home / Diet
সুস্থ থাকতে নতুন বছরেও মেনে চলুন পুরনো হেলথ ট্রেন্ড

সুস্থ থাকতে নতুন বছরেও মেনে চলুন পুরনো হেলথ ট্রেন্ড

গত দশ বছরে বিশেষ কয়েকটি ডায়েট এবং এক্সারসাইজ বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল, যা নাকি শরীরকে সুস্থ রাখতে বিশেষ ভূমিকা নিয়ে থাকে। তাই তো নতুন বছরেও সেই একই নিয়ম-নীতিগুলি মেনে চলার পরামর্শ দিচ্ছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। এই অভ্যেসগুলির সঙ্গে ধাতস্থ হতে পারলে হার্টের রোগ ধারেকাছেও ঘেঁষতে পারবে না। সঙ্গে শরীর বিষমুক্ত থাকবে। ফলে একাধিক জটিল রোগের খপ্পরে পড়়ার আশঙ্কাও কমবে। (healthy trends to follow in 2022)

বিশেষ করে শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলির ক্ষমতা কমে যাওয়ার আশঙ্কা আর থাকবে না। সঙ্গে শরীরের ভিতরে প্রদাহের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকার কারণে বহু রোগ-ব্যাধিও ধারে কাছে ঘেঁষার সুযোগ পাবে না। আর যদি ডায়েট প্ল্যানের কথা বলেন, তা হলে বলব, এই নিয়মগুলি মেনে খাওয়াদাওয়া শুরু করলে শরীর ফিট থাকবে, এনার্জিও বাড়বে। 

ডিটক্স ডায়েট

এক সময় এই নিয়ে সাধারণ মানুষের কোনও ধরণাই ছিল না। কিন্তু গত দশ বছরে আমরা অনেক সচেতন হয়েছি। বুঝতে শিখেছি যে, নিয়ম করে শরীরকে বিষমুক্ত করতে না পারলে রোগ-ব্যাধির হাত থেকে কেউ বাঁচাতে পারবে না। তাই তো ডিটক্স ডায়েটের জনপ্রিয়তা আকাশ ছুঁয়েছে। (healthy trends to follow in 2022)

কী এই ডিটক্স ডায়েট? এই ডায়েট প্ল্যান মেনে চললে নিয়ম করে ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ সবজি এবং ফল খেতে হবে। তাতে রক্তে মিশে থাকা ক্ষতিকর টক্সিক উপাদানগুলি শরীর থেকে বেরিয়ে যেতে বাধ্য হবে। কমবে প্রদাহের মাত্রাও, যে কারণে ছোট-বড় নানা রোগের খপ্পরে পড়ার আশঙ্কা আর থাকবে না।

প্রতিদিন ঘুরিয়ে ফিরিয়ে গাজর, বিট, পুদিনা পাতা, ধনেপাতা, পালং শাক, মাশরুম, কুমড়ো, বাঁধাকপি, কাঁচা পেঁয়াজ, রসুন অথবা হলুদ খাওয়ার অভ্যাস করুন। নিয়ম করে পাতিলেবুর রসও খেতে পারেন। কারণ, পাতিলেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা শরীরকে সুস্থ রাখতে নানা ভাবে সাহায্য করে থাকে।

পিলাটেস এক্সারসাইজ

কখনও না-কখনও এই এক্সারসাইজের নামটা নিশ্চয়ই শুনে থাকবেন! কারণ, গত এক দশকে পিলাটেস এক্সারসাইজ তুমুল জনপ্রিয়তা পয়েছে। আর কেন পাবে না-ই বা বলুন! শরীরের ফ্লেক্সিবিলিটি বাড়াতে তো বটেই, সেই সঙ্গে পেশির ক্ষমতা বাড়াতে, ওজন কমাতে এবং শরীরকে টোনড রাখতে পিলাটেস এক্সারসাইজের কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। তাই তো ডায়েটিংয়ের পাশাপাশি সপ্তাহে অন্তত চার দিন যদি এই এক্সারসাইজটি করতে পারেন, তা হলে শরীর নিয়ে আর কোনও চিন্তা থাকবে না। (healthy trends to follow in 2022)

গ্লুটেন–ফ্রি খাবার

২০১০ সাল পর থেকে গ্লুটেন-ফ্রি ডায়েটের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে উঠেছেল। যদিও তার পিছনে কিছু কারণও ছিল। কী কারণ? গত দশকে হওয়া বেশ কয়েকটি স্টাডি অনুসারে গ্লুটেন-ফ্রি ডায়েট প্ল্যান মেনে চললে নাকি celiac disease সহ বেশ কিছু জটিল রোগের খপ্পরে পড়ার আশঙ্কা আর থাকে না।

এমনকী, কোলেস্টেরলের মাত্রাও কমে। শুধু তাই নয়, এনার্জির ঘাটতি দূর হয়, হার্টের কোনও ধরনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা কমে, ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে এবং irritable bowl syndrom-এর মতো রোগ দূরে থাকতে বাধ্য হয়। তাই বুঝতেই পারছেন, আজকের দিনে সুস্থ থাকতে হলে গ্লুটেন-ফ্রি ডায়েট প্ল্যান মেলে চলাই বুদ্ধিমানের কাজ।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

28 Dec 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text