Diet

প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার নিয়ে বেশ কিছু ভুল ধারণা ভেঙে দেওয়ার সময় হয়েছে এবার!

popadminpopadmin  |  Aug 6, 2019
প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার নিয়ে বেশ কিছু ভুল ধারণা ভেঙে দেওয়ার সময় হয়েছে এবার!

লোকে বলে, ডায়েটিং করতে চাইলে আপনাকে গোড়াতেই একটা কথা মাথায় ঢুকিয়ে ফেলতে হবে। তা হল, কার্বোহাইড্রেট ব্যাপারটাকে মাথা থেকে বের করে ফেলুন এবং যত বেশি সম্ভব প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খান। কথাটা কিছুটা ঠিক বটে, কিন্তু এটিকেই জীবনের ধ্রুব সত্য বলে এগোতে হবে, এমন মাথার দিব্যিও কেউ দেয়নি! মানে, এটা ঠিক বটে, কার্বের চেয়ে প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খেলে আপনার শরীর অনেক তাড়াতাড়ি ফ্য়াট পোড়াবে। ফলে ওজনও কমবে। কিন্তু তা বলে প্রোটিনকে আঁকড়ে বাকি জীবনটা আপনি বেঁচে থাকুন, এমন কথা কোনও ডায়েটিশিয়ানই বলবেন না। আসলে ওজন কমানোর পাশাপাশি দেহের গঠনেও প্রোটিনের (Proteins) যেহেতু কোনও বিকল্প নেই, তাই এই macronutrient ঠিকে ঘিরে একাধিক ভুল ধারণা মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে, যা আমাদের মধ্যে অনেকেই চোখ বন্ধ করে বিশ্বাস করে থাকি। তাই চলুন জেনে নেওয়া যাক, সেই সব ধারণাগুলি সম্পর্কে, যেগুলির আসলে কোনও বাস্তব ভিত্তি নেই!

১. একগাদা প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খেলেই ওজন কমবে তরতরিয়ে

শরীরে প্রোটিনের মাত্রা বাড়লে ওজন নিয়ন্ত্রণে চলে আসে ঠিকই। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, বাটি বাটি প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খেলেই ওজন কমবে তরতরিয়ে। বরং শরীরের চাহিদার চেয়ে বেশি পরিমাণে প্রোটিনের প্রবেশ ঘটলে দেহের নানা ক্ষতি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। বিশেষ করে কিডনির ক্ষমতা কমে যাওয়ার আশঙ্কা যেমন বেড়ে যায়, তেমনই কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়রিয়া এবং ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা দেওয়ার আশঙ্কাও থাকে। এমনকী, এই কারণে নাকি হার্টেরও ক্ষতি হতে পারে। তাই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে দৈনিক কত পরিমাণে প্রোটিন খাওয়া উচিত, সে সম্পর্কে একবার ডায়েটিশিয়ানের সঙ্গে আলোচনা করে নিতে ভুলবেন না যেন!

২. শুধু মাংসই প্রোটিনে ঠাসা

এই ধরণার কোনও বাস্তব ভিত্তি নেই। কারণ, চিকেন-মটনে যেমন প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন রয়েছে, তেমনই ডিমও প্রোটিনে ঠাসা। এমনকী, ডাল, বাদাম, বিনস এবং সয়াতেও প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন মজুত রয়েছে। তাই নিয়মিত যদি চিকেন-মটন খেতে মন চায়, তা হলে নিয়ম করে কয়েক বাটি ডাল খেতে ভুলবেন না যেন! তাতেই প্রোটিনের চাহিদা যেমন পূরণ হবে, তেমনই খিদেও কমে যাবে। ফলে প্রয়োজন অতিরিক্তি ক্যালরির প্রবেশ আটকে যাওয়ার কারণে শরীরের ইতি-উতি জমে থাকা মেদ ধরে যেতে দেখবেন সময় লাগবে না।

৩. খাবার যতটা ভাল, সাপ্লিমেন্ট ততটা নয়

প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খেলে যতটা উপকার পাওয়া যায়, ততটা কিন্তু সাপ্লিমেন্ট খেলে পাওয়া যায় না। তাই চটজলদি ওজন কমাতে চাইলে সাপ্লিমেন্টের উপর ভরসা না রেখে মটন-চিকেন, নয়তো ডিল, বাদাম বা বিনস খান বেশি করে। সেই সঙ্গে নিয়ম করে সপ্তাহে দিনচারেক মিনিটতিরিশেক শরীরচর্চা করুন। দেখবেন, উপকার পাবেই পাবেন।

৪. সারা দিন ধরে অত প্রোটিন খাওয়াটাই অসম্ভব

প্রোটিন মানেই মাছ-মাংস-ডিম নয়, প্রোটিন খাবারের আরও অনেক সোর্স আছে। সুতরাং, যাঁরা ভাবেন যে, প্রোটিনসমৃদ্ধ ডায়েট মানেই হল চিকেন-মটনে জীবন ভরিয়ে ফেলা, তাঁরা একদম ভুল ভাবছেন! যেমন, মুসুর ডালে যথেষ্ট প্রোটিন থাকে। কাজেই ডাল-ভাতের মতো সাধারণ বাঙালি খাবার খেলেও যথেষ্ট প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খাওয়া সম্ভব।

৫. শুধু নাকি প্রোটিনই খেতে হবে, কার্বোহাইড্রেট নয়!

যে সব খাবারে refined carbs-এর পরিমাণ বেশি থাকে, সেই সব খাবার বেশি মাত্রায় খেলে ওজন বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। কিন্তু তার মানে এই নয় যে ভাত-রুটির মতো কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার খেলে ওজন বাড়বে। বরং একাধিক স্টাডিতে একথা প্রমাণিত হয়ে গেছে যে, প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খাওয়ার পাশাপাশি কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবারকে রোজের ডায়েটে জায়গা করে দিল এবং নিয়মিত শরীরচর্চা করলে ওজন নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ার আশঙ্কা প্রায় থাকে না বললেই চলে। তবে নিয়মিত কত পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে সে সম্পর্কে একবার চিকিৎসকের সঙ্গে আলোচনা করে নিতে ভুলবেন না যেন!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!