home / বিনোদন
বিশ্বের প্রথম ১৫ জন সবচেয়ে ধনী মহিলা অ্যাথলিটদের মধ্যে একমাত্র ভারতীয় পি ভি সিন্ধু

বিশ্বের প্রথম ১৫ জন সবচেয়ে ধনী মহিলা অ্যাথলিটদের মধ্যে একমাত্র ভারতীয় পি ভি সিন্ধু

আজ্ঞে হ্যাঁ, সানিয়া মির্জা নন, সাইনা নেহওয়ালও নন। মেরি কম তো ননই। ভারতীয় মহিলা অ্যাথলিটদের মধ্যে এখন হায়েস্ট পেড হলেন ব্যাডমিন্টনে অলিম্পিক রুপোজয়ী পি ভি সিন্ধু (P V Sindhu)! সম্প্রতি ফোর্বস ম্যাগাজিন দ্বারা প্রকাশিত একটি তালিকায় বিশ্বের প্রথম ১৫ জনের মধ্যে একমাত্র ভারতীয় মহিলা অ্যাথলিট হিসেবে রাখা হয়েছে পি ভি সিন্ধুর নাম। এই তালিকা অনুসারে, সিন্ধুর বার্ষিক আয় এখন ৫.৫ মিলিয়ন ডলার এবং তিনি বিশ্বের ১৩তম সবচেয়ে ধনী (highest paid) মহিলা অ্যাথলিট (athelete)! এই তালিকার শীর্ষে রয়েছেন টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামস। তাঁর বাৎসরিক আয় মাত্র ২৯.২ মিলিয়ন ডলার! 

কী-কী বিচারে রেখে এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে? প্রথমত, একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এই অ্যাথলিটরা কত টাকা আয় করেছেন, সেটাই ধরা হয়েছে এই তালিকায়। সময়সীমা হল, জুন ২০১৮ থেকে জুন ২০১৯। এই এক বছরে তাঁরা বিভিন্ন টুর্নামেন্ট জিতে বা সেখানে অংশগ্রহণ করে যে প্রাইজমানি বা সাম্মানিক পেয়েছেন সেই অর্থ, বিভিন্ন এনডোর্সমেন্ট বাবদ প্রাপ্ত অর্থ, বিভিন্ন অ্যাপিয়ারেন্স বাবদ প্রাপ্ত অর্থ, তা ছাড়াও সরকারি স্যালারি, অন্যান্য পুরস্কারবাবদ প্রাপ্ত অর্থ, অন্যান্য ব্যবসা ইত্যাদি সবকিছু মিলিয়ে এই এক বছরে এই তারকারা কত আয় করেছেন, তার উপর ভিত্তি করেই তৈরি করা হয়েছিল এই তালিকা। 

এই তালিকা অনুসারে এখনও সবচেয়ে বেশি রোজগার হয় টেনিস খেলে! অন্তত মহিলাদের জন্য তো বটেই! কারণ, তালিকার প্রথম তিনটি স্থানই অধিকার করে আছেন তিন মহিলা। সেরেনা উইলিয়ামস, নেওমি ওসাকা এবং অ্যাঞ্জেলিক কার্বার। মহিলা অ্যাথলিটদের মধ্যে সেরেনা দেখিয়ে দিয়েছেন যে, কী করে খেলা ছাড়াও আরও নানাভাবে টাকা রোজগার করে ধনীশ্রেষ্ঠা হওয়া যায়! ৩৭ বছর বয়সি এই তারকা আরও একবছর খেলা চালিয়ে যাওয়ার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছেন এবং তারপর তাঁর রিটায়ারমেন্ট প্ল্যানও ছকা হয়ে গিয়েছে। তিনি এস বাই সেরেনা নাম দিয়ে একটি ফ্যাশন লাইন লঞ্চও করতে চলেছেন! প্রথমে এই ব্র্যান্ডের ক্লোদিং আসবে বাজারে, তারপর ধীরে-ধীরে লেবেলটিকে আরও বাড়ানোর প্ল্যান আছে তাঁর। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ওসাকা বা তৃতীয় স্থানের কার্বার অবশ্য এখনও অতটা ভেবে উঠতে পারেননি। কিন্তু তাঁরা সেরেনার চেয়ে অনেক বেশি টুর্নামেন্ট খেলেছেন বলে মোটামুটি ভদ্রস্থ পর্যায়ে নিয়ে যেতে পেরেছেন রোজগারকে!

পূর্ণ তালিকাটি এইরকম…

1. সেরেনা উইলিয়ামস – ২৯.২ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

2. নেওমি ওসাকা – ২৪.৩ মিলিয়ন ডলার (টেনিস) 

3. অ্যাঞ্জেলিক কার্বার – ১১.৮ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

4. সিমোনা হালেপ – ১০.২ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

5. স্লোয়্যান স্টিফেনস – ৯.৬ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

6. ক্যারোলিন ওজনিয়াকি – ৭.৫ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

7. মারিয়া শারাপোভা – ৭ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

8. ক্যারোলিনা প্লিসকোভা – ৬.৩ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

9. এলিনা স্ভিতোলিনা – ৬.১ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

10 ভেনাস উইলিয়াম – ৫.৯ মিলিয়ন ডলার (টেনিস) এবং গার্বিন মুগুরুজা – ৫.৯ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

12. অ্যালেক্স মর্গ্যান – ৫.৮ মিলিয়ন ডলার (ফুটবল)

13. পি ভি সিন্ধু – ৫.৫ মিলিয়ন ডলার (ব্যাডমিন্টন) এবং ম্যাডিসন কিজ – ৫.৫ মিলিয়ন ডলার (টেনিস)

15. আরিয়া জুতানুগর্ন – ৫.৩ মিলিয়ন ডলার (গলফ)

ভারতীয় খেলোয়াড়দের অবস্থা বেশ শোচনীয়! সিন্ধু ছাড়া বাকি কেউই প্রথম তালিকার ধারেকাছেও আসতে পারেননি। আসলে উপরে দেওয়া তালিকাটি যদি দেখেন, তা হলে বুঝবেন, মাত্র একটি স্পোর্টই মেয়েদের ধনী হওয়ার রসদ জুগিয়েছে, আর সেটি হল টেনিস! আর ভারতের সবচেয়ে বড় মহিলা টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা গত বছর খেলতেই পারেননি তিনি সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন বলে! ইন ফ্যাক্ট সিন্ধু, ১২ নম্বরের অ্যালেক্স মর্গ্যান এবং ১৫ নম্বরে থাকা আরিয়া জুতানুগর্ন ছা়ড়া আর কেউই অন্য সকলেই টেনিসের সঙ্গে যুক্ত! এই ভরা টেনিসের বাজারেও যে সিন্ধু তাঁর শাটল কক নিয়ে জ্বলজ্বল করছেন, সেটাই অনেক!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!

08 Aug 2019

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text