logo
Logo
User
home / ঘরের সাজসজ্জা
সাবেকী ছোঁয়ায় কীভাবে সাজিয়ে তুলবেন আপনার অন্দর

সাবেকী ছোঁয়ায় কীভাবে সাজিয়ে তুলবেন আপনার অন্দর

রোহিনীদের বাড়িতে ঢুকলেই যেন মনটা অন্যরকম হয়ে যায়। কি সুন্দর করে সাজানো ওদের লিভিংরুমটা, বেশ একটা সাবেকিয়ানার ছোঁয়া রয়েছে ওদের প্রতিটি আসবাব এবং ঘর সাজানোর জিনিসে। এত সুন্দর করে রুচিশীলভাবে কীভাবে ওরা ঘর সাজায় (সেটা একদিন রোহিনীকে জিজ্ঞেস করাতে ও বলেছিলো যে এটা ওর মায়ের শখ। তারপরে কাকিমার থেকে বেশ অনেকগুলো ছোট ছোট টিপস (ethnic style interior design ideas) পেয়েছিলাম, যেগুলোকে কাজে লাগিয়ে আমিও আমার বাড়িটা সাজিয়েছি। আপনারাও জানতে চান? এখুনি বলছি কীভাবে রুচিসম্মতভাবে ঘর সাজাবেন।

সাবেকিয়ানার ছোঁয়ায় রুচিশীলভাবে ঘর সাজানোর টিপস

১। আসবাব: যেকোন বাড়ির অন্দরসজ্জার ক্ষেত্রে আসবাব  একটা বড় ভূমিকা পালন করে। বাড়ির মালিকের এবং অন্যান্য সদস্যদের রুচিবোধ, সেই বাড়িটি কীভাবে সাজানো, তার ওপরে অনেকখানিই নির্ভর করে। আপনার যদি সাবেকি স্টাইল বেশি পছন্দ হয় এবং আপনার বাড়ির অন্দরসজ্জায় আপনি সাবেকি ছোঁয়া রাখতে চান, তাহলে সাবেকি ডিজাইনের আসবাব দিয়ে ঘর সাজান। যেমন ধরুন, বসার ঘরে সোফার বদলে বেতের চেয়ার রাখলেন কিংবা কাঠের কারুকাজ করা যদি-আঁটা সোফা রাখতে পারেন।

২। চাদর-কুশন-পর্দা: যখন আপনি বিছানার চাদর কিনবেন, চেষ্টা করুন খেশ কিংবা খাদির ফ্যাব্রিকের চাদর কিনতে। এগুলোতে বেশ একটা ভারতীয় সংস্কৃতির (ethnic style interior design ideas) ছোঁয়া আছে। লিনেন কিংবা সিনথেটিক ফ্যাব্রিক ব্যবহার না করে খাদির বেডস্প্রেড কিংবা কুশনের ঢাকা ব্যাবহার করুন। চাদরে বা কুশন কভারে যদি কিছু আঁকা-জোঁকা করা থাকে, চেষ্টা করবেন সেগুলোও যেন আপনার রুচিকে প্রকাশ করে।

অনেকগুলো রং নিয়ে এক সঙ্গে খেলতে পারেন

৩। ওয়াল আর্ট: আজকাল দেওয়ালে নানা ডিজাইনের রং করানোটা বেশ ফ্যাশন। কিন্তু আপনি যদি একটু অন্যরকমভাবে বাড়ি সাজাতে চান, তাহলে বিভিন্ন ডিজাইনে ঘরের দেওয়াল রং না করিয়ে সনাতনী কোনও ওয়াল আর্ট টাঙিয়ে দিন। খুব সুন্দর সুন্দর দেখতে মধুবনী আর্ট কিংবা ট্রাইবাল ডিজাইনের ছবি পাওয়া যায়। একটু খোঁজ নিয়ে দেখুন যে আপনার বাড়ির আসে-পাশেই হয়তো কোনো দোকানে যেখানে বাড়ি সাজানোর সরঞ্জাম পাওয়া যায়, সেখানে এইসব ওয়াল আর্টগুলি পাওয়া যায়। আর তা যদি না পাওয়া যায়, তাতেও কোনো সমস্যা নেই, যেকোন হস্তশিল্প মেলাতে আপনি অনায়াসে এই ধরণের সাবেকি ডিজাইনের ওয়াল আর্ট পেয়ে যাবেন।

৪। কার্পেট এবং টেবল রানার: মেঝেতে কার্পেট পাতলে চেষ্টা করুন ভারতীয় ডিজাইনের কিছু নকশা করা কার্পেট পাতার। সুন্দর সুন্দর জয়পুরি কার্পেট (ethnic style interior design ideas) পাওয়া যায়। সেগুলোর থেকে আপনার পছন্দমতো একটা কিনে পেতে ফেলুন। খাবার টেবিলে প্লাস্টিকের টেবিল ক্লথ না পেতে কটনের সুন্দর কলকা করা টেবিল ক্লথ পাতুন, এতে একটা ভারতীয় ঐতিহ্য রয়েছে।

ঠাকুরের আসন হোক ছিমছাম

৫। ছোট্ট ঠাকুরঘর: আমরা ভারতীয়রা একটু বেশিই ঠাকুরবক্ত হই। আপনার বাড়িতে ঢোকার মুখেই যদি একটা ছোট করে ঠাকুরের জায়গা তৈরী করেন, তাহলে দেখাতেও ভাল লাগে আর আপনার বাড়িতে নাকি সুখ-সমৃদ্ধিরও এবং ঘটে (বাস্তু মতে অন্তত তাই বলা হয়)। যদি আসন রাখার জায়গার অভাব হয়, তাহলে আপনি একটা ছবিও রাখতে পারেন। খুব সুন্দর সুন্দর ক্যানভাসের ছবি পাওয়া যায়। আপনি দোকানে গিয়েও কিনতে পারেন, আবার বাড়ি বসে অনলাইনেও কিনে নিতে পারেন। এতে বেশ একটা সাবেকি ভাব দেখা যায়।

৬। পার্টিশন: আপনার যদি ফ্ল্যাট হয় এবং সেখানে ডাইনিং আর লিভিং রুম একই জায়গায় হয় তাহলে একটা মাদুরের তৈরী পার্টিশন দিয়ে দু’টো জায়গা আলাদা করতে পারেন। এতে বাইরের লোক এলে সে একেবারে আপনার অন্দরমহলে (ethnic style interior design ideas) ঢুকে পরতে পারেনা আবার অন্যদিকে মাদুরের পার্টিশনের জন্য সাবেকি ছোঁয়াও থাকে অন্দরসজ্জায়

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

23 Feb 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text