home / ওয়েলনেস
মানসিক ক্লান্তি দূর করতে যোগ ব্যায়াম করুন

মানসিক ক্লান্তি দূর করতে যোগ ব্যায়াম করুন

ভারতীয় যোগবিদ্যার (how yoga helps to combat stress) ইতিহাস বহু প্রাচীন। হাজার হাজার বছর ধরে চলে আসা এই যোগবিদ্যার দ্বারা বহু মানুষ উপকৃত হয়েছেন এবং এখনও হচ্ছেন। যোগ ব্যায়ামের মাধ্যমে আমাদের যে শুধু শারীরিক সমস্যার সমাধান হয় তাই নয়, মানসিক চাপ থেকেও ঘটে মুক্তি।

হ্যাঁ, ঠিক শুনেছেন। সেইজন্যও আজকের দুনিয়ায় বহু অফিসে শুরু হয়েছে যোগব্যায়ামের ক্লাস। যাতে কর্মীরা কাজের চাপ সহজে নিতে পারেন। আর শুধু অফিসের কাজের কথা ভাবলেই তো আর হল না, আছে সংসারের দায়িত্ব আর সম্পর্কের টানাপোড়েন। এত চাপ আছে বলেই তো চাপ মুক্তির উপায় নিয়ে হাজির হয়েছি আমরা। দেখে নিন এমন কয়েকটি যোগ ব্যায়াম যার মাধ্যমে আপনি পেয়ে যাবেন স্ট্রেস আর মানসিক চাপ থেকে মুক্তি। তাহলে আর দেরি না করে রিল্যাক্স করা শুরু করে দিন।

স্ট্রেস কী

শারীরিক অসুস্থতার মতো মনে যখন ডিসব্যালান্স দেখা দেয় এবং আমরা অকারণে ভয় পাই,নারভাস হয়ে পড়ি বা রেগে যাই তখন বুঝতে হবে আমরা স্ট্রেসের শিকার।

কিভাবে যোগ ব্যায়ামের সাহায্যে স্ট্রেস কম করা সম্ভব

যেহেতু যোগব্যায়াম করার সময় শ্বাস প্রশ্বাস নেওয়া হয় (how yoga helps to combat stress) সেহেতু আমাদের শরীরের মধ্যে যে নার্ভাস সিস্টেম আছে সেটা রিল্যাক্স করার সুযোগ পায়। যোগব্যায়াম করার সময় পেশি শিথিল হয়ে জায়ে ফলে টেনশন মুক্তি হয়। আমাদের নার্ভাস সিস্টেম ব্যালেন্সে ফিরে আসে বলে শরীর থেকে হ্যাপি হরমোন নিঃসৃত হয় তাই স্ট্রেস অনেকটাই কমে যায়।

কোন কোন আসন করা যেতে পারে

১। উস্ট্রাসন – হাঁটু ভাঁজ করে পিঠ সোজা করে বসুন। মাথা পিছনে হেলিয়ে দুই হাট দিয়ে দুটো গোড়ালি ধরুন। এতে সারা শরীরে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পাবে এবং শরীরের কোষে অক্সিজেন সাপ্লাই হবে। মন আর শরীরে আসবে স্ফূর্তি।

২। সেতু বন্ধনাসন – দুই হাত পাশাপাশি রেখে শুয়ে পড়ুন। এবার পায়ের পাতা মাটিতে রেখে কোমরের ঠেলে উপরে তুলুন। হাত দুটো একসাথে করে পিঠের পিছনে দিয়ে দিন। বুকের অংশও ঠেলে উপরে দিকে করুন। দেখতে যেন একটা উল্টো ব্রিজের মতো লাগে। 

৩। দন্ডাসন – কোর স্ট্রেংথ বা ভিতরের শক্তির জন্য এই আসন প্রয়োজন। দু পা সোজা করে মেরুদণ্ড সোজা রেখে বসুন। দুই হাত দুপাশে রাখুন। এবার লম্বা লম্বা শ্বাস নিন আর ছাড়ুন। এটা খুবই সোজা আসুন। দেখবেন যখন এটা হয়ে যাচ্ছে অসম্ভব ফুরফুরে লাগছে। কারণ মেরুদণ্ড শিথিল হলেই অনেকটা চাপমুক্ত হয়ে যায় শরীর।

৪। বালাসন – বালাসন অর্থাৎ একটি শিশুর মতো পোজ। এটি শরীর ও মনকে খুব শান্ত করে দেয়। যেহেতু এই পোজে ব্যাক স্ট্রেচ হয় তাই এটি মেরুদণ্ডে রিল্যাক্সেশান হয়। তাছাড়াও এটি পেশীঘটিত সমস্যা যেমন ঘাড়ে, পিঠে ও কাঁধে ব্যথা কমায়। টেনডনস, পেশী এবং হাঁটুর জয়েন্ট অনেক নমনীয় করে দেয় এই পোজ। গর্ভস্থ শিশুর পোজ বলে এটি মানসিক চাপ অনেকটাই কমিয়ে দেয়। দু পা ভাঁজ করে জড়ো করুন। পেটের অংশ পায়ের উপর দিকে বাকি শরীর সামনের দিকে ঝুঁকিয়ে মাটিতে দুই হাত দিয়ে মাথা ঝুঁকিয়ে থাকুন।  

৫। ধনুরাসন – অর্থাৎ ধনুকের মতো আসন। উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন। এবার দুটো পা উল্টো দিকে ভাঁজ করে দুটো হাত দিয়ে পা ধরুন। আপনার শারীরিক পোজ যেন একটা ধনুকের মতো লাগে। পেটের পেশীর উপর কাজ করে এই আসন। পিঠে কোনও সমস্যা থাকলে সেটাও নিয়ন্ত্রণে আসে।  

৬। শবাসন – মানসিক চাপ, উদ্বেগ আর দুশ্চিন্তা কাটাতে (how yoga helps to combat stress) শবাসনের জুড়ি নেই। শবাসন শরীরকে বলে বিশ্রাম নিতে এবং তার মাধ্যমেই আবার শরীরে এনার্জি প্রবেশ করে। প্রতিদিন ৫ থেকে ১০ মিনিট এই আসন করুন। দু হাত দু পাশে রেখে শরীর টান টান করে পা ছড়িয়ে শুয়ে পড়ুন।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

14 Jul 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text