home / রূপচর্চা ও বিউটি টিপস
ত্বকের পরিচর্যায় ব্যবহার করুন ক্যস্টর অয়েল

ত্বকের পরিচর্যায় ব্যবহার করুন ক্যস্টর অয়েল

একটা সময় ছিল যখন প্রত্যেক বাঙালির বাড়িতে ছিল ক্যাস্টর অয়েল বা রেড়ির তেল ব্যবহারের রেওয়াজ। এই তেলে যেহেতু নতুন চুল গজায় তাই অনেক মহিলাই এই তেল ব্যবহার করতেন। এখনও যে ব্যবহার হয় না তা বলছিনা। আসলে এই তেলের গুণাবলীর তালিকা এতটাই দীর্ঘ, যে সবটা বলতে গেলে রীতিমতো একটা উপন্যাস লেখা হয়ে যাবে। তবে হ্যাঁ, আপনি কি জানতেন যে শুধু চুলের যত্নে না, ত্বকের পরিচর্যা করতেও আপনি ব্যবহার করতে পারেন ক্যস্টর অয়েল? (how to use castor oil for skin care)

প্রাকৃতিক অ্যান্টি এজিং

এই তেলে আছে অ্যাণ্টি এজিং প্রপার্টি। ক্যাস্টর অয়েল যখন ত্বকের গভীরে প্রবেশ করে তখন সেটা কোলাজেন ও ইলাস্টিনের উৎপাদন অনেক বেশি বাড়িয়ে দেয়। এই দুটোর উৎপাদন বেড়ে গেলে ত্বকে বলিরেখা ও ফাইন লাইন আসতে দেরি হয়। ত্বক অনেক বেশি সজীব ও তরুণ দেখায়।

ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে

ক্যাস্টর অয়েলে আছে Ricinoleic অ্যাসিড এবং মোনোস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড। এই দুটো পদার্থই ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সক্ষম। আমাদের ত্বকের উপরিভাগে যদি জল বেরিয়ে যায় বা আর্দ্রতা শূন্য হয়ে যায় তখন ক্যাস্টর অয়েল খুব কাজ দেয়। প্রতিদিন রাত্রে শুতে যাওয়ার আগে মুখ ভালো করে ধুয়ে নিন। তারপর কয়েক ফোঁটা ক্যাস্টর অয়েল নিয়ে আঙুলের ডগা দিয়ে আলতো করে ঘষে মুখে লাগান। দেখবেন ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকছে। (how to use castor oil for skin care)

নানা প্রসাধনীতে ব্যবহার হয় ক্যস্টর অয়েল

অনেক প্রসাধনী যেমন লোশন, মেকআপ প্রোডাক্টস এবং ক্লিনজারে ক্যস্টর অয়েল মেশানো হয়। অনেক সময় অনেক ক্ষতিকর প্রসাধনী আমাদের ত্বকের আর্দ্রতা পুরো শুষে নয়। সেইসব প্রসাধনী ব্যবহার না করে ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সরাসরি ক্যাস্টর অয়েল ব্যবহার করা যায়।এই তেল খুব ভারী তাই অন্য যে কোনও ত্বকের উপযোগী তেলের সঙ্গে যেমন ধরুন আমন্ড, অলিভ, নারকেল তেলের সঙ্গে মিশিয়ে মাখতে পারেন।মাথায় রাখবেন, ক্যাস্টর অয়েলে অনেকের অ্যালার্জি হতে পারে। তাই সারা অঙ্গে লাগানোর আগে একবার হাতে লাগিয়ে প্যাচ টেস্ট করে নেবেন। 

অ্যাকনে দূর করতে

অ্যাকনে হচ্ছে এমন একটি ত্বকের সমস্যা যা থেকে হতে পারে ব্ল্যাকহেডস, ব্রণ এবং মুখের মধ্যে ফোলা ফোলা দানা। যেহেতু ক্যাস্টর অয়েলে অ্যাণ্টি ইনফ্ল্যামেটারি এবং অ্যাণ্টি ব্যাকটিরিয়াল উপাদান আছে তাই অ্যাকনের লক্ষণ কমাতে এটি খুব উপকারী। অ্যাকনে কম করার জন্য এই তেল ব্যবহার করা যায়। এতে যেহেতু আর্দ্রতা ধরে রাখার ক্ষমতা আছে, সুতরাং অ্যাকনে কমানোর সাথে সাথে এটি ত্বকে আর্দ্রতাও বজায় রাখতে সক্ষম। অ্যাকনে থেকে যে জ্বালা হয় তার জন্য কটন বা তুলোর বলে অল্প একটু ক্যাস্টর অয়েল লাগিয়ে ব্রণ বা অ্যাকনেতে লাগান। (how to use castor oil for skin care)

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

10 Feb 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text