home / চুলের যত্ন নিয়ে নানা টিপস
১০০% ন্যাচারাল স্কিন কেয়ার ও হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্ট নিজেই তৈরি করে ফেলুন

১০০% ন্যাচারাল স্কিন কেয়ার ও হেয়ার কেয়ার প্রোডাক্ট নিজেই তৈরি করে ফেলুন

আজকাল সবকিছুতেই অরগ্যানিকের চল! তা সে খাবারদাবারই হোক কিংবা প্রসাধনী। কিন্তু ন্যাচারাল, অরগ্যানিক জিনিসের দামও একটু বেশির দিকেই। তাই সব সময় এই ধরনের প্রোডাক্ট দিয়ে রূপচর্চা কিংবা ত্বকের যত্ন সম্ভব হয় না। কিন্তু ভাবুন, যদি বাড়িতেই বানিয়ে ফেলা যেত এই ধরনের জিনিসপত্র, কী ভালই না হত তা হলে!

আপনাদের মনের কথা বুঝতে পেরেই আমরা এখানে নিয়ে এসেছি এমন পাঁচটি স্কিন কেয়ার (skincare) এবং হেয়ার কেয়ার (haircare) প্রোডাক্ট (products), যেগুলো একশো শতাংশ কেমিক্যাল ফ্রি (chemical free) এবং সহজেই বাড়িতে বানিয়ে স্টোর করে রাখতে পারবেন। কীভাবে এগুলো তৈরি করবেন, সেই কায়দাই বলা হল এই প্রতিবেদনে।

ন্যাচারাল শ্যাম্পু

এটি বানাতে যা-যা লাগবে: দুই টেবিলচামচ শিকাকাই পাউডার, এক টেবিলচামচ রিঠা পাউডার, এক টেবিলচামচ আমলকী পাউডার, পরিমাণমতো জল

কীভাবে বানাবেন: একটা বাটিতে আমলকী, রিঠা ও শিকাকাইগুঁড়ো একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। অল্প-অল্প করে জল মেশান এই মিশ্রণে এবং নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না মনের মতো ঘনত্বের পেস্ট তৈরি হচ্ছে। এই পেস্টটিই হল আপনার ঘরে তৈরি শ্যাম্পু। ভেজা চুলে ডগা থেকে আগা পর্যন্ত এই পেস্টটি মেখে রেখে ভাল করে মালিশ করুন। মিশ্রণে থাকা রিঠা ফেনা তৈরি করবে।

ন্যাচারাল লিভ-ইন কন্ডিশনার

এটি বানাতে যা-যা লাগবে: দুই টেবিলচামচ নারকেল তেল, হাফ কাপ অ্যালোভেরা জেল, এক টেবিলচামচ আমন্ড অয়েল, কয়েকফোঁটা আপনার পছন্দের যে-কোনও এসেনশিয়াল অয়েল, ৩/৪ কাপ জল, একটি ওয়াটার স্প্রে করার বোতল

কীভাবে বানাবেন: একটি বাটিতে অ্যালোভেরা জেল ও জলটা মিশিয়ে ভাল করে নাড়তে থাকুন। যখন দেখবেন দুটো এক হয়ে গিয়েছে, তখন তাতে মেশান নারকেল আর আমন্ড অয়েলটা। আবার ভাল করে নেড়ে মিশিয়ে নিন। এবার এসেনশিয়াল অয়েলটা মেশান। এই মিশ্রণটি ঢেলে রাখুন ওই স্প্রে বোতলে। ভেজা চুলে ব্যবহার করুন।

ন্যাচারাল বডি লোশন

এটি বানাতে যা-যা লাগবে: হাফ কাপ আমন্ড অয়েল, ১/৪ কাপ নারকেল তেল, এক চা চামচ ভিটামিন ই অয়েল, ১/৪ কাপ বিজওয়্যাক্স, দুই টেবিলচামচ শিয়া বাটার, গন্ধের জন্য আপনার পছন্দের যে-কোনও এসেনশিয়াল অয়েল  

কীভাবে বানাবেন: একটি ডাবল বয়েলারে আমন্ড অয়েল, নারকেল তেল আর বিজওয়্যাক্স নিয়ে একসঙ্গে গরম করতে বসান। মাঝে-মাঝে নাড়তে থাকুন। যখন পুরোটা ভাল করে গলে যাবে, তখন তার মধ্যে মেশান ভিটামিন ই অয়েল এবং এসেনশিয়াল অয়েলটি। ভাল করে মিশিয়ে নিয়ে, ঠান্ডা করে একটি কাচের বোতলে ঢেলে রাখুন। এটি কিন্তু পুরনো পাম্পওয়ালা লোশনের বোতলে রাখবেন না। কারণ, পাম্প করে এটি ওঠানো যাবে না।

ন্যাচারাল ময়শ্চারাইজার

এটি বানাতে যা-যা লাগবে: এক টেবিলচামচ অ্যালোভেরা জেল (বাড়িতে অ্যালোভেরা গাছ থাকলে সেখান থেকে স্কুপ করে নিন, নয়তো বাজার থেকে কিনে আনুন), ১০ ড্রপ নারকেল তেল, একটা ভিটামিন ই ক্যাপসুল, স্টোর করে রাখার জন্য স্টেরিলাইজড কন্টেনার

কীভাবে বানাবেন: একটি কাচ অথবা পোর্সিলিনের বাটিতে অ্যালোভেরা জেল এবং নারকেল তেল একসঙ্গে ভাল করে ফেটিয়ে মিশিয়ে নিন। এবার তার মধ্যে যোগ করুন ভিটামিন ই ক্যাপসুলটি। এটি না পেলে কয়েক ফোঁটা আমন্ড অয়েলও দিতে পারেন। সবগুলো ভাল করে ফেটিয়ে মিশিয়ে আগে থেকে স্টেরিলাইজ করে রাখা কন্টেনারে ঢেলে রাখুন। শীতকালে এটি ঠান্ডায় জমে যেতে পারে। তা হলে একটা চামচে বের করে সেটি গ্যাসের উপর ধরে আবার তরল অবস্থায় নিয়ে আসবেন এটিকে।

ন্যাচারাল ফেস ওয়াশ

এটি বানাতে যা-যা লাগবে: একটি বড় মুখওয়ালা কাচের জার, এই জারটির ৩/8 ভাগ ভরে দেওয়ার মতো পরিমাণ মধু, দুই টেবিলচামচ মুলতানি মাটি, ল্যাভেন্ডার অথবা টি ট্রি এসেনশিয়াল অয়েল  

কীভাবে বানাবেন: একটি কাচের বাটিতে মধু এবং মুলতানি মাটি অল্প-অল্প পরিমাণে নিয়ে মেশাতে থাকুন। অল্প-অল্প করে মেশাতে হবে যাতে মুলতানি মাটি আর মধুটা মণ্ড পাকিয়ে না যায়। নাড়বেন একটি কাঁটা দিয়ে। এভাবে পুরো পরিমাণটা মেশানো হয়ে গেলে তার মধ্যে এসেনশিয়াল অয়েলটি ফোঁটা-ফোঁটা করে দিয়ে আবারও ভাল করে মিশিয়ে নিন। ব্যস, আপনার ফেসওয়াশ তৈরি।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

07 Oct 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text