home / রূপচর্চা ও বিউটি টিপস
ঘরোয়া পদ্ধতিতে হাঁটু ও কনুইয়ের কালচে ছোপ দূর করুন

ঘরোয়া পদ্ধতিতে হাঁটু ও কনুইয়ের কালচে ছোপ দূর করুন

আমাদের শরীরের নানা অংশের কালচে দাগ-ছোপ থাকার কারণে অনেকসময়েই আমরা আমাদের মনের মতো পোশাক পরতে পারি না, আর এই ধরনের কালচে দাগ-ছোপ বেশিরভাগ সময়েই হয় হাঁটুতে বা কনুইয়ের কাছে অথবা পায়ের গোড়ালির উপরে দেখা যায়। নানা ধরনের ক্রিম, লোশন ইত্যাদি ব্যবহার করার পরেও সেই নাছোড়বান্দা দাগ-ছোপ থেকে কিছুতেই মুক্তি পাওয়া যায় না। তবে আপনি কি কখনও এই কালচে দাগ দূর করার জন্য ঘরোয়া টোটকা ট্রাই করে দেখেছেন? না করলে, আজ যে ঘরোয়া টোটকাগুলোর কথা আমরা বলছি, সেগুলো ট্রাই করে দেখতে পারেন। নিয়মিত ব্যবহার করলে কিন্তু হাঁটু, কনুই অথবা গোড়ালির কালো দাগ দূর হবেই! (diy remedies to get rid of dark knees and elbows)

অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার

অ্যাপেল সাইডার ভিনিগারের অ্যাসিডিক কম্পাউন্ড অনেকটা ন্যাচারাল ব্লিচের কাজ করে। না, না, ঘাবড়ানোর দরকার নেই, আপনার হাঁটু, কনুই বা গোড়ালির চামড়া উঠে যাবে না। অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার ত্বক এক্সফোলিয়েট করে তার কালচে ভাব দূর করতে সাহায্য করে।

কীভাবে লাগাতে হবে: সমান পরিমাণে অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার এবং জল মিশিয়ে তাতে তুলোর বল ভিজিয়ে হাঁটু বা কনুই বা গোড়ালির যেখানে কালো দাগ-ছোপ আছে সেখানে লাগিয়ে নিন। মিনিটপনেরো পর জল দিয়ে ধুয়ে নিন।

কতদিন করতে হবে: সপ্তাহে তিন-চার বার করে মাসখানেক এই ঘরোয়া টোটকা প্রয়োগ করুন। ধীরে-ধীরে আপনি নিজেই তফাতটা বুঝতে পারবেন।

নারকেল তেল

নারকেল তেল শুধু চুলের স্বাস্থ্য ফেরাতেই নয়, ত্বকের ঔজ্বল্য বাড়ানোর জন্যও খুব উপকারী। তা ছাড়া ত্বককে পুষ্টি জোগাতে এবং ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে নারকেল তেলের কোনও তুলনা হয় না। ত্বকের নাছোড় কালচে দাগ যেগুলো বেশিরভাগ সময়েই হাঁটু, কনুই এবং গোড়ালিতে দেখা যায়, তা দূর করতেও নারকেল তেল খুবই কার্যকরী।

কীভাবে লাগাতে হবে: এক টেবিল চামচ অরগ্যানিক নারকেল তেলের সঙ্গে এক টেবিল চামচ আখরোট পাউডার মিশিয়ে একটা স্ক্রাব তৈরি করুন। স্নানের আগে ভাল করে ওই স্ক্রাব শরীরের যেখানে কালো দাগ আছে সেখানে ব্যবহার করুন। স্নান হয়ে গেলে প্রতিদিন হাঁটু, কনুই এবং গোড়ালিতে নারকোল তেল দিয়ে মালিশ করুন। (diy remedies to get rid of dark knees and elbows)

কত দিন করতে হবে: নারকোল তেল এবং আখরোট পাউডারের স্ক্রাব সপ্তাহে তিনবার ব্যবহার করুন।

অ্যালো ভেরা জেল

অ্যালো ভেরা জেল রূপচর্চায় বহুকাল ধরে ব্যবহৃত হচ্ছে। অ্যালো ভেরা জেল শুধুমাত্র ত্বকের দাগ-ছোপ দূর করতেই নয়, ত্বককে উজ্জ্বল এবং কোমল করে তুলতেও সাহায্য করে।

কীভাবে লাগাতে হবে: অনেকের কাছেই হয়তো শুনে থাকবেন বা কোথাও হয়তো পড়ে থাকবেন যে অ্যালো ভেরার পাতা কেটে নিয়ে তার থেকে জেল বের করে ত্বকে সরাসরি লাগান। কিন্তু ভুল করেও সেটি করবেন না! এতে ত্বকের অনেক ক্ষতি হতে পারে। ভাল কোনও অরগ্যানিক অ্যালো ভেরা জেল কিনে তা হাঁটু, কনুই বা গোড়ালিতে মালিশ করে নিন। মিনিটকুড়ি বাদে ঊষ্ণ জলে ধুয়ে ফেলুন।

কতদিন করতে হবে: দিনে অন্তত দু’বার অ্যালোভেরা জেল লাগাতে হবে যতদিন না পর্যন্ত মনের মতো ফল পাচ্ছেন।

আমন্ড অয়েল

আমন্ড অয়েল ভিটামিন ই-তে সমৃদ্ধ, যা ত্বকের ভিতরে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ত্বক ঠিক করে। শুধু তাই-ই না, ত্বক নরম এবং উজ্জ্বল করে তোলে। এমনকী, ত্বকের উপরে জমে থাকা মরা কোষের স্তরও দূর করে। কাজেই বুঝতেই পারছেন যে, ত্বকের কালচে ছোপ, বিশেষ করে হাঁটু বা কনুইয়ের কালো দাগ দূর করার ক্ষেত্রে আমন্ড অয়েল কতটা উপকারী!

কীভাবে লাগাতে হবে: কয়েক ফোঁটা আমন্ড অয়েল হাতের তালুতে নিয়ে ভাল করে যেখানে-যেখানে কালো দাগ রয়েছে, সেখানে মালিশ করুন। মালিশ ভাল করে করতে হবে, যাতে ত্বকের ভিতর পর্যন্ত তেল পৌঁছয়। (diy remedies to get rid of dark knees and elbows)

কত দিন করতে হবে: স্নানের আগে দিনে দু’বার করে এই ঘরোয়া টোটকা ট্রাই করতে থাকুন।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

25 Jan 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text