Advertisement

বিবাহ

আপনার জীবনে বিয়ের করার উপযুক্ত সময় কোনটি? জেনে নিন

Indrani BoseIndrani Bose  |  Aug 6, 2021
আপনার জীবনে বিয়ের করার উপযুক্ত সময় কোনটি? জেনে নিন

প্রথমেই একটি কথা পরিষ্কার করে বলে নেওয়া প্রয়োজন। বিয়ের কোনও সঠিক সময় হয় না। আপনি যখন মনে করবেন, আপনি এই সময় বিয়ে করতে চান তখনই আপনি বিয়ে করবেন। আপনি আর্থিক ভাবে ও মানসিক ভাবে প্রস্তুত থাকলেই আপনি বিয়ে করতে পারেন। যদি আপনি সারাজীবন বিয়ে না করার সিদ্ধান্ত নেন, তাহলেও হবে। সেটা সম্পূর্ণই আপনার ব্যক্তিগত পছন্দ ও অধিকার। তবে আপনার বিয়ে করার উপযুক্ত সময় (married) কী, এই বিষয়ে যদি বিশেষজ্ঞের মতামত চান, তা আপনি নিতে পারেন।

বোঝাপড়া তৈরি হওয়া প্রয়োজন

উইন্ডসোর বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গিয়েছে, বিয়ে কয়েকটি মানসিক সমস্যা সমাধান করতে পারে। পুরুষ এবং মহিলা দুইজনের মানসিক অবসাদ বা মাদকাসক্তি দূর করতে পারে। তবে সম্প্রতি বর্তমান প্রজন্মের মধ্য়ে একটি বিষয় লক্ষ্য করা যায়। তারা বিয়ে করার থেকে সহবাসকেই বেশি গুরুত্ব দেয়। একে অপরের দায়িত্ব নিতে মোটেই প্রস্তুত নয় তারা। দাম্পত্য সুখের হতে পারে। তবে তার জন্য কিছু টিপস অবশ্যই মনে রাখতে হয়। সুখী দাম্পত্য মানে এই নয় যে, তাদের মধ্যে কোনও ঝগড়া হয় না। সুখী দাম্পত্যের অর্থ তারা নিজেদের মধ্য়ে সমস্যা সমাধান করে নিতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রাপ্তমনস্ক হলে, আর্থিকভাবে স্বচ্ছল হলে, একে অপরের দায়িত্ব নিতে পারলে এবং নিজেদের মধ্য়ে শিক্ষা ও আর্থিক সাম্য থাকলেই বিয়ে করা উচিত। দাম্পত্য সুখের হতে পারে। তাহলে আপনিও ভাল থাকতে পারেন। কিন্তু নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া না থাকলেই সমস্যা শুরু হয়। যার প্রভাব পড়ে আপনার মনেও। তাই বিয়ে করার আগে এই বিষয়গুলি দেখা প্রয়োজন (married) ।

সঠিক বয়স (married) হয় কী?

না বিয়ের কোনও সঠিক বয়স হয় না (married) । তবে বিয়ে জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত। অল্প বয়সে ভুল মানুষ বেছে নেওয়ার এবং ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে। তাই মানসিক স্থিতি হলেই জীবনের যে কোনও বড় এবং গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত। বিয়ের প্রতিও একই বিষয় প্রযোজ্য।

তবে বিশেষজ্ঞরা বিয়ের জন্য পুরুষ এবং নারীর দুইয়ের জন্যই ২৫ থেকে ৩২ বছর পর্যন্ত সময়টিকে সঠিক মনে করেন। কম বয়সে বিয়ে করলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পরবর্তী সময়ে সেই বিয়ে ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কারণ, সঠিক মানুষ বাছার ক্ষেত্রে ভুল থেকে যায়। বয়স বেশি হলেও দাম্পত্য জীবনের একাধিক প্ল্যানিংয়ে সমস্য়া তৈরি হতে পারে। তবে আপনি যদি মনে করেন ৩২ বছর বয়সের পরে বিয়ে করবেন, সেটা সম্পূর্ণ আপনার সিদ্ধান্ত। আপনি যেভাবে খুশি থাকবেন, সেই খুশি থাকাতেই গুরুত্ব দিন। তবে ২৫ বছরের কম বয়সে বিয়ের সিদ্ধান্ত (married) না নেওয়াই ভাল। আপনার আর্থিক স্থিতি আছে কি না, আপনি মানসিক ভাবে প্রস্তুত কি না, আপনি অন্য একজন মানুষের দায়িত্ব নিতে পারবেন কি না, এই সব বিষয়গুলিই লক্ষ্য রাখুন। তারপর বিয়ের সিদ্ধান্ত নিন। আপনি সুখী থাকবেন।

মূল ছবি – ইনস্টাগ্রাম

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজিহিন্দিমারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!