logo
Logo
User
home / Care
রান্নায় স্বাদ বাড়াতে না, চুলের যত্নেও কাজে লাগে আদা

রান্নায় স্বাদ বাড়াতে না, চুলের যত্নেও কাজে লাগে আদা

ভাবছেন তো, আদা আবার চুলের যত্নে (how to use ginger in hair care) কীভাবে কাজে আসবে? বহুকাল ধরেই কিন্তু রূপচর্চার ক্ষেত্রে আদা ব্যবহার করা হয়। প্রাচীন আয়ুর্বেদ শাস্ত্রেও একথা বলা আছে। নতুন চুল গজানো থেকে শুরু করে মাথার তালুর যে-কোনও ফাঙ্গাল ইনফেকশন দূর করা – আদার ব্যবহার সর্বত্রই!

শুষ্ক স্ক্যাল্প মেরামত করতে আদার ব্যবহার

চুল শুষ্ক তখনই হয় যখন তা যথেষ্ট পরিমাণে ময়শ্চার পায় না। তাছাড়া নানা রকমের স্টাইলিং করার ফলে এবং যথাযথভাবে স্ক্যাল্পে তেল না লাগানোর ফলেও চুল ও মাথার তালু রুক্ষ হয়ে যায়। আদা সেক্ষেত্রে ন্যাচারাল কন্ডিশনারের কাজ করে এনং স্ক্যাল্প ও চুলের স্বাভাবিক আর্দ্রতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।

খুশকির সমস্যা দূর করতে আদার ব্যবহার

স্ক্যাল্প শুষ্ক হলে খুশকির সমস্যা আসবেই, এবং খুশকির সমস্যা থেকে আরও একটি বড় সমস্যা তৈরি হয় তা হল অকালে চুল ঝরে যাওয়া। আদা (how to use ginger in hair care) কিন্তু স্ক্যাল্প থেকে মরা কোষ দূর করে চুলের ভেতর পর্যন্ত পুষ্টি যোগায়।

স্ক্যাল্পে রক্তসঞ্চালন সঠিক ভাবে করতে সাহায্য করে

জিঞ্জারোল নামে একটি এনজাইম রয়েছে আদায় যা রক্তসঞ্চালন স্বাভাবিক করে তুলতে সাহায্য করে। ফলে স্ক্যাল্পে যদি আদার রস লাগানো যায় সেক্ষেত্রে হেয়ার ফলিকল পুষ্টি পায় এবং নতুন চুল গজায় ও চুল তাড়াতাড়ি লম্বাও হয়।

চুলের পুষ্টিতে আদার ব্যবহার

এক চা চামচ গ্রেড করা আদা, দুই চা চামচ মধু, দুই টেবিল চামচ করে নারকেলের দুধ ও তেল এবং তিন কোয়া রসুন ভাল করে বেটে নিন এবং একটি পেস্ট তৈরি করুন। না, রান্না করার জন্য নয়, চুলে লাগানোর জন্য! চুলের গোড়ায় গোড়ায় এই মাস্কটি লাগান এবং ডগা পর্যন্ত নিয়ে আসুন। এবারে ৪৫ মিনিট মতো রেখে দিন এবং শ্যাম্পু করে ফেলুন। চুলে পুষ্টি জোগাতে কিন্তু প্রতিটি উপকরণেরই জুড়ি নেই।

নতুন চুল গজাতে আদার ব্যবহার

আদায় কিন্তু ফ্যাটি অ্যাসিডও রয়েছে যা নতুন চুল গজাতে (how to use ginger in hair care) সাহায্য করে। এছাড়াও ম্যাগনেশিয়াম, পটাশিয়াম, ফসফরাস ও নানা ভিটামিন রয়েছে আদায় যা চুল পড়া বন্ধ করে।

প্রাকৃতিক হেয়ার কন্ডিশনার

অনেকেই হয়তো জানেন না, কিন্তু আদা চুলের প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসেবে দারুণ কাজ করে! নানা কারণে আমাদের মাথার তালু শুষ্ক হয়ে যেতে পারে। অনেকেরই স্বাভাবিকভাবেই শুষ্ক স্ক্যাল্পের সমস্যা থাকে আবার অনেকের এই সমস্যা হয় অযত্নের কারণে। সেক্ষেত্রে এক টেবিল চামচ আদার রসের সঙ্গে এক টেবিল চামচ নারকেল তেল মিশিয়ে ভাল করে স্ক্যাল্পে মাসাজ করুন। মিনিট দশেক ভাল করে মাসাজ করার আধঘন্টা পর মাইল্ড কোনও শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। সপ্তাহে অন্তত দু’বার এই তেলটি ব্যবহার করলে দেখবেন কিছুদিনের মধ্যেই শুষ্ক স্ক্যাল্পের সমস্যা দূর হবে।

হেয়ার ফলিকল মেরামত করতে কাজে লাগে আদা

আদার মধ্যে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা ব্যাক্টেরিয়া দূর করতে সাহায্য করে এবং হেয়ার ফলিকল মেরামত করতে সাহায্য করে। দুই টেবিল চামচ আদার পেস্ট স্ক্যাল্পে লাগিয়ে মাসাজ করুন। যদি স্ক্যাল্পে কোনও ইনফেকশন থাকে বা ঘা থাকে তাহলে এটি লাগাবেন না। ঘন্টাখানেক পর ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন, সেদিন আর শ্যাম্পু করবেন না। যদি খুব বেশি চুল ওঠে তাহলে সপ্তাহে দু’বার আদা বাটা লাগান মাথায় তা না হলে একবার যথেষ্ট।

কোমল হবে চুল আদার গুণে

একটি ছোট শিশির মধ্যে খানিকটা অলিভ অয়েল ভরে নিন এবং তিন টেবিল চামচ আদা কুচি তার মধ্যে রেখে দিন দু’দিন। শিশির মুখ কিন্তু খুব ভাল করে বন্ধ করবেন যাতে বাইরে থেকে হাওয়া না ঢোকে। এবারে আদা কুচি (how to use ginger in hair care) মেশানো অলিভ অয়েল সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন স্ক্যাল্পে এবং চুলে মাসাজ করুন। এতে চুল মোলায়েম তো হবেই, উপরন্তু চুলের ভেতরেও পুষ্টি যাবে, ফলে চুল ভেতর থেকে মজবুত হবে।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

04 Mar 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text