home / ওয়েলনেস
বর্ষার ঠিক আগে শরীর ঠান্ডা রাখুন ভিতর থেকে

বর্ষার ঠিক আগে শরীর ঠান্ডা রাখুন ভিতর থেকে

মাঝে মধ্যে বৃষ্টি হচ্ছে এক-দুই পশলা, কিন্তু তাতে গরম কমছে কি? (pre monsoon body cooling) কমছে না। উল্টে ভ্যাপসা একটা গুমোট গরমে দম আটকে আসছে। এই সময়ে এসি চালালেও ঠান্ডা লেগে যাচ্ছে আবার এসি না চালালে গরমে হাঁসফাঁস করছেন অনেকেই। বর্ষা আসার ঠিক আগে আগে সে’জন্যই শরীর ভিতর থেকে ঠান্ডা করে ফেলতে পারলে সমস্যা অনেকটাই কমে। কিন্তু শরীর ভিতর থেকে ঠান্ডা করবেন কিভাবে! সে বিষয়েই আজকের প্রতিবেদন

শরীরকে ঠান্ডা রাখতে

ঘরোয়া উপায়ে শরীরটাকে ঠান্ডা রাখার জন্য এই পদ্ধতিগুলো মেনে চলুন। অতিরিক্ত তেলমশলা দেওয়া খাবার, ক্যাফিন যুক্ত পানীয়, অ্যালকোহল এই সময়টায় এড়িয়ে চলুন।

কোল্ড ফুট বাথ

এই গরমে শরীর ঠান্ডা রাখতে অন্যতম দারুণ দাওয়াই হল কোল্ড ফুট বাথ। কোল্ড ফুট বাথ পা ডুবিয়ে বসে থাকুন। আর কোল্ড ফুট বাথ বানানোর জন্য একটা বালতিতে জল নিয়ে ঠান্ডা জল আর আইস কিউব যোগ করুন। আর তার মধ্যে কয়েক ফোঁটা পিপারমিন্ট এসেন্সিয়াল অয়েল যোগ করতে পারেন। তার মধ্যে পা ডুবিয়ে বসে থাকুন। ২০ মিনিট মতো রিল্যাক্স করুন।

ডাবের জল

এই সময় শরীর ঠান্ডা করতে (pre monsoon body cooling) ডাবের জল খাওয়া দরকার। কারণ এর ভিতরে থাকা ভিটামিন, মিনারেলস ও ইলেকট্রোলাইটস আপনাকে রিহাইড্রেট আর রিএনর্জাইজ করে। আপনার হিট স্ট্রেসও কমিয়ে দেয়।

পিপারমিন্ট চা

পিপারমিন্টের মধ্যে থাকা কুলিং উপাদানও শরীর ঠান্ডা রাখার জন্য দারুণ। তাই এই সময় পিপারমিন্ট চা তৈরি করে রাখতে পারেন। সে গরমই হোক অথবা আইসড পিপারমিন্ট চা হোক। সেই চা-টাই সারা দিন ধরে খেতে হবে।

হাইড্রেটিং খাবার

এই সময়টা ঝাল-মশলা যুক্ত খাবার একেবারেই না। হাইড্রেটিং ফল-সবজি খেতে হবে। যে সব ফল অথবা সবজিতে জলের পরিমাণ বেশি, সেগুলো বেশি করে খাবেন। এই যেমন- তরমুজ, শসা, জামরুল, পটল, ঝিঙে এ সব বেশি করে খাওয়া উচিত এই সময়টায়।

ভিটামিন-সি যুক্ত ফল

এই গরমের কয়েকটা মাস লেবুজাতীয় ফল মানে ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ ফল খেয়ে দেখুন। দেখবেন, এতে শরীর ঠান্ডা থাকছে। কারণ এটা বাইরের তাপমাত্রা আর আপনার দেহের তাপমাত্রার মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখবে। ফলে বুঝতেই পারছেন, গরমের দিনে খাবারের সঙ্গে লেবু অথবা লেবুর শরবত কিন্তু মাস্ট!

দুধ-মধু

শরীর ঠান্ডা রাখতে (pre monsoon body cooling) এক গ্লাস ঠান্ডা দুধে এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে খান।

বেদানার রস

রোজ বেদানার রস শুধু অথবা আমন্ড অয়েল মিশিয়ে খেতে থাকুন। এতে আপনার শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকবে। আর সব ধরনের বয়সের মানুষই এটা খেতে পারেন।

দই

গরম কালে দই তো দারুণ। স্বাস্থ্যকর খাবার আবার শরীরকেও ঠান্ডা রাখে। আর বাজার থেকে কিনে না হয় বাড়িতেও বানিয়ে ফেলতে পারেন। দইয়ের শরবত থেকে শুরু করে দই ভাত- সব রকম ভাবে খেতে পারেন। অথবা মাছ-মাংসের পদেও দই অ্যাড করতে পারেন। দারুণ স্বাদও হবে আবার সেটা হেলদিও বটে!

আখের রস

গরম কালে শরীর ঠান্ডা রাখতে আখের রসও দারুণ উপকারী। প্রচণ্ড রোদে বেরিয়ে হাঁসফাঁস দশা হলে আখের রসে চুমুক দিন। দেখবেন, শরীরও ঠান্ডা হবে আর এনার্জিও পাবেন।

কাঁচা আম

এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ইলেকট্রোলাইট থাকে। কাঁচা আমের শরবত তাই আপনার শরীরকে ঠান্ডা করবে। তা ছাড়াও কাঁচা আম কেটে বিট নুন দিয়েও খেতে পারেন।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

05 Jul 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text