ADVERTISEMENT
home / চুলের যত্ন নিয়ে নানা টিপস
শীতে রুক্ষ স্ক্যাল্পের সমস্যা? যত্ন নেবেন কীভাবে?

শীতে রুক্ষ স্ক্যাল্পের সমস্যা? যত্ন নেবেন কীভাবে?

বাতাসে কিন্তু আর্দ্রতার পরিমাণ অনেক কম। আর শীতকালের দোসর যে রুক্ষতা, তা আমরা জানি। তাই বাতাসেই যে আর্দ্রতা কমে যায় তা নয়, তার সঙ্গেই প্রভাব পড়ে আমাদের ত্বকে ও চুলে। শীতকালে যেমন রুক্ষ ও শুষ্ক ত্বক। একইসঙ্গে রুক্ষ ও নিষ্প্রাণ চুল। অনেকেরই স্ক্যাল্প রুক্ষ হয়ে যায় (take care of dry scalp)।

স্ক্যাল্প রুক্ষ হয়ে চামড়া উঠে আসে, মাথায় চুলকানি সহ অন্যান্য় সমস্যাও দেখা দেয়। তার প্রধান কারণ কিন্তু রুক্ষ ও শুষ্ক আবহাওয়া। স্ক্যাল্প প্রয়োজনীয় ময়শ্চার না পাওয়ায় তা রুক্ষ হয়ে যায়। কিন্তু রুক্ষ স্ক্যাল্পে পরিচর্যা কীভাবে করা যায়? কী কী পদ্ধতিতে আপনার স্ক্যাল্পে প্রয়োজনীয় আর্দ্রতা আপনি দিতে পারেন। আসুন সে বিষয়েই জেনে নেওয়া যাক (take care of dry scalp)।

কলার হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করুন

কলায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে। ম্যাগনেসিয়াম এবং ভিটামিন বি৫ থাকে। এটি আপনার চুলকে গোড়া থেকে পুষ্টি জোগায়। আপনার স্ক্যাল্পে প্রয়োজনীয় আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। চুলে জেল্লা ফেরায় (take care of dry scalp)।

কীভাবে বানাবেন

ADVERTISEMENT

একটি কলা ছাড়িয়ে নিন। দুই টেবিল চামচ অলিভ অয়েল বা নারকেল তেল নিন। দুই টেবিল চামচ মধু নিন। আধ কাপ নারকেলের দুধ নিন। একটি ডিম নিতে পারেন নাও পারেন। কলাটি ভাল করে চটকে নিয়ে তার সঙ্গে নারকেল তেল, মধু, নারকেলের দুধ মিশিয়ে নিন। একটি ক্রিমি মিশ্রণ তৈরি হবে। স্ক্যাল্পে ভাল করে ঘষে এই হেয়ার মাস্ক লাগিয়ে নিন। চুলেও লাগান। অন্তত ৩০ মিনিট এই মাস্ক রেখে দিন। তারপর শ্য়াম্পু করে চুল ধুয়ে ফেলুন।

কলার মাস্ক ব্যবহার করতেই পারেন…

অ্যালোভেরা ও ঘিয়ের মাস্ক

অ্যালোভেরায় এমন কিছু এনজ়াইম আছে, যা মৃত কোষকে সরিয়ে দেয়। রুক্ষ স্ক্যাল্পে আর্দ্রতা জোগায়। চুল পড়া কম করে। ঘি স্ক্যাল্পকে ময়শ্চারাইজ় করে। চুলকানি সহ অন্যান্য সমস্যার সমাধান করে। এতে আপনার চুল থাকে জেল্লাদার ও সুন্দর (take care of dry scalp)।

ADVERTISEMENT

কীভাবে বানাবেন

চার টেবিল চামচ ঘি নিন। চার টেবিল চামচ নারকেল তেল নিন। এক টেবিল চামচ লেবুর রস নিন। এক টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল নিন।
একটি বাটিতে ঘি ও নারকেল তেল ভাল করে মিশিয়ে নিন। তার মধ্যে লেবুর রস এবং অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে নিন। ভাল করে মিশ্রণটি তৈরি করে নিন। তারপর আপনার চুলে সেই মিশ্রণটি লাগিয়ে নিন। চুলের গোড়া থেকে শুরু করে সমস্ত চুলে ভাল করে মিশ্রণটি লাগিয়ে নেবেন। তারপর উষ্ণ গরম জলে চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। অন্তত এক ঘণ্টা এই হেয়ার মাস্ক রাখবেন।

দই ও ডিমের হেয়ার মাস্ক

ডিমের হেয়ার মাস্ক উপকারী

ADVERTISEMENT

দই চুলে প্রোটিন জোগায়। চুল গোড়া থেকে মজবুত ও স্বাস্থ্যকর করে তোলে। এইদিকে ডিম স্ক্যাল্প পরিষ্কার রাখে। অতিরিক্ত তেল দূর করে। চুল মজবুত করে এবং খুশকির মোকাবিলা করে (take care of dry scalp)।

কীভাবে বানাবেন

এক কাপ দই নিন। একটা ডিম নিন। একটি বাটিতে এই দুই জিনিস ভাল করে মিশিয়ে নিন। তারপর স্ক্য়াল্পে সেই মিশ্রণ ভাল করে লাগিয়ে নিন। আধ ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। এই হেয়ার মাস্ক স্ক্যাল্পের ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে, যা খুশকির প্রধান কারণ।

https://bangla.popxo.com/article/make-your-thin-hair-thick-naturally-in-bengali

POPxo এখন চারটে ভাষায়!ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!
বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন
#POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন
নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

05 Jan 2021

Read More

read more articles like this
good points

Read More

read more articles like this
ADVERTISEMENT