home / Diet
PCOS থেকে মুক্তি চাইলে লাইফস্টাইলে পরিবর্তন আনুন

PCOS থেকে মুক্তি চাইলে লাইফস্টাইলে পরিবর্তন আনুন

আপনি ওষুধ খান কিংবা সার্জারি করান, PCOS কন্ট্রোল করতে গেলে কিন্তু  নিজের জীবনযাত্রার দিকেও নজর দিতে হবে। কি খাচ্ছেন, কতটা খাচ্ছেন, সেটা দেখা যেমন জরুরি, ঠিক সেরকমই পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম আটকাতে কী-কী খাবেন না, সেটা জানাও খুব জরুরি। এছাড়াও ব্যায়াম করছেন কি না, ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে কী কী করছেন, সেগুলোও গুরুত্বপূর্ণ প্যারামিটার। সঠিক ডায়েট, নিয়মিত এক্সারসাইজ এবং লাইফস্টাইলে কিছু ছোট ছোট পরিবর্তন আপনাকে PCOS-এর থেকে মুক্তি দিতে পারে। (diet and exercise to reduce pcos)

লো-কার্ব খাবার

আপনার যদি PCOS-এর সমস্যা থাকে, তা হলে লো-কার্ব খাবার অর্থাৎ যে খাবারে কার্বোহাইড্রেট কম, সেই ধরনের খাবার খান। এর ফলে আপনার শরীরে ইনসুলিনের মাত্রা বাড়বে না, ফলে অযথা ওজনও বাড়বে না। ভাত, আলু, ময়দা, তরমুজ, কর্নফ্লেক্স ইত্যাদি না খাওয়াই ভাল। তা হলে কী খাবেন সেটাই ভাবছেন তো? আপনার খাদ্যতালিকায় থাকতে পারে মাল্টিগ্রেন ব্রেড, সয়াবিনের দুধ, ওটস, আপেলের রস, আনারস, লো-ফ্যাট দই, মুয়েসলি, গাজর ইত্যদি।

দুগ্ধজাত খাবার বেশি নয়

সোয়াবিনের দুধ পান করতে পারেন

গোরুর দুধ বা দুগ্ধজাত খাবার যদি প্রায় বাদ দিতে পারেন, তা হলে সবচেয়ে ভাল হয়। একান্তই যদি খেতে হয়, তা হলে যতটা সম্ভব কম খেলে ভাল। গোরুর দুধের বদলে নারকলের দুধ, আমন্ড দুধ, সয়াবিনের দুধ খেতে পারেন। (diet and exercise to reduce pcos)

প্রসেসড ফুড একদম নয়

PCOS অথবা পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোমে কিন্তু প্রসেসড ফুড যেমন হ্যাম, সসেজ, চিজ, যেকোনো ক্যানড খাবার একেবারেই চলবে না। এই খাবারগুলিতে চিনি, ফ্যাট, প্রেজারভেটিভ এবং অতিরিক্ত পরিমানে সোডিয়াম থাকে যা এমনিতেই শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর; আর PCOS থাকলে তো এই পদার্থগুলি সেই সমস্যাকে আরও বাড়িয়ে দেয়।

মিষ্টি খাবেন না  

চিনি না খেলেই ভাল। অনেকেই চিনি ছাড়া চা খেতে পারেন না। তাঁরা মধু দিয়ে গ্রিন টি খেতে পারেন। বাড়িতে কোনও মিষ্টি খাবার তৈরি করতে চাইলে চিনির বদলে গুড় দিয়ে করুন। এছাড়া মিষ্টি, আইসক্রিম, চকোলেট ও নরম পানীয় যতটা পারেন এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। (diet and exercise to reduce pcos)

 এক্সারসাইজ  

PCOS দূর করতে যোগব্যায়ামের জুড়ি নেই

নিয়মিত এক্সারসাইজ করুন। জিমে গিয়ে এক্সারসাইজ না করতে পারলে ক্ষতি নেই, বাড়িতেই যোগব্যায়াম করুন। আর কিছু না হলে সকাল-বিকেল হাঁটুন।

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন

ওজন যদি বাড়তে থাকে তা হলে কিন্তু সিস্ট হতে বাধ্য। কারণ, জরায়ুতে মেদ জমে-জমেই ঋতুস্রাব অনিয়মিত হয় এবং সিস্টের সমস্যা দেখা দেয়। কাজেই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন। (diet and exercise to reduce pcos)

নিয়মিত চেক-আপ করান  

পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম বা পলিসিস্টিক ওভারিয়ান ডিজঅর্ডার কিন্তু কখনওই সম্পূর্ণভাবে নির্মূল হয় না। যতদিন নিজের শরীরের দিকে খেয়াল রাখবেন এবং নিয়মিত ওষুধ খাবেন, ততদিনই PCOS নিয়ন্ত্রণে থাকবে। এই সমস্যা একবার কমে গেলেও কয়েকবছর পর আবার ফিরে আসতে পারে, একথাটা মাথায় রাখবেন। তাই নিয়মিত চেক-আপ করানো এক্ষেত্রে খুবই জরুরি।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!   

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

26 Feb 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text