Advertisement

বলিউড ও বিনোদন

ওয়েবে সিরিজে প্রথমবার ডার্ক চরিত্রে সাহিল

Swaralipi BhattacharyyaSwaralipi Bhattacharyya  |  Sep 2, 2020
ওয়েবে সিরিজে প্রথমবার ডার্ক চরিত্রে সাহিল

অভিনয়। বাইরে থেকে দেখে দর্শক হিসেবে হয়তো খুব সহজ মনে হয়। মনে হয় যাঁরা অভিনয় করেন, তাঁরা গ্ল্যামার দুনিয়ার মানুষ। হ্যাঁ, গ্ল্যামার তাঁদের ঘিরে থাকে, ঠিকই। কিন্তু তাঁদের কাজটা খুব সহজ নয়। অনেক পরিশ্রম, অধ্যাবসায় লুকিয়ে থাকে অভিনয়ের পিছনে। অন্য যে কোনও পেশার মতোই নিত্যদিনের পরিশ্রম থাকে এই পেশায়।

অভিনয়ের বিভিন্ন ধারা রয়েছে। হয়তো দর্শকই তা সৃষ্টি করেছেন। কোনওটা কমেডি, কোনওটা পজিটিভ চরিত্র। কোনওটা বা নেগেটিভ। মূল বিষয়টা অভিনয়। আর এর কোনও ধারাই খুব সহজে পেরিয়ে আসা যায় না।

সিনে বিশেষজ্ঞরা বলেন, এমন একটি চরিত্র যেটা আদতে কমেডি মনে হলেও তার মধ্যে থাকে ভিলেনের মশলা, তা নাকি পর্দায় ফুটিয়ে তোলা বেশ কঠিন। ঠিক তেমনই একটি চরিত্রে এবার দর্শক দেখতে পাবেন বলিউড অভিনেতা সাহিল বেদকে (sahil)।

এর আগে বিভিন্ন ধরনের চরিত্রে সাহিল নিজেকে প্রমাণ করেছেন। তাঁর ট্যালেন্টের পরিচয় পেয়েছেন দর্শক। ‘বদ্রিনাথ কি দুলহানিয়া’, ‘হামটি শর্মা কি দুলহানিয়া’, ‘দিল বেচারা’র মতো ছবি রয়েছে তাঁর সিভিতে। এবার একটি মিউজিক্যাল ওয়েব সিরিজে অভিনয় করবেব তিনি। তার নাম দ্য সোচো প্রোজেক্ট। কিন্তু একেবারে ভিন্ন অবতারে ধরা দেবেন সাহিল। তাঁর আগের পারফর্ম করা কোনও চরিত্রের সঙ্গে এর কোনও মিল নেই।

এই ওয়েব সিরিজে সাতজন স্ট্রাগলিং মিউজিশিয়ানের জীবনের গল্প দেখানো হবে। যাঁরা ভারতীয় মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে চান। কিন্তু অন্য সব ইন্ডাস্ট্রির মতো মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতেও কিছু মোনোপলি রয়েছে। সে কারণে নতুন মিউজিশিয়ানদের সুযোগ পাওয়া অনেক কঠিন হয়ে যায়। সেখানে এক মিউজিক প্রোডিউসারের ভূমিকায় অভিনয় করবেব সাহিল। যিনি একাধারে ধনী এবং অনেক মিউজিক কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে। সাহিলের চরিত্রটি ডার্ক। প্রায় তিন বছর পর দর্শকের জন্য দারুণ একটি উপহার নিয়ে আসতে চলেছেন অভিনেতা।

সাহিল শেয়ার করলেন, “প্রথমত দারুণ স্টোরি লাইন। ফলে এমন একটা প্রোজেক্টের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পেরে দারুণ লাগছে। খুব খুশি আমি। যে মুহূর্তে গল্পটা শুনেছিলাম, আর আমার চরিত্রের ডিটেলটা পেলাম, সে মুহূর্তেই রাজি হয়ে গিয়েছিলাম। এই প্রথম কোনও মিউজিক প্রোডিউসারের চরিত্রে অভিনয় করছি। যাঁর পার্সোনালিটিতে অনেক রকম স্তর রয়েছে। যেটা আমার কাজকে আরও চ্যালেঞ্জিং করেছে। আশা করব, আমার এই কাজটাও দর্শকের ভাল লাগবে। আমাকে আগেও যেমন ভালবাসা দিয়েছেন, এখন তেমন ভালবাসা দেবেন সকলে।”

ওয়েব কনটেন্টে এখন প্রচুর এক্সপেরিমেন্ট হচ্ছে। করোনা আতঙ্ক এবং লকডাউন যেন ওয়েব প্ল্যাটফর্মকে দর্শকের আরও কাছে এনেছে। ফলে সেখানে এমন একটা সাবজেক্ট নিয়ে উত্তেজিত সাহিল। 

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!