home / লাইফস্টাইল
পুজোর সময় হজমের সমস্যা এড়াতে এখন থেকেই সতর্ক হন!

পুজোর সময় হজমের সমস্যা এড়াতে এখন থেকেই সতর্ক হন!

দুর্গাপুজোয় অনিয়ম হবে না, এই কথা যাঁরা বলেন, তাঁরা আদৌ সত্য়ি বলেন কি? তাছাড়া দুর্গাপুজো একটা উৎসব, সেই উৎসবে আনন্দ করার সময় অত নিয়ম বা অনিয়ম মাথায় রাখলে চলে না। তাতে আনন্দটাই মাটি। এর থেকে বরং, মন খুলে আনন্দ করা উচিত। ইচ্ছে মতো খাওয়াদাওয়া করা উচিত। কিন্তু তখন যেহেতু অনিয়ম হবেই, তাই আগে থেকে নিজের শরীরকে একটু প্রস্তুত করে রাখতে হবে তো। যাতে পুজোর সময় হজমের সমস্যা (improve digestion) না হয়। যা ইচ্ছে খেতে পারেন। তার জন্যই জীবনশৈলীতে সামান্য পরিবর্তন আনতে হবে এখন থেকেই। তাহলেই একমাত্র পুজোর সময় অনিয়ম করেও সুস্থ থাকা সম্ভব। হজমের সমস্যা এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব (improve digestion)।

স্বাভাবিক ও সঠিক ডায়েট (improve digestion)

দুর্গাপুজোয় খাওয়াদাওয়া নিয়ে অত ভাবলে চলে না। তাই পুজোর আগে একটু ডায়েটে নজর দিতেই হবে। আপনি কি সারাদিন সক্রিয় থাকেন, নাকি বেশিরভাগ সময় বসে কাজ করতে হয়? সেই অনুযায়ী আপনার ডায়েট ঠিক করতে হবে আপনাকে। খুব ভাল হয় যদি স্বাভাবিক ডায়েট বজায় রাখতে পারেন। ব্রেকফাস্ট থেকে শুরু করে ডিনার পর্যন্ত, স্বাস্থ্যকর খাবার খান। শারীরিক গতি কমে যাওয়ার কারণে খাবার হজমে সমস্যা হতে পারে। আর উল্টোপাল্টা খাবার খেলে অ্যাসিড রিফ্লাক্স ট্রিগার করবেই। যদি একান্তই জলখাবারে মুখরোচক কিছু খেতে ইচ্ছে করে, তবে তার একটা সময়সীমা বেঁধে নিন। সেই সময়েই প্রতিদিন টুকটাক খাবার খান। তবে হ্যাঁ, ফাস্ট ফুড বা জাঙ্ক ফুড খাবেন না। বাড়িতেই মুড়ি মেখে খেতে পারেন। কোনওদিন চিঁড়ের পোলাও বানিয়ে নিতে পারেন। সবজি খান। ফল খান। ফাইবার ও প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার বেশি করে খাবেন। আপনার ওজন ও উচ্চতার কথা মাথায় রেখে ক্যালোরি গ্রহণ করুন।

পর্যাপ্ত পরিমাণে জল

ভাল থাকার গোড়ার কথাই হল হাইড্রেটেড থাকা। সারাদিনে পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খান। খাবার হজমে সাহায্য় করে জল। কম পরিমাণে জল খেলেই অ্যাসিডিটি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে বেশি। তাই প্রতিদিন নিয়ম করে যথেষ্ট পরিমাণে জল খান। এতে আপনার গাট-এর স্বাস্থ্য ভাল থাকবে। খাবার ঠিকঠাক হজম হবে। ব্লোটিং, কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যা থাকবে না। পুজোর সময় আনন্দ করে খাবার খেতে পারবেন।

হাইড্রেটেড থাকুন

ব্যায়াম করতে হবে (improve digestion)

না ওজন কমানোর জন্য ব্যায়াম করতে হবে না (improve digestion) । শরীরকে ফিট রাখার জন্য ব্যায়াম করতে হবে। যাতে শরীরের প্রতিটি পেশি সক্রিয় থাকে। রক্ত সঞ্চালন ঠিক ঠাক হয়। পেশীর জোর বাড়ে। নিজের জন্য অন্তত আধ ঘণ্টা সময় বের করুন। সেই সময় ব্যায়াম করুন। হাঁটা বা সাইকেল চালানোর মতো ব্যায়ামও করতে পারেন। শরীর ভাল থাকবে। হজম ঠিকঠাক (improve digestion) হবে।

নিয়মিত ব্যায়াম করুন

সঠিক ঘুম প্রয়োজন

শুতে যাওয়ার অন্তত আধ ঘণ্টা আগে (পারলে ১ ঘণ্টা) মোবাইলটাকে বিরতি দিন। বই পড়তে পারেন। গানও শুনতে পারেন। খেয়ে উঠে আধ ঘণ্টা হাঁটা অভ্যাস করুন। তারপর শুতে যান। মোবাইলকে দূরে রাখুন। সঠিক ঘুম না হলে খাবার হজমে সমস্যা হতে পারে। তাই যেদিন ঘুম কম হয়, সেদিন সকাল থেকেই গ্যাস ও অ্যাসিডিটির মতো সমস্যা হতে থাকে। প্রতি রাতে পর্যাপ্ত ঘুম আপনার প্রয়োজন।

পুজোর আগে কয়েকদিন জীবনশৈলী (improve digestion) একদম বদলে ফেলুন। শরীরকে ভালবাসলে শরীরও আপনাকে ভালবাসবে। দেখবেন অসুখ হওয়া অনেক কমে যাবে। পুজোর সময় হজমের সমস্যা হবে না আশা করা যায়। প্রাণময় আনন্দ করা যাবে।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজিহিন্দিমারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

25 Sep 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text