Advertisement

ডি আই ওয়াই বিউটি টিপস

দাগ-ছোপহীন উজ্জ্বল ত্বকের জন্য ব্যবহার করুন ফল দিয়ে তৈরি এই ফেস মাস্কগুলি

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Aug 13, 2020
দাগ-ছোপহীন উজ্জ্বল ত্বকের জন্য ব্যবহার করুন ফল দিয়ে তৈরি এই ফেস মাস্কগুলি

Advertisement

নিউট্রিশনিস্টদের মতে, আমাদের প্রতিদিনের ডায়েটে নানা রকম ফল (fruits) রাখা উচিত। ফলে রয়েছে নানা রকম ভিটামিন, মিনারেল এবং জরুরি পুষ্টিগুণ যা আমাদের শরীরের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। শুধু তাই নয়, নিয়মিত ফল খেলে আমাদের ত্বকেরও অনেক উপকার হয়। পরিষ্কার, দাগ-ছোপহীন উজ্জ্বল ত্বক (beautiful clear skin) কার না ভাল লাগে! তবে শুধু ফল না খেয়ে যদি ফল ও ফলের খোসা দিয়ে তৈরি নানা ফেস মাস্ক আপনি ব্যবহার করেন, তাহলেও কিন্তু আপনার ত্বক হয়ে উঠবে উজ্জ্বল ও দাগ-ছোপহীন। এখানে কয়েকটি ফল দিয়ে তৈরি ফেস মাস্কের (fruit face mask) বিষয়ে জানাবো যা অনায়াসে আপনি বাড়িতে তৈরি করে নিতে পারেন।

পেঁপে ও মধু দিয়ে তৈরি ফেস মাস্ক

অ্যাকনে থেকে মুক্তি পান পেঁপের তৈরি ফেস মাস্ক লাগিয়ে

উপকরণ

  • দুই টুকরো পাকা পেঁপে
  • এক চা চামচ মধু

ব্যবহারবিধি

  • খুব ভাল করে পেঁপের শাঁস বার করে পেস্ট তৈরি করে নিন।
  • এর সঙ্গে মধু মেশান।
  • পরিষ্কার মুখে এই ফেস মাস্ক লাগিয়ে নিন। গলা ও ঘাড়েও লাগাতে পারেন।
  • ১৫-২০ মিনিট পর ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন। নরম তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নিন।
  • ময়শ্চারাইজার লাগাতে ভুলবেন না।

কোন ধরনের ত্বকের জন্য এই ফ্রুট ফেস মাস্ক (fruit face mask) উপযোগী – সব ধরনের ত্বকেই এই ফেস মাস্ক লাগাতে পারেন। তবে যাঁদের ত্বকে অ্যাকনের সমস্যা এবং ত্বক খুবই জেল্লাহীন, তাঁরা এটি ব্যবহার করলে বিশেষ উপকার (beautiful clear skin) পাবেন।

সতর্কীকরণ – যদি আপনার পেঁপেতে অ্যালার্জি থাকে তাহলে এই ফলটি ব্যবহার করবেন না।

কমলা লেবুর খোসা দিয়ে তৈরি ফেস মাস্ক

নিমেষে উজ্জ্বল ত্বক পেতে ট্রাই করতে পারেন কমলালেবুর ফেস মাস্ক

উপকরণ

  • তিনটি কমলালেবুর খোসা
  • এক টেবিল চামচ টক দই
  • এক চা চামচ মধু

ব্যবহারবিধি

  • প্রথমেই খুব ভাল ভাবে কমলা লেবুর খোসাগুলি ধুয়ে নিন এবং ছোট ছোট টুকরো করে নিন। তিন-চার দিন রোদে শুকিয়ে নিন।
  • শুকিয়ে যাওয়া খোসাগুলি গুঁড়ো করে রাখুন। এয়ার টাইট কোনও কৌটোয় রাখবেন যাতে পরে আবার ব্যবহার করতে পারেন।
  • দুই চা চামচ কমলা লেবুর খোসার গুঁড়োর সঙ্গে টক দই ও মধু মিশিয়ে ফেস মাস্ক তৈরি করে নিন।
  • পরিষ্কার মুখে এই মাস্ক লাগিয়ে নিন। ২০ মিনিট পর ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন।

কোন ধরনের ত্বকের জন্য এই ফ্রুট ফেস মাস্ক উপযোগী – যে-কোনও ধরনের ত্বকের জন্যই এই ফ্রুট ফেস মাস্ক (fruit face mask) উপকারী। ট্যান তুলতে এবং ত্বক নিমেষে উজ্জ্বল করে তুলতে এই ফেস মাস্কের জুড়ি নেই।

ফল দিয়ে তৈরি ফেস মাস্ক ব্যবহার করার আগে মনে রাখুন এই বিষয়গুলি

১। কিছু কিছু ফল (fruits) যেমন শশা, টোম্যাটো বা লেবু জাতীয় ফল রসালো হয়। ফলে মুখে লাগানোর পর জলের মত পড়ে যেতে পারে। এই ধরনের ফল ফেস মাস্কে ব্যবহার করলে সঙ্গে এই ফলের খোসাও দিয়ে দিন। এতে জলীয় ভাব কমবে এবং ফেস মাস্ক মুখে লেগে থাকবে।

২। কিছু কিছু ফলে অনেকের অ্যালার্জি থাকে। বিশেষ করে যাঁদের সংবেদনশীল ত্বক, তাঁদের লেবু জাতীয় ফলে অনেক সময়ে অ্যালার্জি হয়। সেক্ষেত্রে অন্য কোনও ফল দিয়ে তৈরি ফেস মাস্ক লাগান।

৩। সব সময়ে পরিষ্কার মুখেই ফেস মাস্ক লাগাবেন। সম্ভব হলে স্ক্রাব করে নিন এবং তার পরেই ফল দিয়ে তৈরি ফেস মাস্ক লাগান।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!