logo
Logo
User
home / ফ্যাশন
মিটিং-এ কিভাবে যাবেন, রইল এক ডজন ফ্যাশন টিপস

মিটিং-এ কিভাবে যাবেন, রইল এক ডজন ফ্যাশন টিপস

আচ্ছা, এমন কি কখনো হয়েছে যে সারা আলমারি খুঁজেও একটা মনের মতো পোশাক খুঁজে পাননি যেটা পরে আপনি মিটিং-এ (fashion tips for business and casual meetings) যেতে পারেন? আমার সঙ্গে বহুবার হয়েছে। এমনকি আমার কেরিয়ারের প্রথমদিকে একবার একটা ক্লায়েন্ট মিটিং-এ আমি রিপড জিনস-টিশার্ট আর ক্যাসুয়াল স্লিপার পরে চলে গেছিলাম। প্রোজেক্টটা যদিও পেয়েছিলাম কিন্তু সেই সঙ্গে বসের কাছেও প্রচুর বকা জুটেছিল কপালে! ভুল করতে করতেই মানুষ শেখে আর আমিও সেভাবেই শিখেছি। সেজন্য আজ ভাবলাম কয়েকটা ড্রেসিং টিপস আপনাদের সঙ্গেও শেয়ার করে নি, যাতে আপনারাও আমার মতো ভুল পোশাক পরে মিটিং-এ চলে না যান 

যখন ক্যাসুয়াল মিটিং-এ যাবেন

ক্যাসুয়াল বিজনেস মিটিং-এর জন্য রেডি হওয়াটা সত্যিই খুব চাপের ব্যাপার। মানে, ঠিক বোঝা যায়না যে কি পরব, কীরকম সাজব যাতে আত্মবিশ্বাসীও লাগে আবার দেখতেও জবরজং না লাগে! জিনস পরা উচিত, নাকি ট্রাউজার; টপ পরা উচিত নাকি কুর্তি; নাকি কোন ক্যাসুয়াল ড্রেস পরে যাওয়া উচিত – এসব ভাবতে ভাবতেই সময় চলে যায়। কয়েকটা টিপস দিলাম, দেখুন হয়তো কাজে লাগতে পারে –

১। অতিরিক্ত কারুকার্য করা  টপ না পরাই ভাল। শিফন শার্ট, প্যাটারন্ড ব্লাউজ অথবা কুর্তি পরতে পারেন ক্যাসুয়াল মিটিং-এর জন্য। টেক্সট লেখা কোন টিশার্ট না পরাই ভাল।

২। রিপড জিনস তো ভুলেও পরবেন না। আপনি চাইলে চিনোস, জিনস কিংবা বুটকাট স্ট্রেট প্যান্টস পরতে পারেন ক্যাসুয়াল মিটিং-এ যাবার জন্য।

৩। যদি ড্রেস পরেন, তাহলে এ-লাইনার ড্রেস পরুন এবং চেষ্টা করুন প্যাস্টেল শেডের ড্রেস পরতে। সিক্যুনের কাজ করা কিংবা স্লিভলেস ড্রেস এরিয়ে যাওয়াই ভাল। যদি একান্তই স্লিভলেস পরতে হয় তাহলে ওপরে একটা হালকা স্টোল কিংবা শ্রাগ চাপিয়ে নিন।

৪। পাম্পশ্যু, বুটি, ফ্ল্যাট জুতো, ব্যালেরিনা এমনকি লোফারসও পরতে পারেন এই ধরনের অকেশনে। যদি হিলস পরতে ভালবাসেন তাহলে হিলস পরতে পারেন কিন্তু খেয়াল রাখবেন টা যেন ৪ ইঞ্চির বেশি না হয়। ঘরে পরার চটি কিংবা স্লিপারস পরবেন না।

৫। হালকা গয়না পরতে পারেন যেমন গলায় একটা সরু চেন কিংবা হাতে একটা সরু ব্রেসলেট, কিন্তু কখনই ওভারডু করা উচিত না।

যখন ফর্মাল মিটিং-এ যাবেন

যে-কোনও ফর্মাল বিজনেস মিটিং-এর জন্য সব রকম প্রস্তুতির সঙ্গে সঙ্গে কিন্তু স্মার্টলি ড্রেস করাটাও খুব গুরুত্বপূর্ণ। আপনি বাড়িতে জেরকম পোশাক পরেন সেরকম পোশাক যে ফর্মাল বিজনেস মিটিং-এর জন্য পরবেন না সেটা তো জানা কথাই, কিন্তু অফিসে রোজ যা পরে যান সেরকমভাবেও কিন্তু ড্রেস করলে হবে না এই অকেশনের জন্য। তাহলে কীভাবে পোশাক নির্বাচন করবেন সেটাই ভাবছেন তো? দেখে নিন এই টিপস কটা –

১। সুতি কিংবা লিনেনের ফর্মাল শার্ট এই ধরনের মিটিং-এর জন্য আদর্শ। চেষ্টা করুন কুর্তি না পরতে। যদি আপনি শাড়িতে স্বচ্ছন্দ হন তাহলে শাড়ির সঙ্গে কিন্তু সিম্পল ডিজাইনের ব্লাউজ পরুন। স্লিভলেস কিংবা অতিরিক্ত কাজ করা ব্লাউজ একেবারেই পরবেন না।

২। সিনথেটিক, মোটা সুতির কাপড় এবং ডেনিম-এর ফ্যাব্রিক বাদে যেকোন ফ্যাব্রিকের ট্রাউজার পরতে পারেন। যদি আপনি স্কারট পরতে চান, তাহলে তা যেন আপনার হাঁটু থেকে চার আঙুলের বেশি ওপরে না যায়। আর স্কারট পরলে সবসময়ে স্টকিংস দিয়ে পরুন।

৩। ফর্মাল শ্যু বা পাম্পশ্যু পরুন ফর্মাল বিজনেস মিটিং-এর জন্য।

৪। অতিরিক্ত টাইট কিংবা ঢিলে জামাকাপড় পরবেন না। দেখতে তো খারাপ লাগবেই, তাছাড়া আপনিও ঠিক স্বচ্ছন্দ হতে পারবেন না।

৫। মিটিং-এ যাচ্ছেন, র‍্যাম্পে হাঁটতে নয় – এই কথাটা মাথায় রেখে মেকআপ করুন। যদি মেকআপ করার সময় না থাকে তাহলে শুধু কাজল আর লিপগ্লস লাগিয়ে নিন।

৬। দামী না হলেও ভাল কয়ালিটির হ্যান্ডব্যাগ রাখুন। কারণ, মিটিং-এ গিয়ে যদি ব্যাগের হাতল খুলে যায় কিংবা জিপ ছিঁড়ে যায়, সেটা কিন্তু আপনাকে অপ্রস্তুতিতে ফেলার জন্য যথেষ্ট।

৭। সব সময় সঙ্গে একজোড়া এক্সট্রা জুতো রাখুন। যদি কখনো রাস্তায় জুতো ছিঁড়ে যায় কিংবা জুতোর হিল ভেঙ্গে যায় তাহলে ওই অতিরিক্ত জুতোজোড়া কাজে লাগবে। জুতোর সঙ্গে একটা এক্সট্রা জামাও রাখা ভাল, বলা যায়না কখন দরকার পড়তে পারে!

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

11 Apr 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text