logo
Logo
User
home / ওয়েলনেস
মাথা ব্যথা থেকে মুক্তির দশটি ঘরোয়া উপায়

মাথা ব্যথা থেকে মুক্তির দশটি ঘরোয়া উপায়

মাথার যন্ত্রণা। উফ, সে সত্যি বড় যন্ত্রণা (natural ways to combat headache) । অফিসে জরুরি মিটিং চলছে, এদিকে আপনার মাথায় কে যেন দমাদম হাতুড়ি পিটছে! সারাদিন সংসারের জোয়াল ঠেলে একটু গল্পের বই পড়বেন ভাবলেন, কিন্তু এমন অসহ্য মাথা ধরা, তাকাতেই পারলেন না বইয়ের দিকে! এরকম প্রায় প্রত্যেকের সঙ্গেই হয়ে থাকে।

মুঠো-মুঠো মাথা ব্যাথার ওষুধ খাওয়াটা কিন্তু কোনও সমাধান নয়। কারণ, প্রথমত, এতে সাময়িক ব্যাথার উপশম হয়। পরে আবার ব্যথা হতে পারে। দ্বিতীয়ত, পেনকিলার সরাসরি প্রভাব ফেলে কিডনিতে। ফলে পরবর্তীকালে আপনার কিডনির সমস্যা দেখা দিতে পারে। কিছু পেনকিলার তো হার্টেরও ক্ষতি করে। তাই মাথায় ব্যথা হলেই চট করে পেনকিলার খাওয়ার আগে এই সহজ ঘরোয়া সমাধানগুলো একবার ট্রাই করে দেখুন। 

কী কী কারণে মাথা ব্যথা হতে পারে

১) খাবার হজম না হলে, তার চেয়ে যদি গ্যাস বা অম্বল হয় তার জন্য মাথা ব্যথা হয়।

২) ঠান্ডা লাগলে বা কফ জমে গেলে মাথা ব্যথা হয়।

৩) মাথার কোথাও আঘাত লাগলে ব্যথা হতে পারে।

৪) প্রচণ্ড গরম এবং স্ট্রেস থেকেও মাথা ব্যথা হয়ে থাকে।

৫) এগুলোর বাইরে যদি মাথার ভিতরে কোনও সমস্যা থেকে ব্যথা হয়, দেরি না করে অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করা উচিত।

৬) শরীরে জলের ঘাটতি দেখা দিলেও মাথা ব্যথা হয়।

রইল চটজলদি কিছু ঘরোয়া সমাধান

১। জল পান করুন – দেখা গেছে, অনেক সময় শরীরে জলের ঘাটতি দেখা দিলেও মাথা ব্যথা হয়। অনেক সময় মাথা ব্যথা করলে জল পান করার আধ ঘণ্টা পর সেটা সেরে যায়। তাই দিনে অন্তত ১০ থেকে ১২ গ্লাস জল পান করুন। 

২। ম্যাগনেশিয়ামযুক্ত খাবার খান – অনেক সময় শরীরে যদি ম্যাগনেশিয়াম নামক খনিজের ঘাটতি দেখা যায়, তা হলেও মাথা ব্যথা হয়। তাই ম্যাগনেশিয়াম আছে এমন খাবার যেমন পালং শাক, বিভিন্ন রকমের বাদাম, ডার্ক চকোলেট ইত্যাদি খান। ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে ম্যাগনেশিয়াম ট্যাবলেটও খেতে পারেন। তবে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনও ওষুধ খাবেন না।

৩। রাতে পর্যাপ্ত ঘুম প্রয়োজন – অনেক সময় রাতে ঠিকঠাক ঘুম না হলেও মাথা ধরার সমস্যা দেখা দেয়। আপনার যদি কোনও কারণে দীর্ঘদিন ঘুম না আসে, তা হলে প্রথমে সেই সমস্যার সমাধান করুন। ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলুন। এটা ক্রনিক ইনসোমনিয়া না অন্য কিছু সেটা আগে জানা দরকার। দেখবেন, ঘুমের সমস্যা দূর হলেও মাথার ব্যথাও অনেকটাই কমে গেছে। 

৪। ভিটামিন বি কমপ্লেক্স যুক্ত খাবার খান – জলে সহজেই দ্রবীভূত হওয়া এই ভিটামিনের অনেক গুণ আছে। এই ভিটামিন মাথা ধরা রোধ করতে সক্ষম। ডিম, কলা, মাছ, ডাল, সাইট্রাস ফল যেমন লেবু ইত্যাদিতে এই ভিটামিন আছে। এগুলো ডায়েটে যোগ করুন। ভিটামিন বি কমপ্লেক্স ট্যাবলেটও খেতে পারেন। তবে তার আগে জেনে নেবেন আপনার মাথা ব্যথা আদৌ এই কারণে হচ্ছে কিনা।

আরও মনে রাখুন

১) স্নানের জলে এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে স্নান করুন।

২) এক ফোঁটা ওডিকোলন তুলোয় নিয়ে কপালে লাগান।

৩) বেশি ভাজাভুজি বা তেল মশলা দেওয়া খাবার খাবেন না। 

৪) কড়া করে কফি বানিয়ে পান করে দেখুন। কফিতে ক্যাফিন আছে যা অনেক সময় মাথা ব্যথা কমিয়ে দিতে পারে।

৫) নিয়মিত এক্সারসাইজ করুন। এক্সারসাইজ করলে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পাবে। এতে অনেক সময় মাথা ধরার সমস্যাও কমে যায়।

৬) আদার মধ্যে এমন কিছু ক্ষমতা আছে যা মাথা ধরা, গা বমি ও মাথা ঘোরা কমিয়ে দেয়। মাথার যন্ত্রণা হলে আদা চা পান করতে পারেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্য – এই ঘরোয়া টোটকাগুলি সাধারণ মাথাব্যথায় উপশম করবে। মাইগ্রেন বাঁ সাইনাসের ক্ষেত্রে এগুলি প্রযোজ্য নয়।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!          

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

24 Mar 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text