home / রূপচর্চা ও বিউটি টিপস
অতিরিক্ত মেকআপ ত্বকেরই না, করতে পারে শরীরেও ক্ষতি

অতিরিক্ত মেকআপ ত্বকেরই না, করতে পারে শরীরেও ক্ষতি

সেলফি, ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামের দখলে আমাদের জীবন।  প্রতিনিয়ত নিজেকে সুন্দর ভাবে পরিবেশন করার দৌড়ে সবাই যে এগিয়ে থাকতে চায়। কিন্তু সমস্যাটা হল নিজেকে রূপসী করে তুলতে অনেকেই নানা মেকআপ ব্যবহার করেন। আর এই মেকআপে থাকা কিছু উপকরণ স্কিনের মারাত্মক ক্ষতি করে দিতে পারে। শুধু তাই নয়, নানা শারীরিক সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও বেড়ে যেতে পারে। যেমন (harmful effects of makeup)

অ্যালার্জি বেড়ে যেতে পারে

অপরিষ্কার মেকআপ থেকে হতে পারে অ্যালার্জির মত সমস্যা

কসমেটিক্সে যাতে ব্য়াকটেরিয়াল গ্রোথ হতে না হয়, তা সুনিশ্চিত করতে অনেক ক্ষেত্রেই নানা কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয়। যেমন, ইথাইল-প্যারাবেন, বিউটিল-প্যারাবেন এবং আইসোপ্রপিল-প্যারাবেন ইত্যাদি। এগুলো থেকে যে কোনও সময়ে মারাত্মক অ্যালার্জি হতে পারে। সেই সঙ্গে লেজুড় হতে পারে স্কিন ইরিটেশন এবং ফোসকা পড়ার মতো সমস্যাও। তবে এখানেই শেষ নয়, বহু প্রসাধনীতেই সেলিকাইলেট নামক একটি উপাদানও থাকে। এর থেকেও অ্যালার্জি হতে পারে। তাই বেশি মাত্রায় মেকআপ করাটা কিন্তু আপনার জন্য সমস্যাদায়ক হতে পারে। (harmful effects of makeup)

চুলের নানা সমস্যা হতে পারে

চুলের সৌন্দর্য বাড়াতে অনেকেই নিয়মিত হেয়ার জেল, হেয়ার সিরাম, কন্ডিশনার এবং নানা রকমের শ্যাম্পু ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু জানা আছে কি এই সব প্রসাধনীতে অনেক ক্ষেত্রেই নানা কেমিক্যাল রয়েছে! এগুলো অল্প কিছু সময়ের জন্য চুলের সৌন্দর্য বাড়ায় ঠিকই। তবে দীর্ঘমেয়াদি ব্যবহারের কারণে চুলের ক্ষতি হয়ে যায় এবং হেয়ার ফলের মাত্রা বাড়তে শুরু করে। সেই সঙ্গে লেজুড় হয় খুশকি এবং চুলকানিও। তাই এবার সিদ্ধান্ত আপনার, চুলের সৌন্দর্য বাড়াতে গিয়ে চুলেরই ক্ষতি করতে চান, নাকি…!

অসময়ে ত্বক বুড়িয়ে যায়

অতিরিক্ত মেকআপ ত্বকের বয়স বাড়িয়ে দেয় চতুর্গুণ

একথা একদম ঠিক যে যত বেশি মেকআপ করবেন, তত তাড়াতাড়ি ত্বক বুড়িয়ে যাবে। কারণ দীর্ঘ সময় ধরে কেমিক্যালযুক্ত কসমেটিক্স ব্যবহার স্বাভাবিক ভাবেই ত্বকের ক্ষতি করে। ফলে বলিরেখা প্রকাশ পেতে শুরু করে। সেই সঙ্গে ত্বকের ইলাস্টিসিটি কমে যায় এবং অসময়েই ত্বক বুড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা যায় বেড়ে। তাই যদি প্রকৃত অর্থে সুন্দরী হয়ে উঠতে চান, তাহলে চুল এবং ত্বকের পরচর্যায় কসমেটিক্সের পরিবর্তে প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করা শুরু করুন। দেখবেন উপকার পাবেন একেবারে হাতে-নাতে! (harmful effects of makeup)

প্রায়ই মাথা ব্যথা হয় কি?

নানাবিধ কসমেটিক্সে উপস্থিত ডায়াজোলিডিনায়েল ইউরিয়া এবং ডিএমডিএম হাইডেনশন নামক কেমিক্যাল থাকে। এগুলি ত্বকের ভিতরে বারে বারে প্রবেশ করতে করতে একদিকে যেমন বারে বারে মাথা যন্ত্রণা হওয়ার মতো সমস্যার পথকে প্রশস্ত করে, তেমনি চোখের মারাত্মক ক্ষতি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কাও থাকে। সেই সঙ্গে চোখের সংক্রমণের মতো রোগও হতে পারে। তাই কথায় কথায় মেকআপ করার প্রবণতা না ছাড়লে কিন্তু বিপদ!

দেখা দিতে পারে বন্ধ্যাত্বের সমস্যাও

একেবারে ঠিক পড়েছেন! বাস্তবিকই ইনফার্টিলিটি বা বন্ধ্যাত্বের মতো সমস্যার সঙ্গে মেকআপের এক গভীর যোগ রয়েছে বলে দাবী অনেক বিশেষজ্ঞের। আসলে যখন মেকআপ করা হয়, তখন তাতে উপস্থিত প্রতিটি কেমিকেল শরীরের ভিতরে প্রবেশ করার সুযোগ পয়ে যায়। আর এক স্টাডিতে দেখা গেছে বেশ কিছু কসমেটিক্সে উপস্থিত বিউটিল প্যারাবেন নামক উপাদান, শরীরে প্রবেশ করা মাত্র দেহের ভিতরে এমন কিছু পরিবর্তন করতে শুরু করে দেয় যে তার প্রভাবে বন্ধাত্যের মতো সমস্যা মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার আশঙ্কা যায় বেড়ে। তাই এই বিষয়টি মাথায় রাখা একান্ত প্রয়োজন। শুধু তাই নয়, যে কোনও প্রসাধনী কেনার আগে দেখে নেওয়া উচিত তাতে এমন কোনও উপাদান নেই তো, যা শরীরের ক্ষতি (harmful effects of makeup) করতে পারে।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

16 Aug 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text