home / বেড়ানো
বেড়ানোর কথা উঠলে গাড়িতে বমি হওয়ার কথা মনে আসে? এগুলি মেনে চলুন

বেড়ানোর কথা উঠলে গাড়িতে বমি হওয়ার কথা মনে আসে? এগুলি মেনে চলুন

কিছুদিন টানা কাজ করার পরে মনটা উড়ু-উড়ু করে। বিভিন্ন ভিডিও, ব্লগ দেখে মনে হয় নাহ এবার বেড়িয়েই পড়ি। সেইমত পছন্দের গন্তব্যস্থলে পৌঁছনোর জন্য যখন গাড়ি বুক করার কথা ভাবি তখন মনে পড়ে গাড়িতে বসলেই গা গুলিয়ে ওঠার কথা (how to control motion sickness naturally)। আর ব্যস ওইমুহূর্ত থেকে বেড়নোর মজা মাটি হয়ে যায়।

আমার মতন আর কারুর কি এই মোশন সিকনেস আছে? আপনারাও কি গাড়ি এড়িয়ে যেতে চান দীর্ঘযাত্রায় শুধু বমি করার ভয়ে? তাহলে আপনাদের সাথে ভাগ করে নিচ্ছি কি করলে গাড়িতে উঠে বমি হবে না তার কিছু উপায়। আমার মত হয়ত আপনাদেরও কাজে লেগে যেতে পারে!

জানলার ধারে বসুন

গাড়িতে উঠলে সর্বদা চেষ্টা করুন জানলার ধারে বসার। যত হাওয়াযুক্ত জায়গাতে বসবেন তত শরীর ভাল থাকবে। মাঝে না বসাই ভাল, বমি পেলে তখন বাকিদের বিব্রত করতে হবে।

এসি বন্ধ রাখুন

এসি অন করে যদি জানলা বন্ধ করে দেন তাহলে নিজের বিপদ নিজেই ডেকে আনবেন। একমাত্র খোলামেলা জায়গাতেই মোশন সিকনেসে বমি কম পায়। বদ্ধ এসি গাড়িতে শরীর বেশি করে অসুস্থ লাগে। (how to control motion sickness naturally)

সিটবেল্ট বাঁধবেন না

মোশন সিকনেস থাকলে গাড়ির সামনের সিটে বসবেন না কারণ সামনের সিটে বসলে সিটবেল্ট বাঁধতেই হয় আর বাড়তি চাপ পড়লে গা গোলাতে শুরু করে। 

রাস্তার দিকে মুখ করে বসুন

কখনই যেদিকে গাড়ি চলেছে তার উল্টোদিকে বা আড়াআড়ি বসবেন না, তাহলে বমি আসতে বাধ্য (how to control motion sickness naturally)। রাস্তার সোজাসুজি বসুন।

সোজা হয়ে বসুন

কোমর ব্যথা করলেও গাড়িতে গা এলিয়ে বসা এড়িয়ে যান। মেরুদন্ড সোজা রেখে বসলে বমি কম পায়।

ঘুমিয়ে পড়ুন

বলে গাড়িতে উঠলেই যদি সমস্যা দেখা যায় সেক্ষেত্রে উঠেই ঘুমিয়ে পড়ুন। আপনি যে গতিশীল হয়ে আছেন সেটা আপনি ঘুমিয়ে থাকলে আপনার মস্তিষ্ক বুঝতে পারবে না। ফলে আরাম করে গন্তব্যস্থলে পৌঁছে যাবেন। (how to control motion sickness naturally)

লেবু কাজে দেয়

পাতিলেবু হোক বা কমলালেবু সবসময় মোশন সিকনেস সারাতে কাজে দেয়। পাহাড়ে ঘুরতে গেলে কমলালেবুর খোসা অল্প ছিঁড়ে বারবার নাকের কাছে গন্ধ  শুঁকবেন। ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে বলছি বমি হবে না।

ভরপেট খাবেন না

একদম হালকা খাবার খেয়ে গাড়িতে উঠবেন। ঝাল মশলাদার খাবার এড়িয়ে চলুন যাত্রাপথে। গন্তব্যে পৌঁছে প্রাণভরে যা মন চাই খাবেন। খুব খেয়ে নিলে অ্যাসিডিটি থেকে বমি হয়ে যায় আবার না খেয়ে থাকলে পিত্তি পড়ে যায় সেখান থেকেও সমস্যা হয়। তাই একদম হালকা খাবার খাবেন। 

আশা করি আপনাদের সাহায্য হবে ওপরের পরামর্শগুলি। তবে আর যাই হোক মোশন সিকনেস আমাদের বেড়াতে যাওয়ার উড়ু উড়ু মনকে বাধা দিতে পারবে না।

POPxo এখন চারটে ভাষায়!ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও! বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPx আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!o App  

04 Jul 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text