home / Weight Loss
খেয়ে-দেয়েও ওজন কমানো যায় – বিশ্বাস হচ্ছে না?

খেয়ে-দেয়েও ওজন কমানো যায় – বিশ্বাস হচ্ছে না?

ওজন কমাতে চান তো খাওয়া-দাওয়া ছাড়তেই হবে! আদ্যিকালের এই ধারণাটিকে (how to loose weight without dieting) এবার একটু ছাড়ুন দেখি। কারণ, একথা প্রমাণিত হয়ে গেছে যে ডায়েটিং না করেও ওজন কমানো সম্ভব! তবে তার জন্য অক্ষরে অক্ষরে কতগুলি নিয়ম মেনে চলতে হবে, তবেই কিন্তু ফল পাবেন । না, চোখ গোল গোল করার দরকার নেই। খেয়ে দেয়েও চর্বি ঝরবে। জেনে নিন কীভাবে

সক্কাল সক্কাল ডিটক্স ড্রিঙ্ক

এই পানীয়টি ওজন কমাতে সাহায্য করে

এক কাপ জলে চামচ দুয়েক মেথি ভিজিয়ে সারা রাত রেখে দিন। সকালে ঘুম থেকে ওঠা মাত্র জলটা ছেঁকে নিয়ে ঝটপট খেয়ে ফেলুন। প্রতিদিন এই পানীয়টি পান করলে মেটাবলিজম রেটের উন্নতি ঘটবে, যে কারণেও ওজন নিয়ন্ত্রণের মধ্যে থাকতে বাধ্য হবে। সঙ্গে শরীরে উপস্থিত টক্সিক উপাদানগুলি বেরিয়ে যাওয়ার কারণে ছোট-বড় নানা রোগের খপ্পরে পড়ার আশঙ্কাও আর থাকবে না।

ব্রেকফাস্ট না করলেই ওজন বাড়বে

এই ধারণাও রয়েছে যে ব্রেকফাস্ট না করলে নাকি বেশি তাড়াতাড়ি ওজন কমে। জানিয়ে রাখা ভাল যে এই ধারণাটি ভিত্তিহীন। কারণ, প্রাতরাশ না করলে ওজন তো কমেই না, উল্টে পেশি ভাঙতে শুরু করে, আর সেই জায়গায় ফ্যাট জমে। ফলে ওজন বাড়তে শুরু করে। তাই চটজলদি ওজন কমানোর ইচ্ছা থাকলে ব্রেকফাস্ট করতে ভুলবেন না (how to loose weight without dieting) যেন! কী কী খেতে হবে ব্রেকফাস্টে? কমপ্লেক্স কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন এবং ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। তাতে কী উপকার? এই তিনটি উপাদানই বহুক্ষণ পেট ভড়িয়ে রাখে। ফলে মিনিটে মিনিটে মুখ চালাতে মন চায় না, যে কারণে স্বাভাবিকভাবেই শরীরে কম পরিমাণ ক্যালরির প্রবেশ ঘঠার কারণে ওজম কমতে শুরু করে।

টাটকা ফলের রস খান

প্যাকেটের নয়, ফলের রস ফ্রেশ তৈরি করে খান

ফলের রস খেতে ইচ্ছা হলে বাড়িতে তৈরি করে খান না, তাতে কোনও ক্ষতি নেই! কিন্তু ভুলেও প্যাকেটজাত ফলের রস খেতে যাবেন না যেন! কারণ, এমন পানীয়তে উপস্থিত রিফাইন্ড সুগার শরীরের মারাত্মক ক্ষতি করে দেয়। এমনকী, ওজন বাড়ার আশঙ্কাও থাকে।

দিনে দু’বার গ্রিন টি

এই পানীয়তে EGCG নামে এক ধরনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে, যা মেটাবলিজম রেটের উন্নতি ঘটানোর পাশাপাশি ক্ষতিকর টক্সিক উপাদানগুলিকে ধ্বংস করে দিতেও বিশেষ ভূমিকা নেয়। তাই তো প্রচুর মাত্রায় ক্যালরি বার্ন (how to loose weight without dieting) হতে শুরু করে। তবে দিনে দু’কাপের বেশি গ্রিন টি খাবেন না। আর মনে করে গ্রিন টি পান করার পরে কম করে তিন কাপ জল খেতে হবে, না হলে কিন্তু কিডনি স্টোন হওয়ার আশঙ্কা বাড়বে।

কম ঘুমোলে ওজন বাড়বেই

রাতের আট ঘন্টা ঘুম জরুরি

এক্কেবারে ঠিক শুনেছেন! ঘুমের সঙ্গে ওজন বাড়া-কমার গভীর সম্পর্ক রয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে দিনের পর দিন ঠিক মতো ঘুম না হলে হরমোনের ক্ষরণ ব্যাহত হয়। বিশেষ করে cortisol-এর ক্ষরণ ঠিক মতো না হওয়ার কারণে ইনসুলিনের উৎপাদন বেড়ে যায়। ফলে ওজন বাড়ার আশঙ্কা থাকে বই কী! তাই ঝটপট ওজন কমাতে চাইলে প্রতিদিন আট ঘন্টার ঘুম জরুরি।

গিলে খাবার খাবেন না

চিবিয়ে খাওয়ার সঙ্গে ওজন কমার কী সম্পর্ক? নানা স্টাডিতে একথা প্রমাণিত হয়ে গেছে যে ধীরে ধীরে চিবিয়ে খেলে খাবার ঠিক মতো হজম হয়। সেই সঙ্গে পেট ভরেছে কিনা, সেই সিগনাল ঠিক মতো ব্রেনে গিয়ে পৌঁছানোর সুযোগ পায়। ফলে অতিরিক্ত খাবার খেয়ে ফেলার আশঙ্কা (how to loose weight without dieting) আর থাকে না। তাই এবার থেকে খাবার খাওয়ার সময় ৩৫-৫০ বার চেবাতে ভুলবেন না যেন!

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

09 Aug 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text