home / Jewellery
কৌশানি মুখার্জির পছন্দের দশটি কানের দুলের ডিজাইন

কৌশানি মুখার্জির পছন্দের দশটি কানের দুলের ডিজাইন

আপনারা কেউ এই কথাটা বিশ্বাস করবেন কিনা জানি না, তবে কানের দুল নিয়ে সব মেয়েরাই একটু স্পর্শকাতর! আপনি গড়িয়াহাট বা হাতিবাগান ঘুরে দেখুন, দেখবেন, জাঙ্ক জুয়েলারির দোকানের সামনে সবচেয়ে বেশি ভিড়। আবার সেখানে একটু ঘোরাফেরা করলেই বুঝবেন, মেয়েরা সবচেয়ে বেশি কানের দুলই কিনছে। আসলে ছোট-বড় নানা আকারের এই কানের দুল আপনার পুরো লুকটাই আমূল পাল্টে দিতে পারে। আর এই কথাটা বোধ হয় টলিউডের মিষ্টি নায়িকা কৌশানীও (Koushani Mukherjee approved 10 latest ear ring designs) বিশ্বাস করেন। তাই তাঁর প্রতিটি পোশাকের সঙ্গে কানের দুলও হয় নজরকাড়া। আমরা কৌশানীর সেরা ১০টি কানের দুল আপনার জন্য নিয়ে এসেছি। দেখুন, কীভাবে তাঁর সাজে এক অন্য মাত্রা যোগ করেছে দুলগুলি।

দেখে নিন ১০টি দারুণ দুলের ডিজাইন

১) কৌশানীর মুখ চওড়া এবং তিনি দীর্ঘাঙ্গী। আর সেই জন্যই ঝোলা দুল পছন্দ করেন তিনি। এই ছবিতে যেমন গর্জাস টুটু ড্রেসের সঙ্গে সালমা চুমকি আকারের ঝোলা দুল পরেছেন তিনি।

২) এক সময় সুতোর ঝালর দেওয়া দুল খুব জনপ্রিয় হয়েছিল। সেই পুরনো ধারা বজায় রেখেই সুতোর ঝালর দেওয়া দুল পরেছেন তিনি। আর এই দুল তাঁর পোশাকের সঙ্গে বেশ মানিয়ে গেছে।

৩) বোঝাই যাচ্ছে, সুতোর কাজ করা দুল কৌশানীর বেশ পছন্দের। তাই এই ছবিতেও দেখা যাচ্ছে হলুদ পোশাকের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে হলুদ সুতোর ঝালর দেওয়া দুল পরেছেন তিনি। ভাল করে লক্ষ্য করলে বুঝবেন, হলুদ শেডের ব্যবহার খুব বুদ্ধি করে করা হয়েছে এই দুলে। আর তাই আরও সুন্দর লাগছে এই ইয়াররিংস।

৪) যে যেরকমই দুল বেছে নিন না কেন, হুপ রিংয়ের চাহিদা কখনও কম হয় না। আর মজার বিষয় হল এই হুপ রিংস যে-কোনও শেপের মুখে আর যে-কোনও পোশাকের সঙ্গে দিব্যি মানিয়ে যায়। যেমন, এই সোনালি গর্জাস ড্রেসের সঙ্গে কৌশানীর হুপ রিংস দারুণ লাগছে।

৫) কৌশানীর প্রতিটি দুলই হয় ট্রেন্ডিং। জহুরির চোখ আছে তাঁর। দেখুন এই দুলটা। একটু বড় আকারের হলেও অদ্ভুত কারুকার্য করা এই দুল আপনি যে-কোনও শাড়ি বা সালওয়ারের সঙ্গে পরতে পারবেন।

৬) ডেনিমের জ্যাকেট মানেই পোশাকে পাশ্চাত্যের ছোঁয়া। আর তাই তো একটু ওয়েস্টার্ন লুক আনতে জিওমেট্রিক ইয়াররিংস পরেছেন তিনি। ত্রিভুজ আকারের এই দুল ডেনিমের সঙ্গে তাল মিলিয়েই বেছে নিয়েছেন তিনি।

৭) কোন পোশাকের সঙ্গে কোন দুল একদম পারফেক্ট চয়েস হতে পারে, সেটা বোধ হয় কৌশানীর চেয়ে ভাল কেউ জানেন না। সোনালি রঙের ফুলের সঙ্গে সাদা পুঁতির ঝালর দেওয়া এই দুল দেখতে অন্যরকম তো বটেই, এই জাতীয় দুল শাড়ির সঙ্গে বেশ মানানসই হয়।

৮) কৌশানী জানেন, লুক যদি গর্জাস হয়, তা হলে কানের দুলও গর্জাস হতে হবে। শাড়ি, টানটান খোঁপায় গোলাপে তিনি এমনিতেই আকর্ষণীয়। কিন্তু তার এই বড় আকারের চাঁদবালি দুল কেল্লা ফতে করে দিয়েছে।

৯) কলেজ পড়ুয়ারা এই দুল দেখলে না কিনে পারবে না। সাদামাটা দুলে প্রচুর সুতো দিয়ে তৈরি কাজ আর তার উপরে পাথর…সব মিলিয়ে এই দুল জাস্ট ফাটাফাটি।

১০) সব সময় কি আর জামার রঙের সঙ্গে ম্যাচ করে দুল হবে? দেখুন, খোঁপায় জুঁই ফুল দিয়ে সাজিয়ে কৌশানী কানেও কী সুন্দর ফুলের মালা পরে নিয়েছেন!     

ছবি সৌজন্য: কৌশানি মুখোপাধ্যায়
POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

06 Jun 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text