Advertisement

লাইফস্টাইল

হোলি স্পেশ্যাল ঠান্ডাই (Holi Special Thandai)

Doyel BanerjeeDoyel Banerjee  |  Mar 21, 2019
হোলি স্পেশ্যাল ঠান্ডাই  (Holi Special Thandai)

হোলি (holi) বা দোলে যেমন নানা রঙের আবির আর পিচকারি থাকতেই হবে, নানা স্বাদের গুঁজিয়া থাকতেই হবে, ঠিক সেরকমই ঠান্ডাই (thandai) না হলেও যেন হোলি বা দোল জমে না। ঠান্ডাই (thandai) আর কিছুই না। ড্রাই ফ্রুট,  আমন্ড বাদাম, কেশর এবং নানা রকমের সুগন্ধ দেওয়া একটা পানীয়। যদিও এটাকে হোলি স্পেশ্যাল বলছি তবে এটা মিহাশিবরাত্রিতেও পান করা হয়। তাছাড়া গরমকালে যে কোনও সময়ে অনায়াসে পান করা যায় ঠান্ডাই (thandai)। আর সেইজন্য সুযোগ বুঝে আমরাও হাজির হয়ে গেছি ঠান্ডাইয়ের (thandai) রেসিপি নিয়ে। দেখে নিন, তৈরি করা খুব একটা কঠিন নয়। ঠান্ডাইয়ের  (thandai) উৎস উত্তরপ্রদেশ হলেও এখন এটা ভারতের অন্যান্য জায়গাতেও যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। 

আরও পড়ুনঃ দোল উৎসব উপলক্ষে সেরা বাংলা হোলির গান

ঠান্ডাই রেসিপি

এটা তৈরি করতে সময় লাগবে মোটামুটি ২৫ মিনিট। তবে সমস্ত উপকরণ গুছিয়ে এক জায়গায় করতে আরও আধ ঘণ্টা লাগবে। সুতরাং সব মিলিয়ে এক ঘণ্টার মধ্যে আপনার ঠান্ডাই রেডি হয়ে যাবে। আমরা এখানে যে ঠান্ডাইয়ের পরিমাপ বলছি সেটা ৪ জনের জন্য। যদি আপনার বাড়িতে অতিথি কম বা বেশি হয় তাহলে সেই মতো উপকরণ কমিয়ে বা বাড়িয়ে নেবেন।

উপকরণঃ

ক্রিম সহ দেড় লিটার দুধ, ২৫ টা খোসা ছাড়ানো ও কুচনো আমন্ড বাদাম, জলে ভেজানো ২০ টা কাজু বাদাম, ৩০ টা খোসা ছাড়ানো ও কুচনো পেস্তা, জলে ভেজানো চার মগজ ৩ টেবিল চামচ, জলে ভেজানো পোস্ত ৩ টেবিল চামচ, সামান্য কেশর, চিনি দেড় কাপ, সবুজ এলাচ ৮ থেকে ১০ টা, গোলাপের পাপড়ি ২০ থেকে ২৫ টা, দারচিনি ১ ইঞ্চি স্টিক, কালো গোল মরিচের দানা ৮ থেকে ১০ টা।

প্রণালীঃ

প্রথমে আমন্ড, কাজুবাদাম, পেস্তা, চারমগজ, পোস্ত সামান্য একটু দুধ মিশিয়ে ভালো করে বেটে নিন। খেয়াল রাখবেন এই বাটা যেন মিহি হয়।  এবার একটা পাত্রে দুধ বসিয়ে ফোটাতে থাকুন আর তাতে কেশর যোগ করুন। দুধ টগবগ করে ফুটতে শুরু করলে তাতে চিনি দিন ও আঁচ সামান্য একটু কমিয়ে দিন। চিনি দুধের সঙ্গে ভালো করে মিশে না যাওয়া পর্যন্ত কম আঁচে দুধ রেখে দিন। এবার সবুজ এলাচ, গোলাপের পাপড়ি, দারচিনি, গোল মরিচ মিহি করে বেটে একটা পাউডার তৈরি করুন। এবার আমন্ড আর অন্যান্য জিনিস বেটে প্রথমে যে মিশ্রণ তৈরি করেছিলেন সেটা দুধে মিশিয়ে দিন। তবে আঁচ কমই থাকবে। এই অল্প আঁচেই ৩ থেকে চার মিনিট রেখে দিন। এবার পরে যে মিহি করে পাউডার তৈরি করেছিলেন (এলাচ, গোলাপের পাপড়ি ইত্যাদি মিশিয়ে) সেটা দুধে দিয়ে দিন। খেয়াল রাখবেন এই পাউডার যেন ডেলা ডেলা হয়ে দুধে ভেসে না ওঠে তাহলে ঠাণ্ডাই খেতে একদম ভালো হবে না। তাই পাউডার খুব মিহি করে করবেন আর দুধে দেওয়ার পর ভালো করে মিশিয়ে দেবেন। এবার আঁচ বন্ধ করে দিন। একদম ঠান্ডা হয়ে গেলে গেলাসে ঢেলে পরিবেশন করুন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

Picture Courtsey: Instagram