত্বকে। আমরা আপনাকে জানাবো প্যাচ টেস্ট (correct way to do a patch test) করার সঠিক উপায়, কিন্তু তার আগে একবার জেনে নিন স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট বা অন্য যে-কোনও প্রসাধনী কেনার আগে প্যাচ টেস্ট করা জরুরি কেন।

প্রসাধনী কেনার আগে প্যাচ টেস্ট করা জরুরি কেন

প্রতিবেদনের একদম শুরুতেই বলা হয়েছে যে ঠিক কী কারণে প্যাচ টেস্ট (correct way to do a patch test) করা অত্যন্ত জরুরি! আমাদের এক এক জনের ত্বক এক এক রকমের। আপনার বন্ধুর ত্বকে কোনও একটি স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট সুট করেছে মানে এই নয় যে তা আপনার ত্বকের জন্যও উপযোগী। আবার অনেক সময়ে কারও কারও ত্বকে কিছু নির্দিষ্ট উপকরণ সুট করে না এবং তা থেকে অ্যালার্জি, র‍্যাশ, চুলকানি ইত্যাদি দেখা যায়। পয়সা খরচ করে কোনও প্রোডাক্ট কেনার আগে তাই অবশ্যই প্যাচ টেস্ট করিয়ে নিন।

ADVERTISEMENT

প্যাচ টেস্ট করার সঠিক পদ্ধতিটি কী

আপনার ত্বকে কোন ধরনের স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট (skin care product) উপযোগী হবে, তা জানার সবচেয়ে ভাল উপায় হল প্রোডাক্টটিতে কী কী উপকরণ রয়েছে তা একবার ভাল করে দেখে নেওয়া। যদি কোনও উপকরণের নাম না বুঝতে পারেন, সেক্ষেত্রে অনলাইনে দেখে নিতে পারেন যে সেই নির্দিষ্ট উপকরণটি কী, কী কাজে লাগে, ত্বকের জন্য তা ক্ষতি কি না ইত্যাদি। যদি দেখেন যে তেমন কোনও সমস্যা নেই, সেক্ষেত্রে অবশ্যই প্যাচ টেস্ট (correct way to do a patch test) করে তবে প্রোডাক্টটি কিনুন। জেনে নিন, সহজে কিভাবে প্যাচ টেস্ট করবেন –

১। শরীরের যে অংশে প্যাচ টেস্ট করবেন, তা সবার আগে পরিষ্কার করে নিন। জল দিয়েই পরিষ্কার করুন, কোনও রকম ক্লেনজার বা মেকআপ রিমুভার ওয়াইপ ব্যবহার করবেন না। এগুলোতে রাসায়নিক থাকে যা স্কিন কেয়ার প্রোডাক্টটির সঙ্গে মিশে বিক্রিয়া করতে পারে। কানের পিছনে ঘাড়ে অথবা কবজিতে প্যাচ টেস্ট করুন।

ADVERTISEMENT

২। খুব সামান্য প্রোডাক্ট নিন এবং তা কানের পিছনে অথবা ঘাড়ে বা কবজিতে লাগিয়ে মাসাজ করুন। এমন ভাবে মাসাজ করবেন যাতে প্রোডাক্টটি ত্বকের গভীরে মিশে যায়।

৩। এরপর কয়েক ঘন্টা অপেক্ষা করে দেখতে পারেন কোনও রকম র‍্যাশ বেরোচ্ছে কি না, অথবা জ্বালা করছে কি না। সবচেয়ে ভাল হয় যদি ২৪ ঘন্টা অপেক্ষা করতে পারেন। যে অংশে প্যাচ টেস্ট (correct way to do a patch test) করেছেন সেখানে ব্যান্ডেজ বেঁধে ২৪ ঘন্টা অপেক্ষা করুন। যদি দেখেন যে ত্বকে কোনও সমস্যা হয়নি, সেক্ষেত্রে অবশ্যই সেই নির্দিষ্ট স্কিন কেয়ার প্রোডাক্টটি ব্যবহার করতে পারেন।

ADVERTISEMENT

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

ADVERTISEMENT
06 Oct 2020
good points

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text