Our World

রোজকার জীবনের নানা ভুল ধারণা ভেঙে দেওয়ার সময় হয়েছে এবার…

Debapriya BhattacharyyaDebapriya Bhattacharyya  |  Jan 7, 2019
রোজকার জীবনের নানা ভুল ধারণা ভেঙে দেওয়ার সময় হয়েছে এবার…

রোজকার জীবনে (everyday) এমন অনেক ঘটনা আমাদের সকলের সাথেই ঘটে যেগুলোর প্রতি আমরা নিজেদের মতো করে একটা মতামত তৈরী করে নি. এর মধ্যে কিন্তু অনেক ঘটনায় আছে, যেগুলোর কোনো বাস্তবিক সত্যতা (fact) নেই, কিন্তু আমরা এগুলোকেই সত্যি বলে ধরে নিই, এগুলোকেই ‘মিথ’ (myth) বলে, আর দুঃখের বিষয় হল বেশিরভাগ মানুষ এই ‘মিথ’গুলিতেই বিশ্বাসী. যেমন ধরুন, অনেকের মুখেই শুনে থাকবেন যে ‘রোজ শ্যাম্প্যু করলে চুল পরে যায়’ কিংবা ‘মিষ্টি বেশি খেলে সুগার (diabetes) হয়’ ইত্যাদি. কিন্তু আমরা কি আদৌ এর সত্যতা (fact) যাচাই করি? আজ এরকমই কয়েকটা ‘মিথ’ নিয়ে কথা বলবো এবং ‘ফ্যাক্ট’ অর্থাৎ তার বাস্তবতাও যাচাই করবো.

মিথ ১ (Myth 1)

মিথ: ডান চোখ নাচলে খারাপ কিছু ঘটে

ফ্যাক্ট (Fact): ছোটবেলা থেকেই আমি শুনে আসছি যে ‘ডান চোখ নাচা ভালো না, কিছু খারাপ খবর আসবে’, কিন্তু সত্যি কথা বলতে কি এরকম কিছু ঘটেনি কখনো. মহিলাদের ডান চোখ নাচলে নাকি সেটা অশুভ, আবার পুরুষদের ক্ষেত্রেই নাকি সেটা শুভ! এটি একটি কুসংস্কার ছাড়া আর কিছুই নয়. আসলে চোখের মাংসপেশির নড়াচড়া হলে চোখের পাতা কাঁপে, যেটি একটি অত্যন্ত স্বাভাবিক ঘটনা. একে “মায়োকেমিয়া” বলা হয়.

মিথ ২ (Myth 2)

মিথ: প্রতিদিন শ্যাম্প্যু (shampoo) করলে চুল হেলদি থাকে

beauty-resolution-new-year-FI

ফ্যাক্ট (Fact): শ্যাম্প্যু (shampoo) করার আসল কারণ কিন্তু অনেকেই জানেন না, শ্যাম্প্যু (shampoo) আমাদের চুলের এবং স্ক্যাল্পের ময়লা দূর করতে সাহায্য করে, এর সাথে হেলদি চুলের কোনো সম্পর্ক নেই. চুল স্বাস্থ্যোজ্জ্বল করার জন্য চুলের পুষ্টি প্রয়োজন. সপ্তাহে দু’দিন ভালো করে চুলের গোড়ায় গোড়ায় অয়েল ম্যাসাজ করুন. এছাড়া অনেক সময়েই চুলের নানা সমস্যা কিন্তু লিভারের থেকেও হয়. বেশি করে জল এবং ফল যেমন আনারস, কিউই, মুসম্বি লেবু, আপেল, কমলালেবু ইত্যাদি বেশি করে খান. চুল এমনিই স্বাস্থ্যে ভরপুর হয়ে উঠবে.

মিথ ৩ (Myth 3)

মিথ: প্রেগনেন্ট (pregnant) হবার জন্য প্রতিদিন সেক্স (sex) করা প্রয়োজন

myth-fact-sex-pregnant

ফ্যাক্ট (Fact): এটা একটা বিশাল বড়ো ভুল ধারণা. যদি আপনার ওভ্যুলুশন (ovulation) পিরিয়ডের মধ্যে ডিম্বাণু (eggs) এবং শুক্রাণু (sperm) মিট না করে, তাহলে প্রতিদিন সেক্স (sex) করলেও প্রেগনেন্ট (pregnant) হওয়া মুশকিল. আপনার ওভ্যুলুশন (ovulation) কবে হয় সেই সময়টা জানা খুব প্রয়োজন, যদি আপনি সত্যিই প্রেগনেন্ট (pregnant) হতে চান. বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই যাদের নরমাল সাইকেল (normal cycle), তাদের পিরিয়ডের ১৪ দিন পর থেকে ইন্টারকোর্স (sex) করলে প্রেগনেন্সির (pregnant) সম্ভবনা বেশি থাকে. কিন্তু সবার সাইকেল একরকম হয় না, তাই এসব ক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়াটা ভালো.

মিথ ৪ (Myth 4)

মিথ: বেশি মিষ্টি খেলে সুগার (diabetes) হয়

Weight Loss 5

ফ্যাক্ট (Fact): আপনি মিষ্টি বেশি খান নাকি কম খান, তার সাথে আপনার সুগার (diabetes) হবে কি হবে না, তার কোনো সম্পর্ক নেই. সুগার (diabetes) বা মধুমেহ একটি লাইফস্টাইল ডিজিজ (lifestyle disease) এবং এটি বংশানুক্রমিকও (hereditary) বটে. অর্থাৎ, আপনার পরিবারে যদি কারো ডায়াবেটিস থাকে, তাহলে আপনারও সুগার (diabetes) হবার সম্ভাবনা রয়েছে, কিন্তু আপনিও ডায়াবেটিসে (diabetes) ভুগবেন, তা সব সময় নাও হতে পারে. তবে হ্যাঁ, একবার ডায়াবেটিস হলে তখন কিন্তু মিষ্টি একেবারেই খাওয়া চলবে না.

মিথ ৫ (Myth 5)

মিথ: পিরিয়ডের মধ্যে সেক্স (sex) করলে প্রেগনেন্সি (pregnant) আসে না

sex-position2

ফ্যাক্ট (Fact): এটা একদম বাজে কথা. পিরিয়ড চলাকালীন শুক্রাণু আপনার যোনিতে ৫ দিন পর্যন্ত থাকতে পারে, কাজেই এই সময় যদি অসুরক্ষিত সেক্স (sex) করা হয়, তাহলে প্রেগনেন্ট (pregnant) হবার যথেষ্ট সম্ভাবনা থাকে.

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!