home / ফ্যাশন
পুজোর শাড়ির শপিং গাইড: টুকিটাকি দরকারি টিপস

পুজোর শাড়ির শপিং গাইড: টুকিটাকি দরকারি টিপস

পুজোর সময় (durga puja) সেজেগুজে সুন্দর শাড়ি (saree) পরে বেরোতে কী ভাল লাগে তাই না? আপনার স্বামী বা প্রেমিক মুগ্ধ চোখে তাকিয়ে থাকবে, প্রতিবেশীর চোখ ট্যারা হবে আর পুজোর ভিড়ে সকলেই ড্যাবড্যাবিয়ে আপনাকে দেখবে, এটাই তো কাম্য।

কিন্তু এত কিছু করার আগে একটা মস্ত হ্যাপা থাকে, আর সেটা হল শপিং (shopping tips)। সকাল থেকে সন্ধে পর্যন্ত এই দোকান সেই দোকান ঘোরা, দরদাম করে জিনিস কেনা, ঘেমে নেয়ে একশা হওয়া।

যাঁদের বড় পরিবার, তাঁদের তো আরও সমস্যা। সকলের পছন্দ অনুযায়ী কেনাকাটা করা কি আর মুখের কথা? পুজোর আগেই তাই আমরা নিয়ে এসেছি পুজোর শাড়ি কেনার শপিং গাইড। আমরাও চাই আপনার নরমসরম কাঁধ থেকে বোঝা হাল্কা করতে।

প্ল্যান করুন

হতে পারে আপনি একজন গৃহবধূ বা চাকুরিরতা। যাই হোন না কেন, আপনার মেলা কাজ। তাই কার কার জন্য শাড়ি কিনতে হবে, সেটার একটা তালিকা তৈরি করে নিন আগে।

দেখে নিন, সেটা কমপ্লিট করতে কত সময় বা দিন লাগবে। কারণ, শুধু শাড়ি কিনলেই তো আর হবে না, বাড়ির পুরুষ সদস্যদের জন্যও জামাকাপড় কিনতে হবে।

বাড়ির খুদে সদস্যদেরও ভুলে গেলে চলবে না। এছাড়াও নানা টুকিটাকি তো রয়েছেই। আগে থেকে প্ল্যান ছকা থাকলে সুবিধে হবে আপনারই।

অষ্টমীতে এমন সাজবেন নাকি?

সবার পছন্দ-অপছন্দ মাথায় রাখুন

অনেকদিন ধরে কেনাকাটা করতে করতে এমনিতেই একটা সেন্স তৈরি হয়ে যায়। তাছাড়া যারা আপনার নিকট আত্মীয়া, তাঁরা কীরকম শাড়ি পরতে পছন্দ করেন সেই বিষয়ে নিশ্চয়ই আপনার একটা সম্যক ধারণা আছে।

যাঁদের পছন্দ আপনি জানেন না, তাঁদের থেকে জেনে নিন তাঁরা কীরকমের শাড়ি পরতে পছন্দ করেন। তাঁদের চেহারা ও কমপ্লেকশন দেখে আপনিও কিছুটা আন্দাজ করে নিতে পারেন। 

একার ঘাড়ে দায়িত্ব নেবেন না

এই কথা বলার পিছনে দু’টি কারণ আছে। প্রথমত, একা গেলে আপনার অনেক ভুল হতে পারে। দ্বিতীয়ত, পুজোর ভিড়ে এতগুলো প্যাকেট নিয়ে আপনি নাজেহাল হতে পারেন। সঙ্গে এমন কাউকে নিন, যে কেনাকাটা করতে এবং দামদর করতে ভালবাসে। শাড়ি সম্পর্কে যিনি একটুআধটু জানেন, তাঁকে সঙ্গে নিলেও ভাল হয়। 

পছন্দের দোকান থেকেই শুরু করুন

আপনি যখন এত দিন ধরে শপিং করছেন, শাড়ির ক্ষেত্রে আপনার নিশ্চয়ই দু’-একটা পছন্দের দোকান আছে। যদি অনেকের আপনাকে শাড়ি কিনতে হয়, তা হলে একটা এমন দোকান বেছে নেওয়াই ভাল, যেখানে সব রকমের শাড়ি পাওয়া যায়। অর্থাৎ, বাড়ির প্রত্যেকের জন্য একই জায়গায় শাড়ি পেয়ে গেলে, আপনাকে পাঁচটা দোকানে দৌড়তে হবে না। আর এক জায়গা থেকে একাধিক শাড়ি কিনলে আপনি দামেও অনেকটা ছাড় পাবেন। 

পুজোর শাড়ি কিনতে যাওয়ার সময়ে কাউকে সঙ্গে নিয়ে যান

সময় নিয়ে শপিং করুন

এটা এই কারণে বলছি যে, শাড়ি কিনলে আপনাকে সেটার ব্লাউজও তৈরি করতে হবে। এর মধ্যে যদি শাড়ি কারও পছন্দ না হয় বা শাড়িতে কোনও ফাটাছেঁড়া বেরোয়, সেটা আপনাকেই পাল্টে আনতে হবে। এসব করতে কিন্তু বেশ কিছুটা সময় যাবে। পুজোর সময় বেশিরভাগ দোকানই জিনিস একবার কিনলে সেটা বারবার পাল্টে দেওয়া পছন্দ করে না। 

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

13 Aug 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text