home / রূপচর্চা ও বিউটি টিপস
স্যালোঁতে না, বাড়িতেই করে ফেলুন পার্ল ফেসিয়াল

স্যালোঁতে না, বাড়িতেই করে ফেলুন পার্ল ফেসিয়াল

মুখে মুক্তো মাখছেন, তা দিয়ে ত্বকের যত্ন নিচ্ছেন, ভাবলেই মনটা খুশি-খুশি হয়ে যায়, তাই না? আপনার ত্বকও বেবাক খুশি হয়! কারণ, মুক্তোর গুঁড়ো ত্বকের পক্ষে খুবই পুষ্টিকর! কিন্তু রোজ-রোজ তো আর তা বলে মুখে মুক্তো মেখে বসে থাকা যায় না! তাই আমরা অনেকেই পার্লারে গিয়ে পার্ল ফেসিয়াল করাই এবং এক বুক খুশি নিয়ে বাড়ি ফিরি। (how to do salon like pearl facial at home)

কিন্তু এই ধরনের ফেসিয়ালের অনেক খরচ এবং সত্যি কথা বলতে গেলে, সব পার্লারে পার্ল ফেসিয়াল ঠিক করে করতেও পারে না। তাই পয়সা খরচ হল, কিন্তু ফল পেলেন না, বেশ বাজে একটা অবস্থা! এই ব্যাপারটা ধরতে পেরেই আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি পার্ল ফেসিয়াল বাড়িতেই কী করে করতে পারবেন, তার সুলুকসন্ধান।

আজকাল বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের পার্ল ফেসিয়াল কিট কিনতে পাওয়া যায়। আর সেই কিট কীভাবে নিজেরাই অ্যাপ্লাই করে ত্বকের হাল ফেরাবেন পুজোর আগে, সেই পদ্ধতিও বলে দিচ্ছি সহজ করে! (how to do salon like pearl facial at home)

কেন করবেন পার্ল ফেসিয়াল?

না মুক্তোর ছড়া মুখে মালিশ করতে হবে না

পার্ল ফেসিয়ালের উপকারিতা জানলে সত্যিই অবাক হবেন! এই ধরনের ফেসিয়াল বাড়িতে করার আগে জেনে নিন তা সম্বন্ধে…

উপকারিতা: এটি ত্বকে কোষগুলিকে সজীব করে তোলে, ফলে ত্বকে নতুন প্রাণসঞ্চার হয়! ত্বকের ইলাস্টিসিটি বাড়িয়ে দেয়, মেলানিন তৈরির প্রক্রিয়াটিকে শ্লথ করে দিয়ে ত্বককে নানা ধরনের দাগছোপ কিংবা পিগমেন্টেশনের হাত থেকে রক্ষা করে। 

জানতেন কি: পার্ল ফেসিয়াল কিটে মুক্তোর গুঁড়ো, অ্যাপ্রিকট অয়েল, রোজ অয়েল, হুইট জার্ম অয়েল, ক্যারট অয়েল ও ভিটামিন ই থাকে! (how to do salon like pearl facial at home)

কীভাবে ব্যবহার করবেন

এখানে বলে দেওয়া স্টেপগুলি অক্ষরে-অক্ষরে পালন করুন।

সাধারণ জলে মুখ ধুয়ে নিন। এবার স্কিন পিওর ক্লেনজার দিয়ে ত্বক ডিপ ক্লেনজ করুন। আবার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে তোয়ালে দিয়ে চেপে-চেপে মুছে নিন।

আধভেজা মুখে টার্মারিক-অ্যাপ্রিকট জেন্টল স্ক্রাবটি দিয়ে হালকা হাতে সারা মুখে মাসাজ করুন। মিনিটদুয়েক এভাবে মালিশ করে ত্বকের মরা কোষগুলি তোলা হয়ে গেলে আবার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

এবার পার্ল মাসাজ ক্রিমটি দিয়ে সার্কুলার মোশনে সারা মুখ, গলা ও ঘাড়ে মালিশ করুন। যতটা ক্রিম টিউবে আছে, তার পুরোটাই মুখে লাগিয়ে মালিশ করতে হবে। ততক্ষণ মালিশ করবেন, যতক্ষণ না ক্রিম শুকিয়ে ত্বকে গভীরে ঢুকে যাচ্ছে। তারপর ভেজা তুলোর বল দিয়ে আলতো হাতে মুছে নিন বাড়তি ক্রিমটুকু।

এবার পালা পার্ল জেলের। জেলটি ভাল করে মুখে-ঘাড়ে-গলায় লাগিয়ে মিনিটপাঁচেক রাখুন। মালিশের ফলে ত্বকের ঊষ্ণতা বেড়ে যায়। এই জেলটি ত্বককে আবার ঠান্ডা করে দেবে। (how to do salon like pearl facial at home)

এবার পার্ল মাস্কটি ভাল করে মুখে-ঘাড়ে-গলায় লাগিয়ে নিন। পুরোটাই লাগিয়ে ফেলতে হবে। মিনিটপনেরো বা যতক্ষণ না মাস্কটি শুকিয়ে যাচ্ছে, ততক্ষণ রেখে ধুয়ে ফেলুন জল দিয়ে।

সবশেষে ক্যামোমাইল, ভিটামিন ই সুদিং-ময়শ্চারাইজিং লোশনটি লাগিয়ে নিন সারা মুখে।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

16 Sep 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text