home / ওয়েলনেস
এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিল খাওয়ার আগে সবটা জানুন

এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিল খাওয়ার আগে সবটা জানুন

অনেকেই আছেন যারা অবাঞ্ছিত প্রেগনেন্সি এড়াতে এমেরজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিলস খান। বাজারে নানা ব্র্যান্ডের এই ধরনের পিল পাওয়া যায়। অনেক সময়ে ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়াই কিন্তু আমরা এই পিলের শরণাপন্ন হয়ে থাকি। এই এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিলস কি। কখন এই পিলস খাওয়া উচিত। এর কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কিনা। কাদের এই ধরনের পিলস একেবারেই খাওয়া উচিত না – এসব প্রশ্নের সঠিক উত্তর কিন্তু আমরা অনেকেই জানিনা। (emergency contraceptive pills and side effects)

এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিলস কী?

এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিলস হল এমন একটা ওরাল মেডিকেশন যা কোন মহিলাকে অবাঞ্ছিত প্রেগনেন্সি থেকে মুক্তি দেয়। সাধারনত এই পিলগুলিকে ‘মর্নিং আফটার পিল’ বা ‘ডে আফটার পিল’ বলা হয়ে থাকে।

যখন কোন মহিলা প্রোটেকশন ছাড়া সেক্স করেন এবং তিনি প্রেগনেন্সি চান না, তখন এই পিলগুলি খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। কিন্তু সব সময়ে মনে রাখা উচিত যে এই ধরনের ওষুধ নিয়মিতভাবে একেবারেই খাওয়া উচিত নয়।

কত ধরণের হয় এই পিল?

কম্বিনেশন পিলস  – এই ধরনের ওষুধ সারভাইক্যাল মিউকাস ঘন করে দেয়। ফলে স্পারম ইউটেরাস পর্যন্ত পৌঁছতে পারে না। আর প্রেগনেন্সির সম্ভাবনা কমে যায়। এস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টিন – দু’ধরনের কম্পাউন্ডই এই পিলে থাকে। (emergency contraceptive pills and side effects)

মিনি পিলস – নর্মাল যেকোনো কন্ট্রাসেপ্টিভ পিলস-এর মতো এই মিনি পিল গুলিও ওভাল্যুশন প্রসেসকে থামিয়ে দেয়। এতে স্পারম ইউটেরাসের ভেতর দিয়ে এগ পর্যন্ত পৌঁছতে না পারে। তবে এই পিল গুলিতে এস্ট্রোজেন থাকেনা তাই এগুলি কম্বিনেশনের পিলস-এর তুলনায় সেফ।

এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিল খেলে কি প্রেগন্যান্সিতে সমস্যা আসতে পারে?

অনেকসময়েই অনেক ডাক্তার অবাঞ্ছিত প্রেগনেন্সি রোধ করতে এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিলস খাওয়ার পরামর্শ দেন। তবে নামেই বলা আছে যে এটি তখনই খাওয়া উচিত যখন আর কোন উপায় থাকে না। তাই নিয়মিতভাবে এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিলস খাওয়াটা স্বাস্থ্যকর না।

নিয়মিতভাবে এই ধরনের ওষুধ খেলে শরীরে হরমোনাল চেঞ্জ আসতে পারে। ফলে পরবর্তীকালে প্রেগনেন্সিতে সমস্যা আসতে পারে। অনেক সময়ে প্রেগনেন্সি এলেও তাতে কমপ্লিকেশন দেখা দিতে পারে। (emergency contraceptive pills and side effects)

এর কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে?

অনিয়মিত পিরিয়ড

অতিরিক্ত রক্তপাত

ঝিমুনি

বমিভাব

ক্লান্তি

এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কতদিন শরীরে প্রভাব ফেলতে পারে?

এটা সম্পূর্ণভাবে যিনি এই ওষুধ খাচ্ছেন তার শারীরিক অবস্থার ওপরে নির্ভর করে। একজন ভালো গাইনির সাথে পরামর্শ করা সবসময়ে সেফ।

বহুদিন ধরে যদি এই পিলস নেওয়া হয় তাহলে কি তার কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়?

অবশ্যই। যদি বহুদিন ধরে যদি এই পিলস নেওয়া হয় তাহলে শরীরে তার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে অতিরিক্ত মেদ জমা, শ্বাসকষ্ট, হরমোনের ভারসাম্যতা বজায় না থাকা, ব্লাড প্রেশার ফ্ল্যাকচুয়েট করা, এমনকি ওভারিতে সিস্টও হতে পারে। (emergency contraceptive pills and side effects)

কাদের এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিলস খাওয়া একদম উচিত নয়?

যারা PCOD, উচ্চ রক্তচাপ, অবসাদ এবং সিস্টের সমস্যায় ভুগছেন, তাদের একেবারেই এমারজেন্সি কন্ট্রাসেপ্টিভ পিলস নেওয়া উচিত না।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

20 Aug 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text