home / বলিউড ও বিনোদন
প্রিয়ঙ্কা চোপড়ার ঝুলিতে নতুন ইন্টারন্যাশনাল সিরিজ, এবার তাঁর সঙ্গী হচ্ছেন রিচার্ড ম্যাডেন

প্রিয়ঙ্কা চোপড়ার ঝুলিতে নতুন ইন্টারন্যাশনাল সিরিজ, এবার তাঁর সঙ্গী হচ্ছেন রিচার্ড ম্যাডেন

নাঃ, নতুন বছরের শুরুটা ভালই হল প্রিয়ঙ্কা চোপড়া জোনাসের (Priyanka Chopra Jonas)। প্রথমেই গোল্ডেন গ্লোবের রেড কার্পেটে হেঁটে ফ্যাশন বোদ্ধাদের মাথা ঘুরিয়ে দিলেন। স্বামী নিক জোনাসের সঙ্গে গটগটিয়ে স্টেজে গিয়ে অ্যাওয়ার্ড দিলেন, তারপর কাল রাতে আবার ফাটাফাটি ঘোষণা করে চমকে দিলেন সকলকে। ঘোষণাটি কিছুই নয়। আরও একটি ইন্টারন্যাশনাল প্রোজেক্ট ঢুকেছে তাঁর ঝুলিতে এবং শত্তুরের মুখে ছাই দিয়ে এটিও যথেষ্ট প্রেস্টিজিয়াস। যাঁরা ‘অ্যাভেঞ্জার্স এন্ডগেম’ ছবিটি গত বছর হামলে পড়ে দেখেছিলেন, তাঁরা চিনবেন, ওই ছবির পরিচালকদ্বয়, যাঁরা রুসো ব্রাদার্স বলে পরিচিত হলিউডে, তাঁদের পরিচালনায় আগামী একটি ওয়েব সিরিজের মুখ্য চরিত্রে দেখা যাবে প্রিয়ঙ্কা চোপড়াকে। মুখের কথা নয় কিন্তু! তাঁর বিপরীতে থাকছেন ‘গেম অফ থ্রোনস’-খ্যাত অভিনেতা রিচার্ড ম্যাডেন (Richard Madden)। সিরিজটির কাজ খুব শিগগিরই শুরু হতে চলেছে। এটি আমাজনের জন্য তৈরি একটি মাল্টি ওয়েবসিরিজ (Amazon series)। মানে, এক সিজনেই শেষ নয়। তার উপর আবার এই সিরিজটির গল্প আছে তিনটি দেশ জুড়ে ছড়িয়ে, আমেরিকা, ভারত ও মেক্সিকো। সিরিজের অফিশিয়াল নাম, সিটাডেল। 

 

ADVERTISEMENT

যাঁরা এই পর্যন্ত পড়ে নাকমুখ কুঁচকে ভাবছেন যে, ও আচ্ছা, আবারও ভারতীয় গল্প কিনা, তাই প্রিয়ঙ্কাকে নেওয়া হয়েছে। মোটেও না। এর আগে ‘কোয়ান্টিকো’, যে সিরিজটি দিয়ে হলিউডে পা রাখেন প্রিয়ঙ্কা, সেখানেও তাঁর চরিত্রটি ছিল ভারতীয় ঘেঁষা। অ্যালেক্স পেরিশ, মানে, প্রিয়ঙ্কা চরিত্রের মা ছিলেন ভারতীয়। কিন্তু ওই পর্যন্তই। তা ছাড়া আর কোনও কিছুর ভারতীয়করণ করা হয়নি। আর একটা কথা বলুন দিকি, কোনও ইংরেজ যদি ব্রিটিশ কোনও চরিত্রে অভিনয় করেন, তা হলে কোনও দোষ হয় না। কোনও আফ্রিকান যদি কোনও আফ্রিকানের চরিত্রে অভিনয় করেন, তা হলে দোষ নেই। পেনোলোপি ক্রুজ তো স্প্যানিশ টানে ইংরেজি বলে সারা জীবন স্প্যানিশ মহিলার ভূমিকায় অভিনয় করে গেলেন, তাতে কোনও দোষ নেই। যত দোষ কোনও ভারতীয় মহিলার ভারতীয় চরিত্রে অভিনয় করলে! যত্তসব!

Priyanka-Chopra-Jonas-Richard-Madden-Citadel

ADVERTISEMENT

Instagram

যা যে যা-ই বলুক ভাই, এর আগে অ্যাভেঞ্জার্স এন্ডগেম-এর প্রচারেই ভারতে এসে জো রুসো বলে গিয়েছিলেন যে, তিনি প্রিয়ঙ্কার মতো ট্যালেন্টেড অভিনেত্রীর সঙ্গে কাজ করতে পারলে খুশি হবেন। তখন নিন্দুকে বলেছিল, সে তো রুসোবাবু ভারতে এসেছেন বলে এখানকার তাজমহল টু ভিখিরি, সবকিছুরই প্রশংসা করবেন, প্রিয়ঙ্কা তো কোন ছার! এবার বোঝা যাচ্ছে, ওটি নিছক লোকদেখানো প্রশংসা ছিল না, তলায়-তলায় আসলে ততদিনে কথাবার্তা অনেকদূর এগিয়ে গিয়েছিল। 

ADVERTISEMENT

রাজকুমার রাওয়ের বিপরীতে প্রিয়ঙ্কার ওয়েব সিরিজ দ্য হোয়াইট টাইগার-এর শুটিং শেষ। পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে এখন। আমেরিকায় এখন তিনি ব্যস্ত তাঁর আগামী হলিউডি প্রোজেক্ট ‘উই ক্যান বি হিরোজ’ নিয়ে। তারপর শুরু হবে এই নতুন ওয়েব সিরিজের কাজ। নাঃ, নতুন বছরটা ঝালে-ঝোলে-অম্বলে দিব্যি কাটছে প্রিয়ঙ্কার…

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

ADVERTISEMENT

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম…আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!

15 Jan 2020
good points

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text