logo
Logo
User
home / ঘরের সাজসজ্জা
বাড়িতেই অফিস? ডেকরেট করে প্রোডাক্টিভিটি বাড়ান

বাড়িতেই অফিস? ডেকরেট করে প্রোডাক্টিভিটি বাড়ান

আজকাল অনেকেই বাড়ি বসে কাজ করেন। কেউ ফ্রিল্যান্সিং করেন, কেউ বা ওয়ার্ক ফ্রম হোম আবার কারও হয়ত বাড়িতেই একটা ছোট্ট অফিস (decoration tips for your home office) রয়েছে। বাড়ি থেকে কাজ করার যেমন সুবিধে রয়েছে, তেমনই কতগুলো অসুবিধেও কিন্তু রয়েছে। আমি নিজেও যেমন বাড়ি থেকেই কাজ করি, কিন্তু মাঝেমাঝেই এমন একটা আসলেমি পেয়ে বসে আমাকে যে তখন মনে হয় একটু গড়িয়ে নিয়ে পরে কাজটা সারব, যেটা কিন্তু অফিসে বসে কাজ করলে আমি করতে পারতাম না।

তাহলে উপায়? যারা বাড়িতে থেকে কাজ করেন বা যাদের বাড়িতেই অফিস, তারা যদি নিজেদের ওয়ার্ক-স্টেশনটাকে একটু সাজিয়ে নেন আর কয়েকটা ছোট ছোট বিষয় মাথায় রাখেন, তাহলে কিন্তু কাজে আলসেমি আসবে না এবং প্রোডাক্টিভিটি বাড়ার সম্ভাবনাও অনেকটা বেড়ে যায়। দেখে নিন কীভাবে সাজাবেন আপনার ‘হোম-অফিস’ –

একটু আলো, একটু সবুজ আর অনেকটা প্রোডাক্টিভিটি

হোম-অফিস সাজিয়ে তোলার আটটি টিপস

১। কাজের জায়গায় যদি গাছপালা রাখেন, তাহলে কিন্তু প্রডাক্টিভিটি অনেকটাই বাড়ে। অন্তত বিশেষজ্ঞরা তাই বলেন। কিছু কিছু গাছ আছে যেগুলো ন্যাচারাল এয়ার পিউরিফায়ারের কাজ করে। আপনার ‘হোম-অফিসে’ (decoration tips for your home office) স্নেক প্ল্যান্ট কিম্বা পিস লিলি রাখতে পারেন। দেখতেও ভালো লাগবে আবার কম খরচে এয়ার পিউরিফায়ারের কাজও হবে।

২। সারাদিন ল্যাপটপের দিকে তাকিয়ে কাজ করতে করতে যদি একটু এদিক ওদিক দেখেন আর তখনও যদি সেই একঘেয়ে দেওয়াল দেখতে হয়, তাহলে কাজে মন তো বসবেই না, উলটে ঘুম পাবে। তার চেয়ে বরং একটা ফিচার ওয়াল বানান যেখানে আপনার পছন্দের ছবি কিম্বা ট্রফি সাজিয়ে রাখতে পারবেন।

৩। এমনি সিম্পল তাক বা ক্যাবিনেট না বানিয়ে জ্যামিতিক আকারের তাক বানান। আপনার অফিসের লুকটাই বদলে যাবে। সঠিক চেয়ার-টেবিল পাতুন

৪। আমরা যখন বাড়ি থেকে কাজ করি, তখন এমনিতেই আমাদের ওয়ার্কস্টেশান একটু আরামদায়কভাবেই তৈরি করে ফেলি। কিন্তু আপনার কি মনে হয়না যে ‘অতিরিক্ত কোজিনেস’ আপনার প্রোডাক্টিভিটির (decoration tips for your home office) জন্য ক্ষতিকর? বেশি আরাম পেলে তো সাথে ঘুমও পাবে, তখন কাজের কি হবে!

৫। আপনি যেখানে বসে কাজ করেন, সেখানে যেন পর্যাপ্ত পরিমানে সূর্যের আলো ঢোকে খেয়াল রাখবেন। এতে আপনার শরীর এবং মন চাঙ্গা থাকবে, সাথে প্রোডাক্টিভিটিও বাড়বে।

৬। আপনি যদি আঁকতে পারেন, তাহলে নিজের আঁকাই বাঁধিয়ে নিয়ে দেওয়ালে টাঙ্গাতে পারেন। আর আঁকতে না পারলেও ক্ষতি নেই, কোন এক্সিবিশন থেকে কিংবা অনলাইনে সুন্দর দেখতে একটা পেইন্টিং কিনে দেওয়ালে টাঙিয়ে দিতে পারেন। একঘেয়েমিটা কাটবে এতে আর কাজেও মন লাগবে।

৭। আপনার বাড়ির অফিসে (decoration tips for your home office) রং নিয়ে খেলুন, অর্থাৎ যেকোন জায়গাতেই নানা ধরনের রঙের প্রয়োগ করুন। সেটা দেওয়াল হতে পারে, ওয়াল হ্যাঙ্গিং হতে পারে আবার অন্য কিছুও। 

৮। আপনার যদি বাড়িতেই অফিস হয় এবং আপনার ক্লায়েন্টরা যদি বাড়িতে আসেন, তাহলে কিন্তু না চাইলেও আপনার হোম-অফিসে একটু স্টাইলিশ দেখতে ঘর সাজানোর জিনিস রাখতেই হবে। একটা সুন্দর দেখতে শ্যান্ডেলিয়ার ঝোলাতে পারেন সিলিং থেকে অথবা আপনার অফিসে ঢোকার মুখেই একটা সুন্দর ওয়াটার ফাউন্টেন রাখতে পারেন।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

17 Feb 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text