Advertisement

বিনোদন

তাড়াহুড়োতে NRC-CAA নিয়ে নিজের টুইটে ভারতের ভুল মানচিত্র পোস্ট করে ফেললেন ফারহান আখতার!

Parama SenParama Sen  |  Dec 18, 2019
তাড়াহুড়োতে NRC-CAA নিয়ে নিজের টুইটে ভারতের ভুল মানচিত্র পোস্ট করে ফেললেন ফারহান আখতার!

Advertisement

লাও ঠেলা, এই জন্যই ছোটবেলা থেকে বড়রা শিখিয়ে এসেছেন যে, কোনও কাজ তাড়াহুড়ো করে করতে নেই। আর সেখানে পরিচালক, থুড়ি ওটা উনি আগে ছিলেন, এখন অভিনেতা ফারহান আখতার দুম করে এই ভরা NRC-CAA-র বাজারে একখানা এমন টুইট করে বসলেন যে, সেটা দেখেই সকলের চোখ কপালে উঠেছে! একে তো NRC-CAA নিয়ে বলিউড কেন মুখে কুলুপ এঁটে আছে, কই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সেলফি তুলে নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতে তো তাঁদের একটুও দেরি হয় না? তা হলে এই জ্বলজ্বলে ইসুটি, যেটা নিয়ে তামাম ভারতে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে, সেটা নিয়ে তাঁরা চুপটি করে বসে আছেন কেন?

নাঃ, সক্কলে মোটেও চুপ করে নেই। এই তো অক্ষয়কুমার একটা ভুলভাল পোস্টে লাইক দিয়ে ফেলেছিলেন, পরে আবার ক্ষমা-টমা চেয়ে নিয়েছেন সেটা ঢাকতে। সেটার থেকে লোকের নজর ফেরাতে আবার তাঁর বউ টুইঙ্কল খন্নাও কী যেন একটা না রাম-না গঙ্গা টাইপের পোস্ট করেছেন। কিন্তু বাকি প্রথম সারির নায়ক-নায়িকারা সকলেই চুপ। তাঁরা সেজেগুজে অ্যাওয়ার্ড ফাংশনে যাচ্ছেন, রেড কার্পেটে কান এঁটো করে হাসছেন, কিন্তু NRC-CAA নিয়ে কিচ্ছুটি বলছেন না।

এই খালি বাজারে ফায়দা তুলতে নেমে পড়েছিলেন ফারহান আখতার (Farhan Akhter)। তিনি ঘটাপটা করে একটি টুইট (Tweet) করেছিলেন, টুইটটা ভারী প্যাঁচালো, আমরা কিছুই বুঝতে পারিনি, বিশ্বাস করুন। কিন্তু সেটিতে তিনি ভারতের একটি মানচিত্র ব্যবহার করেন, যেটি ভুলভাল। বোঝো, যাও বা কেউ একটা করল, তা-ও ভুল। এসব দেখলে প্রতিবেশীরা হাসবে না? আগে সেই যুগান্তকারী টুইটটি দেখে নিন, তারপর বাকি কথা বলছি।

কিছু মাথায় ঢুকল? ১৯ তারিখে মুম্বইয়ে হওয়া একটি প্রতিবাদ সভায় সকলকে দলে-দলে যোগ দিতে বলেছেন তিনি। তা ভাল, আমরা বাঙালিরা ছোট থেকেই ‘দলে দলে যোওগ দিন’ স্লোগান শুনে বড় হয়েছি, ব্রিগেড-প্যারেড গ্রাউন্ডে মিটিন আমাদের মজ্জায়-মজ্জায় আছে, কাজেই ওসব সভা-টভা শুনলে আমাদের খুব একটা রক্ত গরম হয় না। কিন্তু মজার হচ্ছে, এই জ্বালাময়ী টুইটে ফারহান বাবু ভারতের যে মানচিত্রটি ব্যবহার করেছেন, সেটি মন দিয়ে দেখুন তো…কাশ্মীর রাজ্যটি কেমন সুন্দর করে ভাগ-বাঁটোয়ারা করে দিয়েছেন, দেখেছেন কি? জানি, আপনি বলবেন, সেলেব্রিটিরা তো আর নিজেরা সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেরা সব লেখেন-টেখেন না, লেখেন তাঁদের টিম। তা টিম দোষ করলে তাঁরা কী করবেন? দেখুন বাপু, পোস্ট যখন আপনার টুইটার হ্যান্ডল থেকে হয়েছে, তখন তাঁর দায়ও আপনার। ফারহান নিজেও সেকথা বিলক্ষণ জানেন। তাই পরে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছেন সর্বসমক্ষে, সেই টুইট করেই…

নিন্দুকে বলছে, ক্ষমা চাইলেই তো আর দোষ কম হয়ে যায় না। এত স্পর্শকাতর একটি ব্যাপার নিয়ে ফারহান কী করে এমন একটি টুইট নিজে না দেখে ছেড়ে দিলেন? বলিউডে তো তার বিচক্ষণ লোক বলেই সুনাম ছিল। অবশ্য নিন্দুকে বলছে, বিচক্ষণতা আবার কি? যিনি এত বছরের দাম্পত্যে দাঁড়ি টেনে তারপর আজ শ্রদ্ধা, কাল শিবানী করে বেড়ান, তাঁর কাছ থেকে আর কী-ই বা আশা করা যেতে পারে? 

ফারহানের উদ্দেশ্যে আমাদের বক্তব্য, আপনি টুইট করুন, প্রাণ ভরে করুন, কিন্তু দয়া করে বাজারে ছাড়ার আগে নিজে একবার চক্ষুকর্ণের বিবাদভঞ্জন করে নেবেন প্লিজ।

এই দশকটি আমরা শেষ করতে চলেছি #POPxoLucky2020-র মাধ্যমে। যেখানে আপনারা প্রতিদিন পাবেন নতুন-নতুন সারপ্রাইজ। আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম…আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার আগামী বছরটা POPup করে ফেলুন!