home / ডি আই ওয়াই বিউটি টিপস
ফুলদানির বাসি গোলাপ ফুল ফেলে না দিয়ে রূপচর্চার কাজে লাগান! কীভাবে, বলে দিচ্ছি আমরা

ফুলদানির বাসি গোলাপ ফুল ফেলে না দিয়ে রূপচর্চার কাজে লাগান! কীভাবে, বলে দিচ্ছি আমরা

বাসি গোলাপ ফুলও রূপচর্চায় কাজে আসে। কীভাবে শুনি? বাসি পাপড়ি দিয়ে গোলাপ জল থেকে টোনার, নানা কিছু তৈরি করে ফেলা সম্ভব। এমনকী, গোলাপের পাপড়ির (rose petals) সঙ্গে অন্যান্য নানা প্রাকৃতিক উপাদান মিশিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক, ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে এবং দাগ-ছোপ দূর করতে বিশেষ ভূমিকা নেয়। তাই এবার থেকে বয়ফ্রেন্ড বা স্বামীর কাছ থেকে পাওয়া গোলাপের তোড়া শুকিয়ে গেলে দয়া করে ডাস্টবিনে চালান করে দেবেন না, বরং শুকনো গোলাপের পাপড়ি দিয়ে কীভাবে ত্বকের যত্ন নেওয়া সম্ভব, তা জেনে নিন।

১. তৈরি করুন খাঁটি গোলাপ জল

ত্বকের যত্নে গোলাপ জলের জুড়ি মেলা ভার। এই প্রাকৃতিক উপাদানটি দিয়ে নিয়মিত মুখ পরিষ্কার করলে pH balance ঠিক থাকে। ফলে ত্বকের তেলতেলে ভাব কমতে সময় লাগে না। এছড়াও ব্রণ এবং চুলকানির প্রকোপ কমাতেও কাজে আসে গোলাপ জল। তবে এখানেই শেষ নয়, ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখতে এবং দাগ ছোপ দূর করতেও গোলাপ জলের কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। তাই গোলাপ জল দিয়ে ত্বকের যত্ন নিতে ভুলবেন না যানে! আর মজার বিষয় কি জানেন, বাসি গোলাপ ফুলের পাপড়ি দিয়ে বাড়িতেই গোলাপ জল তৈরি করে ফেলা সম্ভব।

ADVERTISEMENT

এক-দু’দিনের বাসি খানদশেক গোলাপ ফুল নিয়ে পাপড়িগুলো সংগ্রহ করে ঈষদুষ্ণ জলে ভাল করে ধুয়ে নিন। তাতে পাপড়িতে থাকা ক্ষতিকর রাসায়নিক ধুয়ে যাবে। এবার একটা বড় বাটিতে পাপড়িগুলি রেখে সেই বাটির আধ বাটি ডিস্টিল ওয়াটার নিয়ে মিনিটপাঁচেক জলটা ফুটিয়ে নিন। যখন দেখবেন পাপড়িগুলির রং ফ্যাকাসে হতে শুরু করেছে, তখন গ্যাসটা বন্ধ করে জলটা ছেঁকে নিয়ে একটা কাচের শিশিতে ঢেলে নিন। তবে মাথায় রাখবেন আপনার তৈরি গোলাপ জল যেহেতু ১০০ শতাংশ খাঁটি, অর্থাৎ এতে যেহেতু কোনও প্রিজারভেটিভ নেই, তাই বেশি দিন ফেলে রাখলে কিন্তু নষ্ট হয়ে যাবে।

২. টোনার

সারাদিন কাজ করার পরে শরীর এবং মন যেমন ক্লান্ত হয়ে পড়ে, তেমনই দিনব্যাপী প্রাকৃতিক দূষণ এবং রোদ-জলের মারে ত্বকেরও বারোটা বেজে যায়। এই সময় অল্প করে টোনার মুখ স্প্রে করে নিলে ত্বকের হারিয়ে যাওয়া জেল্লা ফিরে আসতে সময় লাগে না। আর যখন টোনার বাড়িতেই তৈরি করে ফেলা সম্ভব, তখন কিনতে যাবেন কেন! এক্ষেত্রে চামচ তিনেক গোলাপ জলের সঙ্গে সম পরিমাণে ডিস্টিল ওয়াটার মিশিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে টোনার। রাতে শুতে যাওয়ার আগে নিয়মিত এই টোনার মুখে স্প্রে করতে ভুলবেন না যেন!

ADVERTISEMENT

৩. চন্দন গুঁড়ো এবং গোলাপ জল দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক

দুই চামচ চন্দন গুঁড়োর সঙ্গে বাড়িতে তৈরি গোলাপ জলের থেকে এক চামক মিশিয়ে নিয়ে তৈরি পেস্ট সারা মুখে এবং গলায় লাগিয়ে মিনিটকুড়ি অপেক্ষা করুন। সময় হওয়া মাত্র ভাল করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে বারতিনেক এই ফেসপ্যাকটি (face pack) মুখে লাগালে ত্বকের লাবণ্য তো বাড়বেই, সঙ্গে দাগ-ছোপও দূর হবে।

৪. বেসন, দই এবং গোলাপের পাপড়ি

অল্প সময়েই ত্বকের সৌন্দর্য বাড়ুক, এমনটা চান নাকি? তা হলে চামচতিনেক বেসনের সঙ্গে দুই চামচ টক দই, ছোট বাটির আধ বাটি শুকিয়ে যাওয়া গোলাপের পাপড়ি এবং অল্প করে গোলাপ জল মিশিয়ে ভাল করে চটকে নিয়ে পেস্ট তৈরি করে ফেলুন। এবার সেই মিশ্রণটি সারা মুখে লাগিয়ে কম করে মিনিটপনেরো অপেক্ষা করে ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে বারদুয়েক এই ভাবে ত্বকের যত্ন নিলে উপকার পাবেই পাবেন!

ADVERTISEMENT

৫. গোলাপের পাপড়ি এবং মধু

দিন তিনেকের বাসি তিনটি গোলাপ ফুল নিয়ে তার পাপড়িগুলো সংগ্রহ করে বেটে নিন। এবার তার সঙ্গে দুই চামচ মধু মিশিয়ে তৈরি পেস্ট সারা মুখে লাগিয়ে কম করে আধ ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। সময় হওয়া মাত্র মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে বারদুয়েক এই ফেসপ্যাকটি মুখে লাগাতে হবে, তা হলেই উপকার পাবেন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

ADVERTISEMENT

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!

29 Aug 2019
good points

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text