চুলের যত্ন নিয়ে নানা টিপস

নিম তেলের এই সব গুণ চুল রাখবে ভাল

Swaralipi BhattacharyyaSwaralipi Bhattacharyya  |  Jul 27, 2020
নিম তেলের এই সব গুণ চুল রাখবে ভাল

কলকাতায় এখনও কিছু পুরনো বাড়িতে বাগান রয়েছে। আর সেখানে যদি নিম গাছ থাকে, তাহলে নিমপাতা নিতে পাড়ার লোক কিন্তু প্রায়ই ভিড় করেন। এ দৃশ্য আমাদের অনেকেরই চেনা। কেউ আবার বাজার থেকে নিমপাতা কিনে আনেন। ত্বক হোক বা চুলের স্বাস্থ্য রক্ষায় নিমের জুড়ি মেলা ভার।

বহুকাল আগে থেকেই নিমের উপর ভরসা করেছে মানুষ। প্রাকৃতিক উপাদানে ভরপুর নিম ভিতর থেকে পুষ্টি দিয়েছে। নিমের বীজ থেকে তৈরি তেল চুলের গোড়া মজবুত করে। যে কোনও রকম চুলের জন্যই নিমতেল খুব উপকারী। চুলের সাধারণ সমস্যা দূর করতে কীভাবে নিম তেল কাজ করে, তা নিয়েই এই প্রতিবেদনে আলোচনা করার চেষ্টা করলাম আমরা।

১) মাথার চুল (hair) ভাল হওয়া জন্য স্ক্যাপ পরিষ্কার হওয়া জরুরি। কিন্তু অনেকেই খুশকির সমস্যায় ভোগেন। তা থেকে নানা রকম ফাংগাল ইনফেকশনও হয়। এর জন্য আমরা অনেকেই বাজার চলতি অ্যান্টি ড্যানড্রফ শ্যাম্পু ব্যবহার করি। আপনি একবার নিম তেল (neem oil) ব্যবহার করা শুরু করুন। ম্যাজিকের মতো উপকার পাবেন। কয়েক দিনের মধ্যেই খুশকি দূর হয়ে যাবে।

 

সারা রাত নিম তেল মাথায় লাগিয়ে রাখার পর সকালে চুল শ্যাম্পু করে নিতে হবে। ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

২) উকুনের সমস্যাতেও জেরবার হয়ে যান অনেকে। বিশেষত যাঁদের চুল বড়, উকুন হলে সামলানো কঠিন হয়ে যায়। বাজার চলতি উকুন মারার ওষুধ আমরা এই সমস্যার সমাধানে অনেকেই ব্যবহার করি। তার মধ্যে থাকা কেমিক্যাল অনেক সময় চুলের অন্যান্য ক্ষতিও করতে পারে। আপনি নিম তেল ব্যবহার করুন। উকুন হলে হালকা হাতে মাথায় নিম তেল মাসাজ করে সারা রাত রেখে দিন। সকালে মাইল্ড কোনও শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। উকুনের সমস্যা আর থাকবে না।

৩) অনেকের চুল খুব পাতলা। চুলের গোছ না থাকার জন্য দেখতে ভাল লাগে না। এসব ক্ষেত্রেও নিম তেল খুব উপকারী। নিমের মধ্যে থাকা ফ্যাটি অ্যাসিডের পুষ্টি গুণ স্ক্যাল্পের জন্য ভাল। কিছুদিনের মধ্যেই চুলের গ্রোথ বুঝতে পারবেন। চুল উজ্জ্বলও হবে। সারা রাত লাগিয়ে রেখে সকালে শ্যাম্পু করে নিলে সবথেকে ভাল ফল পাবেন।

৪) নিম তেলের কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। ফলে আপনি চাইলে প্রতিদিন স্নানের আগে হালকা মাসাজ করে নিম তেল ব্যবহার করতে পারেন। তেল মাসাজের পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে সাধারণ কন্ডিশনার লাগিয়ে নেবেন। কখনও শ্যাম্পুর মধ্যে কয়েক ফোঁটা নিম তেল দিয়েও ব্যবহার করতে পারেন। অনেকের স্ক্যাল্পে চুলকানির সমস্যা থাকে। এভাবে ব্যবহার করলে তা কমবে।

৫) মাথার কোনও কোনও অংশে চুল উঠে গিয়ে ছোট ছোট গোল টাক পড়ে যায়। অর্থাৎ অ্যালোপেশিয়ার সমস্যা রয়েছে অনেকের। এক্ষেত্রেও নিম তেল খুব কার্যকরী। তবে একবার চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে নেওয়া ভাল। 

মূল ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!