logo
Logo
User
home / বিবাহ
বিয়েতে (wedding) তো নয় বেনারসি পরলেন! কিন্তু আইবুড়োভাত-গায়ে হলুদে (haldi) কেমন সাজবেন (dress-makeup)?

বিয়েতে (wedding) তো নয় বেনারসি পরলেন! কিন্তু আইবুড়োভাত-গায়ে হলুদে (haldi) কেমন সাজবেন (dress-makeup)?

বিয়ের দিনের (wedding) সাজগোজ (dress-makeup) কেমন হবে, তা তো বহু দিন আগে থেকেই ঠিক করে রাখছেন। কিন্তু বিয়ের সন্ধেয় (wedding) তো নয় লাল বেনারসি-সোনার গয়না-শোলার মুকুট হল! কিন্তু বিয়ে (wedding) বা রিসেপশনের (reception) সন্ধে ছাড়াও আরও অনেক আচার-অনুষ্ঠান (wedding rituals) থাকে। যেমন- আইবুড়ো ভাত, বিদ্ধি, গায়ে হলুদ (haldi), বৌভাত বা ভাত-কাপড়ের অনুষ্ঠান। সেই সব অনুষ্ঠানের (wedding rituals) সাজগোজও কিন্তু একই ভাবে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ওয়েডিং ফোটোগ্রাফির এই যুগে পিকচার পারফেক্ট সব কিছু চাই! তাই বিয়ের সন্ধের (wedding) সাজগোজের (dress-makeup) সঙ্গে সঙ্গেই অন্য অনুষ্ঠানগুলোর সাজগোজের (dress-makeup) উপরও নজর দিতে হবে। এই নিয়েই বেশ ঝামেলায় পরেছিল আমার বন্ধু। বরাবরই একটু ল্যাদখাওয়া গোছের ও। তাই প্রথম দিকে বুঝতে পারেনি, তার পর তো বিয়ের দু’দিন আগে আমার কাছে এসে সে কী কান্নাকাটি! বিদ্ধি বা গায়ে হলুদের (haldi) জন্য আলাদা করে কিছু সাজগোজের (dress-makeup) প্ল্যান ওর নেই দেখে তো আমারও রীতিমতো মাথায় হাত! কিন্তু শেষ মুহূর্তে কোনও রকমে ব্যাপারটা সামলানো গিয়েছিল। তবে একটা কথা অবশ্যই মনে রাখতে হবে, সাজটা (dress-makeup) হওয়া উচিত একদম আপনার নিজের পছন্দ অনুযায়ী। আসুন দেখে নিই, বিয়ের (wedding) অন্যান্য আচার-অনুষ্ঠানে (wedding rituals) কনের (bride) সাজগোজ (dress-makeup) ঠিক কেমন হবে।

আরো পড়ুনঃ নজর কাড়া ব্রাইডাল মেকআপ টিপস

আইবুড়োভাত (aiburobhaat)

aiburobhaat-shubho

বাঙালি বিয়েতে আইবুড়োভাত তো খুবই ইম্পর্ট্য়ান্ট পার্ট। আজকাল তো বিয়ের ঢের আগে থেকেই মামার বাড়ি আইবুড়োভাত, পিসির বাড়ি আয়বুড়োভাত, বন্ধুর বাড়ি আইবুড়োভাত- এগুলো তো মাস্ট। কিন্তু ফাইনাল আইবুড়োভাত বিয়ের আগের দিন নিজের বাড়িতে। একেবারে পঞ্চব্য়ঞ্জন সাজিয়ে খেতে খাওয়ার পর্বটা তো পুরো জিভে জলআনা ব্যাপার! কিন্তু শুধু তো আর খাবারের থালা-বাটির ছবি উঠবে না, ছবি তো আপনারও উঠবে। তাই পঞ্চব্যঞ্জনে থালা সাজানোর মতোই আপনার সাজটাও কিন্তু খুবই ইম্পর্ট্যান্ট। এই দিন লাল-হলুদ ছাড়া অন্য কোনও ব্রাইট কালারের (সবুজ, নীল, ম্যাজেন্টা, গোলাপি, বেগুনি) শাড়ি পরুন। লাল-হলুদ এই কারণেই পরতে বারণ করব, কারণ লাল-হলুদ তো আপনি বিয়ের দিনই পরছেন। তবে লাল রং একান্তই পছন্দ হলে পরতেই পারেন। এর জন্য হালকা কাজের ঢাকাই-জামদানি বা তসর ট্রাই করে দেখতে পারেন। সঙ্গে কয়েকটা হালকা সোনার গয়না পরুন। আর মেকআপ হবে হালকা, টানা চোখ ভাল লাগলে অবশ্যই সে রকম মেকআপ নেবেন। আর চুলে খোঁপা বাঁধতে পারেন। খোঁপায় মরসুমি ফুলের মালা জড়ান। আর খোলা চুল রাখতে চাইলে এক সাইডে গোলাপ বা পছন্দমতো যে কোনও ফুল লাগিয়ে নিতে পারেন।

মেহেন্দি-সঙ্গীত (mehendi-sangeet)

bipasha-sangeet

অবাঙালিদের এই আচার-অনুষ্ঠান আজকাল বাঙালি ঘরানাতেও ঢুকে পড়েছে। বিয়ের আগের দিন বা আইবুড়োভাতের দিন সন্ধেবেলায় সাধারণত নাচ-গানের আসর বসে। সঙ্গে চলতে থাকে মেহেন্দি পরাও। এই অনুষ্ঠানে শাড়িটা নয় বাদ দিন। ঘাগরা-লেহেঙ্গা পরুন। মেখলাও ট্রাই করে দেখতে পারেন। যদি অন্য রকম কিছু পরার ইচ্ছে হয়, তা হলে ওয়েস্টার্ন গাউন পরুন। আর পোশাকের সঙ্গে মানানসই মেকআপ আর হেয়ারস্টাইল। তবে মেকআপ হালকার দিকে হলেই ভাল।

আরো পড়ুনঃ বিয়ের সবরকম আচার অনুষ্ঠানের জন্য সেরা বলিউড গান

বিদ্ধি-গায়ে হলুদ (haldi)

gaye-holoud-jewellery

এই দু’টোই বিয়ের দিন সকালের আচার। তাই দু’টো দু’রকম রঙের শাড়ি বাছুন। বিদ্ধির সময় লাল পাড়ের সাদা জমির শাড়ি আর গায়ে হলুদে হলুদ শাড়ি পরতে পারেন। তবে অনেক সময় অনেক বাড়ির নিয়ম থাকে গায়ে হলুদে লাল পাড় সাদা শাড়ি পরার। এই যেমন আমার বাড়িরও সে রকমই কিছু নিয়ম ছিল। কিন্তু আমি সেই নিয়ম ভেঙে বিদ্ধির সময়ই লাল-সাদা শাড়ি পরেছিলাম- লাল-সবুজ পাড় সাদা জমির শাড়ির উপর লাল-সবুজের ডুরে মাছের ডিজাইনের কাজে ফুলিয়ার তাঁত। আর গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে পরেছিলাম ম্যাজেন্টা পাড় হলুদ শাড়ি। সঙ্গে ম্যাজেন্টা থ্রি-কোয়ার্টার স্লিভ বোটনেক ব্লাউজ। আপনিও গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে হলুদ ঢাকাই-জামদানি বা হলুদ কটন-তাঁতের শাড়ি বেছে নিতে পারেন। আর হ্যাঁ, বিয়ের দিনে সকালের আচার-অনুষ্ঠানে মেকআপ কিন্তু একেবারেই হালকা হবে। বা মেকআপ না করে চোখের নীচের পাতায় একটু মোটা করে কাজল পরে নিতে পারেন। আর ঠোঁটে ন্যুড লিপস্টিক। হেয়ারস্টাইলও দু’রকম শাড়ির সঙ্গে মানানসই কিছু হতে পারে। যেমন, বিদ্ধির সময় চুল খোলাও রাখতে পারেন বা একটা আলগা খোঁপা করে নিলেন। আর আজকাল গায়ে হলুদ স্পেশ্যাল রেডিমেড আর্টিফিসিয়াল ফুলের গয়না বেশ ফ্যাশনে ইন। সোনার গয়না ছেড়ে গায়ে হলুদের সাজে সেগুলো ট্রাই করুন। আর যদি একটু অন্য রকম সাজ পছন্দ হয়, তা হলে হলুদ শাড়ির সঙ্গে ম্যাচ করে হলুদ গাঁদা ফুলের মালাও খোঁপায় জড়িয়ে নিতে পারেন। এতে খুবই ব্রাইট ছবি উঠবে।

বৌভাত বা ভাত-কাপড়ের অনুষ্ঠান (boubhaat)

বিয়ে-বিদায়ীর ধকল মেটার পরের দিন দুপুরে বৌভাতের অনুষ্ঠান। বিয়ের ধকল মিটে যাওয়ার পরে এই দিন অনেকটা ফ্রেশও লাগবে আপনাকে। ফলে ভাল করে সাজতেই পারেন। আর রিসেপশন যদি ওই দিনে না হয়ে পরের দিন হয়, তা হলে তো কথাই নেই। মন খুলে সাজুন। এক দম হালকা কাজের বেনারসি-বালুচরী, হালকা কাঞ্জিভরম বা একটু হালকা সিল্ক চলতে পারে। দামি ঢাকাই-জামদানিও খুব ভাল অপশন। সঙ্গে গয়নাগাঁটিও পরুন। আর রিসেপশন সে দিন বিকেলে না হলে একটু ভাল করে মেকআপ-হেয়ারস্টাইল ট্রাই করতে পারেন।

ছবি সৌজন্যে: পিন্টরেস্ট

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি এবং বাংলাতেও!

এগুলোও আপনি পড়তে পারেন

বিয়ের কনের জন্য মেহেন্দির ডিজাইন

18 Jan 2019

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text